bangla news

গাজীপুরে নিটিং কারখানায় ডাকাতি, ৫ কোটি টাকার মালপত্র লুট: আহত-৪

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১০-১২-৩১ ২:২০:৫০ এএম

গাজীপুরের শ্রীপুরের কেএসএস নিট কম্পোজিট নামের পোশাক কারখানায় বৃহসপতিবার গভীর রাতে ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। ডাকাতরা নিরাপত্তা কর্মীদের হাত-পা  বেঁধে ও হামলা চালিয়ে নগদ ৫লাখ টাকা, ৭৫-১০০টন ইয়ার্ণ, ৩০-৪০টন ফেব্রিকস, ৩০হাজার নিডলসহ প্রায় ৫কোটি টাকার মালপত্র লুট করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

গাজীপুর: গাজীপুরের শ্রীপুরের কেএসএস নিট কম্পোজিট নামের পোশাক কারখানায় বৃহসপতিবার গভীর রাতে ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। ডাকাতরা নিরাপত্তা কর্মীদের হাত-পা  বেঁধে ও হামলা চালিয়ে নগদ ৫লাখ টাকা, ৭৫-১০০টন ইয়ার্ণ, ৩০-৪০টন ফেব্রিকস, ৩০হাজার নিডলসহ প্রায় ৫কোটি টাকার মালপত্র লুট করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

এসময় ডাকাতদের ধারালো অস্ত্রের আঘাতে প্রশাসনিক কর্মকর্তা মো. আবুল হোসেনসহ (৪৫) ৪জন জখম হন। তাদের ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে বলে কারখানা কর্তপ জানিয়েছে।  

গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার বহেরারচালা কড়ইতলী এলাকার কেএসএস নিট কম্পোজিট কারখানার চেয়ারম্যান মো. হেমায়েত করিম জানান, বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত ৩টার দিকে কারখানার সীমানা প্রাচীর টপকে ৩০-৩৫জন সশস্ত্র ডাকাত কারখানা চত্বরে ঢুকে নিরাপত্তাকর্মীদের ওপর হামলা করে এবং তাদের হাত-পা বেঁধে রাখে। তাদের হামলায় প্রশাসনিক কর্মকর্তা আবুল হোসেনসহ সুপারভাইজার নুরুল ইসলাম (৪০), নিরাপত্তাকর্মী আব্বাস আলী (৪০) ও আছিম উদ্দিন জখম হন।

ডাকাতরা কারখানার ভেতরে ঢুকে বেশ কয়েকজন শ্রমিককে হাত-পা বেঁধে অস্ত্রের মুখে ওই টাকা-মালপত্র লুট করে নেয় এবং তাদের নিয়ে আসা ২টি কাভার্ডভ্যানে মালপত্র তুলে নিয়ে দ্রুত এলাকা ত্যাগ করে।

তবে শ্রীপুর থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) নাজমূল হক ভূইয়া জানান, গত ঈদের ১০-১৫দিন আগে কারখানার কর্মকর্তা ক্যাপ্টেন (অব.) ইউনুস আলীসহ বেশ কিছু স্টাফদের অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ এনে কর্র্তৃপ  চাকরিচ্যুত করেন। তার রেশ ধরেই এ ঘটনা ঘটে থাকতে পারে।

তবে ঘটনাটা অতিরঞ্জিত বলেও ধারণা করছেন তিনি। তদন্তে পুরো ঘটনা বের হয়ে আসবে। শুক্রবার সকালে তিনি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

দুপুর সাড়ে ১২টা পর্যন্ত ওই ঘটনায় কোন লিখিত অভিযোগ হাতে পান নি বলেও তিনি জানিয়েছেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৩২০ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৩১, ২০১০


স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2010-12-31 02:20:50