bangla news

‘এটা জানার পর আমার কান্না এসে গেছে।’

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১০-০৭-৩১ ৭:০৪:১৩ পিএম

‘একজন বিচারপতির হিসাব নম্বরে ৮০ লাখ টাকা আছে। এটা জানার পর আমার কান্না এসে গেছে।’ রোববার একটি রিটের শুনানিতে রাষ্ট্রপক্ষে আদালতে দাঁড়িয়ে এই কথা ক’টি বলেন অতিরিক্ত অ্যাটর্নি জেনারেল এম কে রহমান।

ঢাকা: ‘একজন বিচারপতির হিসাব নম্বরে ৮০ লাখ টাকা আছে। এটা জানার পর আমার কান্না এসে গেছে।’ রোববার একটি রিটের শুনানিতে রাষ্ট্রপক্ষে আদালতে দাঁড়িয়ে এই কথা ক’টি বলেন অতিরিক্ত অ্যাটর্নি জেনারেল এম কে রহমান।

সম্পদের হিসাব চেয়ে গত ১৮ জুলাই দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) সাবেক বিচারপতি জয়নুল আবেদীনকে একটি নোটিশ দেয়। নোটিশের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে গত ২৫ জুলাই তিনি এই রিট দায়ের করেন।  অবশ্য রিটটি আদালতে উত্থাপিত হয়নি মর্মে খারিজ করে দিয়েছেন হাইকোর্ট।

বিচারপতি আবদুল ওয়াহ্‌হাব মিঞা ও বিচারপতি কাজী রেজা-উল হকের বেঞ্চ রিট খারিজের এ আদেশ দেন।

শুনানিতে জয়নুল আবেদীনের আইনজীবী ছিলেন আহসানুল করিম। রাষ্ট্রপক্ষে অতিরিক্ত অ্যাটর্নি জেনারেল এম কে রহমান।

শুনানির সময় আহসানুল করিম বলেন, ‘দুদক জয়নুল আবেদীনকে নোটিশ দেওয়ার আগে কোনো ধরনের তদন্ত বা অনুসন্ধান করেনি। এজন্য এ নোটিশ অবৈধ।’

জবাবে এম কে রহমান বলেন, ‘একজন বিচারপতির হিসাব নম্বরে ৮০ লাখ টাকা আছে। এটা জানার পর আমার কান্না এসে গেছে।’

হাইকোর্ট এ সময় তাকে আবেগপ্রবণ হতে নিষেধ করেন।

এম কে রহমান আরও বলেন, শেখ হাসিনাকে দুদকের নোটিশ দেওয়ার ক্ষেত্রেও আপিল বিভাগ ‘নোটিশ দেওয়ার প্রক্রিয়া সঠিক’ বলে মন্তব্য করেছিলেন। ওই একই প্রক্রিয়ায় জয়নুল আবেদীনকে নোটিশ দেওয়া হয়েছে।

শুনানি শেষে আদালতে রিটটি উত্থাপিত হয়নি মর্মে খারিজ করা হয়।

বাংলাদেশ সময়: ১৬০৩ ঘণ্টা, আগস্ট ০১, ২০১০

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
db 2010-07-31 19:04:13