ঢাকা, শুক্রবার, ৯ আশ্বিন ১৪২৭, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৬ সফর ১৪৪২

জাতীয়

উন্নত চিকিৎসার জন্য পাসপোর্ট অফিসের আহত এডি ঢাকায়

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫৪৯ ঘণ্টা, মার্চ ২৯, ২০১৮
উন্নত চিকিৎসার জন্য পাসপোর্ট অফিসের আহত এডি ঢাকায় আহত শাহজাহান কবির/ছবি: বাংলানিউজ

বগুড়া: দুর্বৃত্তদের অস্ত্রের আঘাতে গুরুতর আহত বগুড়া আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসের সহকারী পরিচালক (এডি) শাহজাহান কবিরকে উন্নত চিকিৎসার জন্য এয়ার অ্যাম্বুলেন্সযোগে ঢাকায় নেওয়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২৯ মার্চ) বিকেল পৌনে ৬ টার দিকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতাল থেকে তাকে ঢাকায় পাঠানো হয়েছে।

রাত পৌনে ৮ টার দিকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালের উপ-পরিচালক ডা. নির্মেলন্দু চৌধুরী বাংলানিউজকে জানান, শজিমেক হাসপাতালের সার্জারি বিভাগে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছিলো পাসপোর্ট কার্যালয়ের কর্মকর্তা শাজাহান কবিরকে।

কিন্তু তার দফতরের মহাপরিচালকের নির্দেশে তাকে ঢাকায় স্থানান্তর করা হয়েছে।

তিনি আরও জানান, তার বাড়ি কুষ্টিয়া জেলায়। তার পরিবারে কেউ ঢাকায় বা কেউবা কুষ্টিয়ায় থাকেন। এতে করে পরিবারের পক্ষ থেকে তার খোঁজখবর নেওয়ায় হয়তো সমস্যা হচ্ছিলো। এ কারণে তার চিকিৎসার দেখভালের সুবিধার্থে ঢাকায় নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন দফতরের মহাপরিচালক। এখানে অন্যকোনো কারণ নেই বলেও জানান উপ-পরিচালক ডা. নির্মেলন্দু চৌধুরী।

জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (মিডিয়া) সনাতন চক্রবর্তী জানান, এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের শনাক্ত ও ধরতে বিভিন্ন স্থানে অভিযান চলছে। তবে এখনও কাউকে আটক করা সম্ভব হয়নি।

এরআগে বৃহস্পতিবার দুপুরে বগুড়া আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসের সহকারী পরিচালক (এডি) শাহজাহান কবিরকে কুপিয়ে জখম করে দুর্বৃত্তরা। পরে তাকে উদ্ধার করে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

ঘটনাটি জানার পরপরই জেলা প্রশাসক (ডিসি) মোহাম্মদ নূরে আলম সিদ্দিকী, জেলার পুলিশ সুপার (এসপি) আলী আশরাফ ভূঞাসহ প্রশাসনের শীর্ষ কর্মকর্তারা শজিমেকে ছুটে যান।

বাংলাদেশ সময়: ২১৪৪ ঘণ্টা, মার্চ ২৯, ২০১৮
এমবিএইচ/ওএইচ/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa