ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ১৩ জুন ২০২৪, ০৫ জিলহজ ১৪৪৫

জাতীয়

ভেজাল শিশুখাদ্য তৈরি, কেরানীগঞ্জে প্রতিষ্ঠান সিলগালা

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১৩৪ ঘণ্টা, মে ১৯, ২০২৪
ভেজাল শিশুখাদ্য তৈরি, কেরানীগঞ্জে প্রতিষ্ঠান সিলগালা

ঢাকা: ঢাকার কেরানীগঞ্জে ভেজাল শিশুখাদ্য তৈরি, প্রক্রিয়াজাত ও বাজারজাত করার অভিযোগে জেনেরিক অ্যাগ্রো নামে একটি প্রতিষ্ঠানকে ১০ লাখ টাকা জরিমানা করেছে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর। পাশাপাশি প্রতিষ্ঠানটি সাময়িকভাবে বন্ধ ঘোষণা করে সিলগালা করা হয়েছে।

রোববার (১৯ মে) জাতীয় গোয়েন্দা সংস্থা এনএসআই-এর গোপন তথ্যের ভিত্তিতে কেরানীগঞ্জ মডেল থানাধীন ব্রাহ্মণকর্তীকা জিয়ানগর মোড়ে অবস্থিত প্রতিষ্ঠানটিতে অভিযান চালানো হয়।

অভিযানে নেতৃত্ব দেন জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক ও ঢাকা জেলা কার্যালয়ের প্রধান আব্দুল জব্বার মন্ডল। এ সময় এনএসআই-এর যুগ্ম পরিচালক মো. ওবায়দুল ইসলাম ও উপ-পরিচালক মো. তাজুল ইসলামসহ অন্যান্য কর্মকর্তা ও কেরানীগঞ্জ মডেল থানা পুলিশের একটি টিম উপস্থিত ছিল।

অভিযানে দেখা যায়, প্রতিষ্ঠানটিতে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে লাইসেন্সবিহীন বেক ম্যান ম্যাংগো ড্রিংকস, বেক ম্যান লিচি ড্রিংক, আহিয়ান লিচি ড্রিংকস, জেনেরিক অরেঞ্জ ড্রিংকস, বেক ম্যান ভায়োলেট ফুড কালার, বেক ম্যান গ্রিন ফুড কালার, বেক ম্যান এগ ইয়েলো ফুড কালার, বেক ম্যান লেমন ইয়েলো ফুড কালার, বেক ম্যান স্ট্রবেরি রেড ফুড কালার, বেক ম্যান স্কাই ব্লু  ফুড কালার, বেক ম্যান রোজ পিংক কালার, বেক ম্যান চিকেন কারি মসলা, বেক ম্যান কালা ভুনা মসলা, বেক ম্যান বেকিং পাউডার, বেক ম্যান চেরি রেড কালার, জেনেরিক ভ্যানিলা ফুড এসেনস, জেনেরিক সয়া সস, বেক ম্যান কেওড়া জল, আইসোলেটেড সয়াপ্রোটিন, সয়া ফ্লাওরসহ ২৫ প্রকারের শিশুখাদ্য উৎপাদন করা হচ্ছে। দীর্ঘদিন ধরে প্রতিষ্ঠানটি এসব ভেজাল খাদ্য উৎপাদনের পাশাপাশি প্রক্রিয়াজাত ও বাজারজাত করে আসছে।

এসব অপরাধে প্রতিষ্ঠানটিকে ১০ লাখ টাকা জরিমানা এবং জনস্বার্থে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত প্রতিষ্ঠানটির সকল প্রকার কার্যক্রম সাময়িকভাবে বন্ধ রাখতে নির্দেশ দেওয়া হয়।

বাংলাদেশ সময়: ২১৩৪ ঘণ্টা, মে ১৯, ২০২৪
এসসি/এমজেএফ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।