ঢাকা, বুধবার, ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৮ মে ২০২২, ১৬ শাওয়াল ১৪৪৩

জাতীয়

হঠাৎ ভিজে যাচ্ছে ঘরের মেঝে, জমছে পানিও! 

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২২৫৭ ঘণ্টা, এপ্রিল ৭, ২০১৭
হঠাৎ ভিজে যাচ্ছে ঘরের মেঝে, জমছে পানিও!  হঠাৎ ভিজে যাচ্ছে ঘরের মেঝ- ছবি- অনিক খান

ময়মনসিংহ: হঠাৎ করেই ঘরের মেঝে ভিজে উঠছে। মেঝেতে জমছে বিন্দু বিন্দু পানি। দেখে মনে হবে যেন এই মাত্র পানি ফেলা হয়েছে ঘরের মেঝে পরিস্কারের উদ্দেশ্যে।

কিন্তু বিষয়টি মোটেও এমন নয়। মূলত ভ্যাপসা গরমে স্যাঁতস্যাঁতে এমন অবস্থা হয়েছে ময়মনসিংহের বিভিন্ন বাসা-বাড়ির ঘরের মেঝের।

 

এ নিয়ে উৎকণ্ঠা চলছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে। কেউ বলছেন, এ অবস্থা বড় ধরনের ভূমিকম্পের পূর্বাভাস। আবার কারো কারো ভাষ্য, জলবায়ু পরিবর্তনের ভয়ঙ্কর রূপ।  

চৈত্রে আকাশে কালো মেঘের ঘনঘটা আর দিনভর বৃষ্টির পর শুরু হয়েছে তীব্র তাপদাহ। অসহ্য গরমে সড়ক, মাঠ বা প্রান্তর যেমন খাঁ খাঁ করছে তেমনি ঘরের মেঝের ভিজে ওঠা, পানি জমা আবহাওয়া পরিবর্তনের বিরূপ প্রভাবের লক্ষণ।  

জানা যায়, শুক্রবার (০৭ এপ্রিল) থেকে ময়মনসিংহে তীব্র তাপদাহ শুরু হয়েছে। এতে ঘরে-বাইরে চলছে চরম অস্বস্তিকর পরিবেশ।  

তপ্ত আগুনের হল্কায় মাথার তালু যেমনি গরম হচ্ছে ঠিক তেমনি ঘরের মেঝেও ভিজে স্যাঁতস্যাঁতে হয়ে পড়ছে।  

ময়মনসিংহ নগরীর সানকিপাড়া শেষ মোড় এলাকার এক গৃহিণী জানান, ভ্যাপসা গরমে ঘরে-বাইরে কান্ত-কাতর হয়ে পড়ছেন মানুষজন। সামান্য কাজ করেই মানুষজন হাঁপিয়ে উঠছেন।  

পাশাপাশি ঘরের মেঝে ভিজে চুপচুপ অবস্থা। এতে বড় রকমের ভূমিকম্পের আশঙ্কায় চরম আতঙ্ক তৈরি হয়েছে স্থানীয় বাসিন্দাদের মাঝে।  

ঘরের মেঝে ভিজে যাওয়ায় উৎকন্ঠা প্রকাশ করে ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন কবি মোস্তফা তারেক। লিখেছেন-আমাদের শহরের বিল্ডিংগুলোর ফ্লোর ঘামছে, অনেক পানি জমছে, কেন এমন হচ্ছে? পরামর্শ চাই..।  

এ স্ট্যাটাসে সামিউল হক নামে একজন মন্তব্য করেছেন- বড় প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের আভাস মনে হচ্ছে। আরেকজন বলেছেন-মনে হচ্ছে ভূমিকম্প হতে পারে।  

চৈত্র মাসে এরকম ভারী বৃষ্টি কখনো হয়নি। আসলে বৈশ্বিক জলবায়ুর কারণে সব কিছুই পাল্টে যাচ্ছে।

বাংলাদেশ সময়: ০৪৫৭ ঘণ্টা, এপ্রিল ০৮, ২০১৭ 
এমএএএম/জেডএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa