ঢাকা, বুধবার, ১ শ্রাবণ ১৪৩১, ১৭ জুলাই ২০২৪, ১০ মহররম ১৪৪৬

জাতীয়

পাহাড়ে নিয়ে বন্ধুকে কুপিয়ে জখম, ৬ দিন পর মৃত্যু 

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৮১৩ ঘণ্টা, জুন ২১, ২০২৪
পাহাড়ে নিয়ে বন্ধুকে কুপিয়ে জখম, ৬ দিন পর মৃত্যু 

বান্দরবান: বান্দরবানে রাকিবুল ইসলাম (১৪) নামে এক কিশোরকে তার বন্ধু পেয়ারা খাওয়ানোর কথা বলে পাহাড়ে নিয়ে গিয়ে কুপিয়ে জখম করার ছয়দিন পর ওই কিশোরের মৃত্যু হয়েছে।  

বৃহস্পতিবার (২০ জুন) চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাকিবুলের মৃত্যু হয়।

নিহত রাকিবুল ইসলাম বান্দরবান সদর উপজেলার উত্তর গোলিয়াখোলা এলাকার অলি আহম্মদের ছেলে।  

এ ঘটনায় অভিযুক্ত যুবকের নাম মো. রিমন (১৯)। তিনি একই এলাকার আহম্মদ সফার ছেলে।   

স্থানীয় ও পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, গত ১৪ জুন দুপুর ২টার দিকে জুমার নামাজ শেষ করে রাকিবুলকে তার বন্ধু মো. রিমন পেয়ারা খাওয়ানোর কথা বলে পার্শ্ববর্তী পাহাড়ে নিয়ে যান। এর কিছুক্ষণ পর কান ও গলায় দায়ের কোপের জখম ও রক্তাক্ত অবস্থায় পাহাড় থেকে দৌড়ে রাস্তায় এসে জ্ঞান হারিয়ে ফেলে রাকিব। পরে স্থানীয়দের সহায়তায় তাকে প্রথমে চট্টগ্রামের কেরানীহাট হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে পরে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। সেখানে প্রথমে আইসিইউ ও লাইফ সাপোর্টে রাখা হয় তাকে। পরে বৃহস্পতিবার সকাল ১১টার দিকে তার মৃত্যু হয়।

নিহত রকিবুল ইসলামের চাচা সৈয়দ নূর এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এদিকে ঘটনার পর ভিকটিমের পরিবারের পক্ষ থেকে মো. রিমনসহ চারজনকে আসামি করে বান্দরবান সদর থানায় মামলা করলে পুলিশ এক আসাসিকে আটক করে।  

বান্দরবান সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আবদুল জলিল ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এ ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।  

বাংলাদেশ সময়: ০৮১২ ঘণ্টা, জুন ২১, ২০২৪
এসআই

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।