bangla news

আখাউড়া স্থলবন্দরে আমদানি-রফতানি দ্বিতীয় দিনের মতো বন্ধ

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১০-১১-০৫ ১:১৭:০৫ এএম

আখাউড়া স্থলবন্দরে আমদানি-রফতানি শুক্রবার ২য় দিনের মতো বন্ধ রয়েছে। বাংলাদেশের পররাষ্টমন্ত্রী ডা. দিপু মনি ত্রিপুরা সফরে যাবেন। তাই, আগরতলা বন্দরের রাস্তার মেরামত কাজ চলছে।

আখাউড়া: আখাউড়া স্থলবন্দরে আমদানি-রফতানি শুক্রবার ২য় দিনের মতো বন্ধ রয়েছে।

বাংলাদেশের পররাষ্টমন্ত্রী ডা. দিপু মনি ত্রিপুরা সফরে যাবেন। তাই, আগরতলা বন্দরের রাস্তার মেরামত কাজ চলছে। এ কারণে আগরতলার আমদানি-রফতানিকারক এসোসিয়েশন গত বৃহস্পতিবার থেকে আগামী বুধবার পর্যন্ত টানা ৭ দিন আমদানি-রফতানি বন্ধ রাখার ঘোষণা দেয়। তবে এতে ুদ্ধ হয়েছেন বাংলাদেশের আমদানি-রফতানিকারকরা।

কারণ হিসেবে তারা বলছেন, গত ১০ মাসে আগরতলার ব্যবসায়ীদের কারণে প্রায় ৪০/৪৫ দিন এ বন্দরে আমদানি-রফতানি বন্ধ ছিল। সরকার প্রায় ৪০ কোটি টাকা সমপরিমাণের বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন থেকে বঞ্চিত হয়েছে।

স্থলবন্দর ব্যবসায়ীরা জানান, আগরতলার ব্যবসায়ীদের ইচ্ছা-অনিচ্ছার ওপর নির্ভর করে আখাউড়া স্থলবন্দরের আমদানি-রফতানি কার্যক্রম। পূর্ব ঘোষণা ছাড়াই আগরতলায় মাঝে-মধ্যে আমদানি-রফতানি বন্ধ রাখেন তারা। এ সময় পণ্য নিয়ে বেকাদায় পড়তে হয় আমাদের। বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর এ বন্দর দিয়ে আগরতলা সফরে যাওয়ার কথা রয়েছে। আর এ কারণে আগরতলার আমদানি-রফতানিকারক এসোসিয়েশন বন্দরের রাস্তার মেরামত করবে। এ ইস্যু দাঁড় করিয়ে আমদানি-রফতানি বন্ধ রেখেছেন তারা। অথচ যে স্থানে সড়ক মেরামত করা হচ্ছে, তার পাশ দিয়ে মাছসহ হালকা পণ্য আগরতলার ব্যবসায়ীরা এমনিতেই নিয়ে যেতে পারেন।  

এদিকে, আগরতলার আমদানি-রফতানিকারক এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক মনিষ বিশ্বাস (হাবুল) জানান, ‘বিদেশ মন্ত্রী বলে কথা! তিনি আমাদের দেশে সফরে আসবেন ভাঙাচোরা রাস্তা দিয়ে! এটা তো হতে পারে না। এ কারণে বন্দরের রাস্তা মেরামতের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।’

অপরদিকে, আখাউড়া স্থলবন্দর আমদানি-রফতানিকারক এসোসিয়েশনের সভাপতি মো. সফিকুল ইসলাম বাংলানিউজকে বলেন, ‘টানা ৭ দিন বন্ধ আমদানি-রফতানি বন্ধ থাকলে আমাদের অনেক তি হয়ে যাবে।’

তিনি বলেন, ‘শুক্রবার আগরতলার ব্যবসায়ীদের সাথে কথা বলবো।’

এবিষয়ে আখাউড়া স্থলবন্দর কাস্টমস কর্মকর্তা (এলসিও) আবুল বাশার চৌধুরী জানান, ‘দুই দেশের যাত্রীরা যাওয়া-আসা করছেন। এ ছাড়া আর কোনো কাজ নেই আমাদের।’

বাংলাদেশ সময়: ১১০০ ঘণ্টা, নভেম্বর ০৫, ২০১০

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2010-11-05 01:17:05