ঢাকা, শনিবার, ৩ আশ্বিন ১৪২৭, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০০ সফর ১৪৪২

জাতীয়

বিউটি ধর্ষণ ও হত্যা, বাবুলের রিমান্ড

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১২৫৮ ঘণ্টা, এপ্রিল ১, ২০১৮
বিউটি ধর্ষণ ও হত্যা, বাবুলের রিমান্ড বাবুলকে আদালতে নিয়ে যাচ্ছে পুলিশ

হবিগঞ্জ: হবিগঞ্জের শায়েস্তাগঞ্জে স্কুলছাত্রী বিউটি আক্তারকে ধর্ষণ ও হত্যা মামলার প্রধান আসামি বাবুল মিয়ার ৫ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

রোববার (০১ এপ্রিল) বিকেলে হবিগঞ্জের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আসমা বেগম এ রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

এ বিষয়ে আদালত পরিদর্শক অহিদুর রহমান বাংলানিউজকে বলেন, বাবুলের বিরুদ্ধে ১০দিনের রিমান্ডের আবেদন করা হলে শুনানী শেষে বিজ্ঞ বিচারক তাকে ৫ দিনের রিমান্ড দেন।

এদিকে, বাবুলকে গ্রেফতারের বিষয়ে প্রেস ব্রিফিং করেছে জেলা পুলিশ। রোববার দুপুরে পুলিশ সুপারের সভা কক্ষে এ প্রেস ব্রিফিংয়ে পুলিশ সুপার বিধান ত্রিপুরা বলেন, মামলাটি দ্রুত নিষ্পত্তির জন্য জুড়ালোভাবে তদন্ত করছি আমরা। রিমান্ডে বাবুলকে জিজ্ঞাসাবাদ করে এ ঘটনায় আরো কয়জন জড়িত রয়েছেন তা জানা যাবে। পুলিশের প্রেস ব্রিফিংতিনি আরো বলেন, বাবুলকে গ্রেফতার করতে সিলেটে পুলিশ ও র‌্যাব যৌথভাবে কাজ করেছে। র‌্যাব-৯ ও পুলিশের একটি যৌথ দল সিলেটের বিয়ানিবাজার থেকে তাকে গ্রেফতার করে।

১৭ মার্চ সকাল সাড়ে ১১টায় হবিগঞ্জের শায়েস্তাগঞ্জের পুরাইকলা বাজার সংলগ্ন হাওর থেকে স্কুলছাত্রী বিউটির মরদেহ উদ্ধার করা হয়। মরদেহে ধারালো অস্ত্রের আঘাত ছিল। পরে এ ঘটনায় ওই দিনই বিউটিকে হত্যা ও ধর্ষণের অভিযোগে তার বাবা সায়েদ আলী বাদী হয়ে বাবুল মিয়াসহ দুইজনের নাম উল্লেখ করে এবং অজ্ঞাতপরিচয় কয়েকজনকে আসামি করে শায়েস্তাগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। এ পরিপ্রেক্ষিতে ২১ মার্চ বাবুলের মা কলম চাঁন ও সন্দেহভাজন হিসেবে একই গ্রামের ইসমাইলকে আটক করে পুলিশ।

এরও আগে ০১ মার্চ বিউটির বাবা সায়েদ আলী বাদী হয়ে বাবুল ও তার মা কলম চাঁনের বিরুদ্ধে হবিগঞ্জ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে একটি অপহরণ ও ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন।

এছাড়া বৃহস্পতিবার (২৯ মার্চ) দুপুরে হবিগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আ স ম শামছুর রহমান ভূঁইয়াকে প্রধান করে ঘটনাটি তদন্তে কমিটি গঠন করা হয়।

বাংলাদেশ সময়: ১৮৫০ ঘণ্টা, এপ্রিল ০১, ২০১৮
টিএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa