ঢাকা, মঙ্গলবার, ১১ কার্তিক ১৪২৭, ২৭ অক্টোবর ২০২০, ০৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

জাতীয়

গোদাগাড়ীতে ছেলের লাঠির আঘাতে মা খুন

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫৫৭ ঘণ্টা, মে ৪, ২০১৭
গোদাগাড়ীতে ছেলের লাঠির আঘাতে মা খুন

রাজশাহী: রাজশাহীর গোদাগাড়ীতে ছেলের লাঠির আঘাতে সেরিনা বেগম (৫২) নামে এক বৃদ্ধার মৃত্যু হয়েছে।

এসময় ছেলের লাঠির আঘাতে তার বাবা হাবিবুর রহমানও আহত হয়েছেন। বর্তমানে তিনি গোদাগাড়ী ৩১ শয্যা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

বৃহস্পতিবার (০৪ মে) রাত সাড়ে ৮টার দিকে উপজেলার বাসুদেবপুর ইউনিয়নের ফরিদপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত সেরিনা বেগমের ছেলের নাম বানী ইসরাইল (৩৫)। তিনি মানসিক ভারসাম্যহীন বলে জানিয়েছে পুলিশ।

তার চাচাতো ভাই আল-মামুনের বরাত দিয়ে রাজশাহীর গোদাগাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হিপজুর আলম মুন্সি এ তথ্য বাংলানিউজকে জানান।

ওসি হিপজুর আলম মুন্সি বলেন, রাতে বাড়িতে বানী ইসরাইল ও তার বাবা-মা ছাড়া অন্য কেউ ছিল না। হঠাৎ মা-বাবাকে বাঁশের মোটা লাঠি দিয়ে পেটাতে থাকেন বানী। এতে মাথায় আঘাত পেয়ে ঘটনাস্থলেই মারা যান তার মা সেরিনা বেগম।

এ সময় তার বাবা মুক্তিযোদ্ধা হাবিবুর রহমানও আহত হন। পরে তার চিৎকারে গ্রামের লোকজন গিয়ে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেন।

আল-মামুন পুলিশকে জানিয়েছেন, পাঁচ মাস আগে বানী ইসরাইল বিয়ে করেন। কিন্তু মাঝে মধ্যে তার মানসিক ভারসাম্য হারিয়ে যায়। ঘটনার কিছুদিন আগে বানী তার বোনদের ঘরের ভেতর আটকিয়ে আগুন ধরিয়ে দিয়েছিলেন।

ওসি হিপজুর আলম মুন্সি বলেন, খবর পেয়ে তিনি ঘটনাস্থলে গেছেন। ধারণা করা হচ্ছে, মানসিক ভারসাম্যহীনতার কারণে তিনি এমন কাণ্ড ঘটিয়েছেন। তবে বিষয়টি তদন্ত করা হচ্ছে।

নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানোর ব্যবস্থা করা হচ্ছে। এছাড়া অভিযুক্ত ছেলে বানীকেও আটক করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে থানায় হত্যা মামলা হবে বলেও জানান ওই পুলিশ কর্মকর্তা।

বাংলাদেশ সময়: ২১৫৭ ঘণ্টা, মে ০৪, ২০১৭
এসএস/এএটি/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa