bangla news

‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহতের লাশ ৮দিন পর বেওয়ারিশ হিসেবে দাফন

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১০-১১-৩০ ৭:১৬:৪১ এএম

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় র‌্যাব-৪ এর সঙ্গে ‘গুলি বিনিময়ের’ ঘটনায় নিহত ব্যক্তির পরিচয় না পাওয়ায় অবশেষে তার মৃতদেহ ‘বেওয়ারিশ’ হিসেবেই দাফন করা হয়েছে।

ঢাকা: জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় র‌্যাব-৪ এর সঙ্গে ‘গুলি বিনিময়ের’ ঘটনায় নিহত ব্যক্তির পরিচয় না পাওয়ায় অবশেষে তার মৃতদেহ ‘বেওয়ারিশ’ হিসেবেই দাফন করা হয়েছে।

গুলিতে নিহত হওয়ার ৮ দিন পর মঙ্গলবার সকালে আঞ্জুমানে মফিদুল ইসলামের কাছে লাশটি হস্তান্তর করা হয়। পরে একই দিন দুপুরে ওই সংস্থা তাদের গেন্ডারিয়াস্থ কবরস্থানে নিয়ে লাশটি দাফন করে।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের মর্গ সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

র‌্যাব-৪ সূত্র জানায়, গত ২৩ নভেম্বর সাভারে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মচারী কোয়ার্টারের পাশে খেলার মাঠের জামতলায় সন্ত্রাসী গ্রুপের সঙ্গে র‌্যাব সদস্যদের কথিত বন্দুকযুদ্ধ হয়। এতে ঘটনাস্থলেই গুলিবিদ্ধ হয়ে অজ্ঞাতপরিচয় এক ব্যক্তি (আনুমানিক বয়স ৩২ বছর) নিহত হন। সাভার থানা পুলিশ মৃতদেহটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য ঢামেক হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।

এদিকে গত ৮ দিনেও নিহত ব্যক্তির পরিচয় পাওয়া যায়নি, লাশের জন্য মর্গেও আসেনি কেউ।

অবশেষে র‌্যাব-৪ মঙ্গলবার কাল সাড়ে ১০ টায় মৃতদেহটি বেওয়ারিশ লাশ হিসেবে আঞ্জুমানে মফিদুল ইসলামের কর্মকর্তাদের হাতে বুঝিয়ে দেয়। পরে দুপুরে জোহর নামাজ শেষে আঞ্জুমান মফিদুলের গেন্ডারিয়াস্থ নিজস্ব কবরস্থানে নিয়ে লাশটি দাফন করা হয়েছে।

বাংলাদেশ সময় : ১৮০৪ ঘণ্টা, নভেম্বর ৩০, ২০১০

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
db 2010-11-30 07:16:41