bangla news
বাণিজ্যমেলার চতুর্থ দিন:

নির্মাণ শেষ হয়নি অনেক প্যাভেলিয়নের

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১১-০১-০৪ ৯:১৭:৪৮ এএম
ছবি: সালাম ফারুক/ বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ছবি: সালাম ফারুক/ বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

প্যাভেলিয়নসহ বেশ কিছু স্টলের প্রস্তুতি শেষ না হওয়ায় এখনও পূর্ণাঙ্গ রূপ পায়নি ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্যমেলা। মেলার চতুর্থ দিনে এসেও স্টলের অবকাঠামো নির্মাণ ও সাজসজ্জা নিয়ে ব্যস্ত রয়েছে অনেক প্রতিষ্ঠান।

ঢাকা: প্যাভেলিয়নসহ বেশ কিছু স্টলের প্রস্তুতি শেষ না হওয়ায় এখনও পূর্ণাঙ্গ রূপ পায়নি ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্যমেলা। মেলার চতুর্থ দিনে এসেও স্টলের অবকাঠামো নির্মাণ ও সাজসজ্জা নিয়ে ব্যস্ত রয়েছে অনেক প্রতিষ্ঠান।

মঙ্গলবার দুপুরে মেলা ঘুরে দেখা যায়, প্যাভেলিয়ন, মিনি প্যাভেলিয়ন ও স্টল মিলিয়ে অন্তত ২৫টি প্রতিষ্ঠান দর্শনার্থীদের জন্য উন্মুক্ত করার বাকি রয়েছে। এর মধ্যে কয়েকটির নির্মাণ ও সাজসজ্জার কাজ মাত্র শুরু হয়েছে।

আর এ কারণে মেলার সৌন্দর্য্য পুরোপুরি ফুটে উঠেনি বলেই জানালেন অনেক দর্শনার্থী ও ক্রেতা।

বাংলাদেশ রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরোর আয়োজনে গত ১ জানুয়ারি শুরু হওয়া মেলায় প্রথম দিন দুপুরের পর দর্শনার্থী ও ক্রেতার ভিড় লক্ষ করা গেলেও পরের তিনদিন তেমনটি দেখা যায়নি। মেলা শতভাগ রূপ নেয়নি বলেই লোক সমাগম কম বলে মনে করছেন মেলাসংশ্লিষ্ট অনেকে।

ইন্টারনেট সেবা সম্পর্কিত একটি প্রতিষ্ঠানের মিনি প্যাভেলিয়ন তৈরির কাজ মঙ্গলবার দুপুরে ছিল খুঁটি গাড়ার পর্যায়ে। অথচ এটি মেলার দুই নম্বর মিনি প্যাভেলিয়ন।

এদিকে দুই নম্বর গেটের পাশে এক নম্বর প্যাভেলিয়নের সাজসজ্জার কাজ শেষ করতে পারেনি মীর ব্রাদার্স। চার নম্বর প্যাভেলিয়ন নেওয়া ভারতীয় প্রতিষ্ঠান ইনডিয়া ইনডোক্র্যাফট ইমপেক্স ইনকর্পোরেশন প্যাভেলিয়নের নির্মাণকাজ শেষ করলেও অভ্যন্তরীণ সাজসজ্জা বাকি থাকায় পণ্য ওঠাতে পারেনি।

পাকিস্তানি প্যাভেলিয়নের (১৯ নম্বর) নির্মাণ কাজ শেষ হয়নি। এর অভ্যন্তরীণ ১৪টি স্টলের মধ্যে ছয়টিতে অসম্পূর্ণ অবস্থায়ই পণ্য ওঠানো হয়েছে। পাকিস্তানি আরেকটি প্যাভেলিয়নের (বিশেষ প্যাভেলিয়ন-৫) কিছু অংশের সাজানোর কাজ চলছে দেখা যায়। চলছিল ইরানি প্রতিষ্ঠানের নেওয়া ৩৩ নম্বর প্যাভেলিয়নের একাংশের নির্মাণকাজও।

কাসিক কর্নার করা হয়েছে ৩৫ নম্বর প্যাভেলিয়নকে। দোতলা এ প্যাভেলিয়নের বাহ্যিক নির্মাণ ও সাজসজ্জা শেষ হলেও ভেতরে ঢুকে হতাশ হচ্ছেন দর্শনার্থী-ক্রেতারা। কারণ এর ভেতরের অনেকটাই ফাঁকা।

একটি স্টলে ডিলাক্স মটরসের ব্যানার ছাড়া অন্য কিছু ছিল না। পেপসির পোস্টার ও ব্যানারসহ বড় করে ‘সমাহার’ লেখা সাইনবোর্ডেই আটকে রয়েছে ৮৭ নম্বর স্টল। সিফরাহ ট্রেডিং এজেন্সি নামের একটি প্রতিষ্ঠানের স্টল ছিল তালাবদ্ধ। চশমার দোকান নিজাম ট্রেড ইমপ্যাক্টে পণ্য ওঠানো হলেও চলছিল সাজসজ্জার কাজ। দুবাই মেলা ও জান্নাতুল কালেকশনেরও ছিল একই অবস্থা।

এগুলোর বাইরে ৪৮, ৪৯, ৬১, ৬৪, ৬৯, ৭০,৭১, ৮৩ ও ৮৫ নম্বর স্টলসহ কয়েকটিতে নির্মাণ কাজ মঙ্গলবার পর্যন্ত চলছিল।

এ প্রসঙ্গে কথা বলতে বিকেল ৩টায় ইপিবি’র মেলা সচিবলায়ে গেলে প্রায় সব কক্ষই বন্ধ পাওয়া যায়।

বাংলাদেশ সময়: ২০১০ ঘণ্টা, ০৪ জানুয়ারি, ২০১০

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2011-01-04 09:17:48