bangla news

রাজশাহী থেকে পদ্মা ও ধূমকেতুর যাত্রা বাতিল

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৭-০৮-২০ ২:৩১:৪৯ এএম
রাজশাহী থেকে পদ্মা ও ধূমকেতুর যাত্রা বাতিল, ছবি: বাংলানিউজ

রাজশাহী থেকে পদ্মা ও ধূমকেতুর যাত্রা বাতিল, ছবি: বাংলানিউজ

রাজশাহী: রাজশাহী থেকে রোববার (২০ আগস্ট) বিকেলের পদ্মা ও রাতের আন্তঃনগর ট্রেন ধূমকেতুর যাত্রা বাতিল করা হয়েছে।

আগামীকাল সোমবার (২১ আগস্ট) সকালের ঢাকামুখী আন্তঃনগর ট্রেন সিল্কিসিটি এক্সপ্রেস যথা সময়েই রাজশাহী থেকে ছেড়ে যাবে বলে আশা করা হচ্ছে।

পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের সুপারেন্টেন্ড জিয়াউল আহসান রোববার (২০ আগস্ট) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে বাংলানিউজকে এই তথ্য নিশ্চিত করেন।

যারা টিকিট কিনে রেখেছেন এখন ফেরত দিয়ে টাকা নিতে পারছেন। এছাড়া চাইলে যাত্রার তারিখও পরিবর্তন করতে পারছেন বলে জানান রেলের এই ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা।রাজশাহী থেকে পদ্মা ও ধূমকেতুর যাত্রা বাতিল, ছবি: বাংলানিউজজিয়াউল আহসান বলেন, রাজশাহী থেকে আজ সকালের ঢাকামুখি আন্তঃনগর ট্রেন সিল্কিসিটি এক্সপ্রেস টেনের যাত্রা বিরতির দিন। আর ট্রেন বন্ধ থাকায় কাউকে মাঝপথে গিয়ে আটকে থাকতে হয়নি। তবে বিকেলের আন্তঃনগর ট্রেন পদ্মা এক্সপ্রেস এবং রাতের ধূমকেতু এক্সপ্রেসের যাত্রা বাতিল হয়েছে।

ঢাকা থেকে রেলের মহাপরিচালক এরই মধ্যে ঘোষণা দিয়েছেন যে, আগামী ২৪ ঘণ্টায় দক্ষিণবঙ্গ থেকে উত্তরবঙ্গের সকল ট্রেনের যাত্রা বাতিল করা হয়েছে। কিন্তু এখন পর্যন্ত তারা এ ব্যাপারে কোনো ফ্যাক্স পাননি। তবে এই সময়ের মধ্যে ওই দুটি ট্রেনই রয়েছে। তাই আপাতত দু’টির যাত্রা বাতিল করা হয়েছে। ফ্যাক্স পেলে তারা আরও বিস্তারিত বলতে পারবেন বলেও জানান রেল সুপারেন্টেন্ড।

এদিকে রাজশাহী রেল স্টেশনে গিয়ে দেখা গেছে সকালে দক্ষিণের পথে কোনো ট্রেন না থাকায় প্লাটফর্মগুলো ছিল ফাঁকা। কোনো অপেক্ষমাণ যাত্রীদের দেখা যায়নি। সকালের অন্যান্য রুটের ট্রেন যথাসময়ে ছেড়ে যাওয়ায় প্লাটফর্মেও দাঁড়িয়ে থাকা কোনো ট্রেন পাওয়া যায়নি।

তবে টিকেট কাউন্টারগুলোতে হালকা ভিড় লক্ষ্য করা গেছে। দক্ষিণবঙ্গের সঙ্গে উত্তরবঙ্গের ট্রেন চলাচল বন্ধের খবরে কেউ টিকিট ফেরত দিতে এসেছেন। কেউ আবার ট্রেনের টিকিট দিয়ে যাত্রার তারিখ পরিবর্তন করে নিচ্ছেন। ঈদ মৌসুমে এমন ঘটনায় অনেকেই পড়েছেন দুর্ভোগে।

রাজশাহী রেল স্টেশনে জাহাঙ্গীর আলম নামে এক যাত্রী বলেন, রোববার বিকেলের পদ্মায় টিকিট কাটা ছিল তার। ট্রেন বন্ধের খবরে তিনি স্টেশনে আসলে কাউন্টার থেকে জানানো হয় যাত্রা বাতিলের কথা। অগত্যায় পদ্মার টিকিট ফেরত দিয়ে সোমবার সকালের সিল্কসিটির টিকিট নিলেন।

তার মত অনেক যাত্রীকেই বাধ্য হয়ে যাত্রার দিন পরিবর্তন অথবা টিকিট ফেরত দিয়ে টাকা নিয়ে যেতে দেখা গেছে। ফলে আকস্মিক ট্রেন চলাচল বন্ধে দুর্ভোগে পড়েছেন এই রুটের যাত্রীরা।

এর আগে টাঙ্গাইলের কালিহাতী উপজেলায় পৌলি নদীর উপর রেল সেতুর এপ্রোচের মাটি প্রায় ২০ ফুট সরে যায়। ফলে ঢাকার সঙ্গে উত্তরবঙ্গ ও দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের রেল যোগাযোগ বন্ধ রয়েছে।

রোববার (২০ আগস্ট) সকাল ৬টার দিকে স্থানীয়রা রেল সেতুর এপ্রোচ মাটি সরে যেতে দেখে বিষয়টি স্থানীয় প্রশাসনকে অবহিত করে। এরপর স্থানীয়রা লাল কাপড় টানিয়ে সতর্ক বার্তা প্রদর্শন করে। বর্তমানে ঘটনাস্থলে রেলওয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত রয়েছেন। এতে রেল লাইনের নিরাপত্তা জনিত কারণে ঢাকার সঙ্গে উত্তরবঙ্গ ও দক্ষিণাঞ্চলের ট্রেন চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

ঘটনাস্থলে নীলফারারীর চিলাহাটি থেকে ঢাকাগামী নীলফামারী এক্সপ্রেস ট্রেনটি আটকা পড়েছে। এছাড়া বঙ্গবন্ধু সেতুর পূর্ব স্টেশনে ঢাকাগামী রংপুর এক্সপ্রেস, বঙ্গবন্ধু সেতুর পশ্চিম স্টেশনে দিনাজপুর থেকে ঢাকাগামী একতা এক্সপ্রেস এবং ঢাকা থেকে রাজশাহীগামী ধূমকেতু এক্সপ্রেস ট্রেনগুলো জয়দেবপুর রেলস্টেশনে আটকা পড়ে আছে। রেলসেতুর গার্ডার ভেঙে পড়ায় উত্তর ও দক্ষিণবঙ্গের সঙ্গে সারাদেশের রেল যোগাযোগ আরও ২৪ ঘণ্টা পর স্বাভাবিক হবে বলে জানান রেলওয়ের মহাপরিচালক।

বাংলাদেশ সময়: ১২১৭ ঘণ্টা, আগস্ট ২০, ২০১৭
এসএস/এএটি/

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   ট্রেন সার্ভিস
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2017-08-20 02:31:49