bangla news

সহকারী জজ নিয়োগ পরীক্ষায় ‘নতুন শর্ত’ বাতিলের দাবি

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১১-০৪-১৬ ৬:৫৬:৪৪ এএম

সহকারী জজ নিয়োগ পরীক্ষায় আবেদন করার ক্ষেত্রে নতুন যেসব শর্ত যোগ করার চেষ্টা চলছে তা বাতিলের দাবি জানিয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের শিক্ষার্থীরা।

ঢাকা: সহকারী জজ নিয়োগ পরীক্ষায় আবেদন করার ক্ষেত্রে নতুন যেসব শর্ত যোগ করার চেষ্টা চলছে তা বাতিলের দাবি জানিয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের শিক্ষার্থীরা।

শনিবার দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের মধুর ক্যান্টিনে ‘আইন বিভাগের সাধারণ শিক্ষার্থী’’ ব্যানারে  এক সংবাদ সম্মেলনে তারা এ দাবি জানান।

শিক্ষার্থীরা বলেন, গত ২ এপ্রিল প্রধান বিচারপতি এবিএম খায়রুল হক এক কর্মশালায় নতুন ২৫০ জন সহকারী জজ নিয়োগ পরীক্ষার জন্য বিজ্ঞপ্তি দেওয়া হবে বলে জানান। এর সঙ্গে তিনি আরও জানান, সহকারী জজ হতে হলে এখন আইন ডিগ্রির পাশাপাশি বার কাউন্সিলের সনদও থাকতে হবে।

নতুন এ শর্তটি আইন বিভাগের শিক্ষার্থীদের মাঝে ব্যাপক ক্ষোভের সৃষ্টি করে।

এছাড়া সহকারী জজ নিয়োগ পরীক্ষায় আবেদনকারীর বয়সসীমা ৩২ করা হচ্ছে। বার কাউন্সিলের পরীক্ষায় পাসসহ আরও কয়েকটি শর্তও থাকছে।

এসবই প্রক্রিয়াধীন, রাষ্ট্রপতির অনুমোদনের অপেক্ষায় রয়েছে। তবে এসব নিয়ম যদি হয়েই যায় তাহলে কাউকে জজ হতে হলে এখন আর আইন বিষয়ের ওপর স্নাতক (সম্মান) ডিগ্রি থাকাই যথেষ্ট নয়, তাকে উকিলও হতে হবে।

সম্মেলনে আইন বিভাগের ক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা বলেন, সহকারী জজ নিয়োগ পরীক্ষা হচ্ছে বাংলাদেশ জুডিশিয়াল সার্ভিস কমিশন কর্তৃক নিয়োগকৃত ‘প্রবেশ পদ’র পরীক্ষা। বাংলাদেশের অন্যান্য সরকারি চাকরির প্রবেশ পদের পরীক্ষায় পূর্ব অভিজ্ঞতা বা অতিরিক্ত শর্তারোপ করা নেই। তাই জুডিশিয়াল সার্ভিস কমিশনের অধীনে নতুন এ অতিরিক্ত শর্তারোপের যৌক্তিকতা থাকে না।
অন্যদিকে, বার কাউন্সিলের পরীক্ষা দীর্ঘমেয়াদি। এছাড়া এ পরীক্ষায় নানা অনিয়মেরও অভিযোগ রয়েছে। এর আগে পরীক্ষা মূল্যায়নপত্র জালিয়াতির মাধ্যমে ফেল করিয়ে দেওয়ার নজির রয়েছে বলে জানান শিক্ষার্থীরা।

তারা বলেন, এসব কারণে অনেক মেধাবী শিক্ষার্থীরা এ পরীক্ষায় অংশ নিতে চাইবে না। ফলে পর্যাপ্ত পরিমাণ যোগ্য আবেদনকারী পাওয়া যাবে না।

বার কাউন্সিলের পরীক্ষায় অনেক সময় রাজনৈতিক পরিচয় স্পষ্ট হয়ে ওঠে। ফলে সহকারী জজ নিয়োগের ক্ষেত্রে রাজনৈতিক পক্ষপাতিত্ব ও দুর্নীতি বেড়ে যেতে পারে বলে আশঙ্কা করেন তারা।

সংবাদ সম্মেলনে সহকারী জজ নিয়োগ প্রক্রিয়াধীন নতুন শর্ত বাতিল করে বিচার বিভাগে মেধাবীদের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে আগের নিয়ম বহাল রাখার দাবি জানান তারা।

আইন বিভাগের বিভিন্ন বর্ষের শিক্ষার্থীরা এ সময় উপস্থিত ছিলেন। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন বিভাগের ছাত্র আকতারুজ্জামান আজিজ।

এর আগে একই দাবিতে গত ৯ এপ্রিল বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের সাধারণ শিক্ষার্থীরা অপরাজেয় বাংলার পাদদেশে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৬৪৪ ঘণ্টা, এপ্রিল ১৬, ২০১১

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2011-04-16 06:56:44