bangla news

ঢাকা ঘোষণার মধ্যদিয়ে শেষ হলো আইপিইউ সম্মেলন

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৭-০৪-০৫ ৮:৩১:০৭ এএম
ঢাকা ঘোষণার মধ্যদি‌য়ে শেষ হ‌লো আই‌পিইউ সম্মেলন-ছবি: দীপু মালাকার

ঢাকা ঘোষণার মধ্যদি‌য়ে শেষ হ‌লো আই‌পিইউ সম্মেলন-ছবি: দীপু মালাকার

ঢাকা: বিশ্বব্যাপী অর্থনৈতিক বৈষম্য দূরীকরণ, কোনো দেশের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে হস্তক্ষেপ না করাসহ কয়েকটি প্রস্তাবনা গ্রহণ করে ঢাকা ঘোষণার মধ্যদিয়ে শেষ হলো পাঁচদিনব্যাপী ইন্টার পার্লামেন্টারি ইউনিয়নের (আইপিইউ) সম্মেলন। একই সঙ্গে অনগ্রসর জাতিগোষ্ঠীকে মূল ধারায় নিয়ে আসার লক্ষ্য নির্ধারণ করা হয়।

বুধবার (৫ এ‌প্রিল) বিকেলে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রের হল অব ফেমে সম্মেলন পরবর্তী সংবাদ সম্মেলনে এ ঘোষণা দেন আইপিইউ প্রে‌সি‌ডেন্ট সাবের হোসেন চৌধুরী।

১৩৬তম সম্মেলনে সভাপতি সিপিএ চেয়ারপারসন ও স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী, আইপিইউ মহাসচিব মার্টিন চুংগং, ডেপুটি স্পিকার মো. ফজলে রাব্বী মিয়া, প্রধান হুইপ আ স ম ফিরোজ, আইপিইউ মিডিয়া রিলেশন অফিসার জিন মিলিগান  উপস্থিত ছিলেন।

সম্মেলনের শেষ দিনে আটটি এজেন্ডা নিয়ে আলোচনা চলে। শান্তি ও আন্তর্জাতিক নিরাপত্তা সংক্রান্ত স্থায়ী কমিটির সভাপতি একটি প্রস্তাব উত্থাপন করেন। স্বাধীন দেশের ওপর বহিরাগতদের হস্তক্ষেপ বন্ধ নিয়ে প্রস্তাবনার পক্ষে কমিটির বক্তব্য তুলে ধরেন।

আইপিইউ প্রেসিডেন্ট বলেন, আইপিইউ’র স্থায়ী সদস্যের আন্তর্জাতিক সুরক্ষা নিশ্চিত করতে ক্ষমতার সুষম বণ্টন করতে হবে। স্বাধীন দেশের ওপর অন্যদের হস্তক্ষেপ বন্ধে জাতীয় পর্যায়ে সুনির্দিষ্ট কার্যক্রম নিতে হবে। ইতোমধ্যে এ ধরনের সমস্যা সমাধানে  প্রস্তাব গ্রহণের সিদ্ধান্ত হয়েছে।

এ প্রস্তাবেব বিরোধিতা করেন পর্তুগালের প্রতিনিধিরা।

সম্মেলনে পর্তুগালসহ ১২টি দেশের অবস্থান তুলে ধরে তিনি বলেন, আমরা অনেক ক্ষেত্রে এ ধরনের প্রস্তাব (স্বাধীন দেশের ওপর বহিরাগতদের হস্তক্ষেপ) গ্রহণ করতে পারছি না। মানবাধিকার একটি আন্তর্জাতিক বিষয়। মানবাধিকার  লঙ্ঘিত হলে একটি দেশের অভ্যন্তরীণ বিষয় নিয়ে অন্য দেশের হস্তক্ষেপ করা উচিত। তা না হলে ক্ষুণ্ন হবে আন্তর্জাতিক সার্বভৌমত্ব।

সম্মেলনে একজন প্রতিনিধি জানান, বেলজিয়াম, পর্তুগাল, কানাডা, ফিনল্যান্ড, জার্মানি, লাটভিয়া, সুইজারল্যান্ড, ইউক্রেন, যুক্তরাজ্য, আয়ারল্যান্ডসহ ১২টি দেশ একত্রিত হয়ে প্রস্তাবটি বিরোধিতা করছে।

সফলভাবে সম্মেলন শেষ করতে পারা বড় অর্জন করে উল্লেখ করে আইপিইউ প্রেসিডেন্ট বলেন, আজ আমি বাংলাদেশের নাগরিক হতে পেরে গর্ববোধ করছি। দেশের ইতিহাসে বড়চেয়ে বড় সম্মেলনটি চমৎকারভাবে করতে পেরেছি আমরা। একটি জাতি হিসেবে এটা আমাদের অনুপ্রেরণা।

তিনি বলেন, এ সম্মেলনে অনেক ধারণা পাল্টে দিয়েছি আমরা। ঢাকা থেকে আইপিইউ ইতিহাসের প্রথম আইপিইউটিভি’র যাত্রা শুরু হয়েছে। এটাকে সবুজ সম্মেলন ঘোষণা করা হয়েছে। এ সম্মেলনের গৃহীত প্রস্তাব বাস্তবায়ন করে উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে গ্রিন অ্যাসেম্বলি।

সাবের হোসেন বলেন, আমরা যেটা বলি সেটা করি। নিরাপত্তার বিষয়কে আমরা সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়েছি। আগামীতে যেখানে সম্মেলন হবে সেখানে কী করবো আমরা? যে শক্তি আমাদের দুর্বল করতে চায় তাদের বিরুদ্ধে দাঁড়াবো আমরা। কোনোভাবেই অপশক্তিকে দাঁড়াতে দেবো না।

তিনি বলেন, সারা বিশ্বেই সন্ত্রাসী, জঙ্গিবাদের হুমকি রয়েছে। তাহলে কী এ ধরনের আয়োজন বন্ধ থাকবে? না আমার সংসদ সদস্যরা এই জঙ্গিবাদকে প্রশ্রয় দিতে পারি না। আমরা সব মোকাবেলা করেই এগিয়ে যেতে চাই।

স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেন, এই সম্মেলন প্রমাণ করে বিশ্বের গণতন্ত্রিক নেতৃত্ব বাংলাদেশের গণতন্ত্রের ওপর পূর্ণ আস্থা রেখেছে। আমাদের দশম জাতীয় সংদের প্রতিনিধিরা এই সম্মেলনে নেতৃত্ব দিয়েছে। তাই আমি মনে করি সবসমালোচনার জবাব দিয়েছে এ সম্মেলন।

আইপিইউ মহাসচিব মার্টিন চুংগং বলেন, বাংলাদেশে সম্মেলনে আসার আগে আমাকে অনেকেই প্রশ্ন করেছিলো কেন সেখানে যাচ্ছি। আমি বলেছিলাম আমরা সন্ত্রাসীদের ভয়ে বসে থাকতে পারি না। আমরা সংসদ সদস্যরা সব সন্ত্রাসী হামলা মোকাবেলা করেই এগিয়ে যেতে চাই। তাছাড়া বাংলাদেশের নিরাপত্তা আমাদের এ সম্মেলন সফল করতে সহায়তা করেছে।

তিনি বলেন, আমার সৌভাগ্য ঢাকার এ সম্মেলনে আসতে পেরে। বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, রাষ্ট্রপতি মো. আব্দুল হামিদ, জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীসহ সবাই আমাদের সহযোগিতা করেছেন।

মার্টিন চুংগং পুনরায় ৪ বছরের জন্য আইপিআই মহাসচিব নির্বাচিত হয়েছেন।
সম্মেলন শুরু আগে আইপিইউ প্রেসিডেন্ট ঘোষণা দিয়েছিলেন ঢাকার ১৩৬তম আইপিইউ সম্মেলনকে সবুজ সম্মেলন করা হবে।

ঢাকা ঘোষণায় ছয়টি এজেন্ডা তুলে ধরা হয়। এগুলো হচ্ছে বিশ্বব্যাপী আইনি কাঠামো শক্তিশালীকরণ, সংসদকে আরও বেশি কার্যকর করা, সবার জন্য অর্থনৈতিক কাজ করা, সামাজিক ও মানবিক সংলাপ বাড়ানো, আন্তর্জাতিক সহযোগিতা ও নারীর অর্থনৈতিক ক্ষমতায়ন বৃদ্ধি এবং নারীকে মূল ধারায় যুক্ত করা।

আসছে অক্টোবরে আইপিইউ’র ১৩৭তম সম্মেলন হবে রাশিয়ার সেন্ট পিটার্সবার্হে। সে সিদ্ধান্তও হয় এদিন।

বাংলাদেশ সময়: ১৮৩০ ঘণ্টা, এ‌প্রিল ০৫, ২০১৭/আপডেট: ২০৫৯
এসএম/এএটি/এএ

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2017-04-05 08:31:07