ঢাকা, মঙ্গলবার, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২১ মে ২০২৪, ১২ জিলকদ ১৪৪৫

জাতীয়

তালায় ৬০ বছর অবৈধ দখলে থাকা ৩৩ বিঘা খাস জমি উদ্ধার

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০০০ ঘণ্টা, এপ্রিল ২৩, ২০২৪
তালায় ৬০ বছর অবৈধ দখলে থাকা ৩৩ বিঘা খাস জমি উদ্ধার

সাতক্ষীরা: সাতক্ষীরার তালা উপজেলায় ৬০ বছর ধরে অবৈধ দখলে থাকা ৩৩ বিঘা সরকারি জমি উদ্ধার করেছে প্রশাসন।

মঙ্গলবার (২৩ এপ্রিল) বিকেলে তালার সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আরাফাত হোসেনের নেতৃত্বে অভিযান চালিয়ে খুলনা-সাতক্ষীরা মহাসড়ক সংলগ্ন মির্জাপুর নামক স্থানে অবৈধ দখলে থাকা ১১.২৬ একর (প্রায় ৩৪ বিঘা) সরকারি খাস জমি উদ্ধার করা হয়।


 
জানা গেছে, একটি চক্র ৫০-৬০ বছর ধরে ১১ একরের বেশি খাস জমি অবৈধভাবে দখল করে ভোগ করে আসছিল। সম্প্রতি বিষয়টি তালা উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) আরাফাত হোসেনের দৃষ্টিতে এলে তিনি বিষয়টি সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হুমায়ুন কবির এবং উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আফিয়া শারমিনকে জানান। পরে জেলা প্রশাসক হুমায়ুন কবির সহকারী কমিশনারকে (ভূমি) সরকারি খাস জমি উদ্ধারের নির্দেশনা দেন।

সহকারী কমিশনার (ভূমি) আরাফাত হোসেন জানান, ১৯৬০ থেকে ১৯৬২ সালের মধ্যে সরকারের পক্ষ থেকে এ জমি অধিগ্রহণ করা হয়। অধিগ্রহণের পর থেকে অবৈধ দখলদাররা তা দখল করে রেখেছিল। মঙ্গলবার বিকেলে অভিযান চালিয়ে দীর্ঘদিন অবৈধ দখলে থাকা ১১.২৬ একর জমি উদ্ধার করা হয়।

তিনি বলেন, একটি চক্র সরকারি এ জায়গা বহু বছর ধরে অবৈধভাবে দখল করে রেখেছিল। উদ্ধার হওয়া জায়গাটিতে অনুপ্রবেশ ঠেকাতে লাল পতাকা দিয়ে চিহ্নিত করা হয়েছে। এরপরও যদি অবৈধভাবে কেউ এ জায়গায় প্রবেশ বা দখল করার চেষ্টা করে, তাহলে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এসময় তিনি সাংবাদিককের প্রশ্নের জবাবে বলেন, উপজেলার পাটকেলঘাটা বাজারের সরকারি সম্পত্তি চিহ্নিত করা হয়েছে। এছাড়া খেশরা ইউনিয়নে ৬৫ শতাংশ অর্পিত সম্পত্তি চিহ্নিত করার কাজ চলছে। এসব জমিও অবৈধ দখলদারদের হাত থেকে মুক্ত করা হবে।

তালা উপজেলা ভূমি কমিটির নেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা আলাউদ্দীন জোয়ার্দ্দার বলেন, সরকারি জমি উদ্ধারের কাজ প্রশংসার দাবি রাখে।  

বাংলাদেশ সময়: ১৯৫৮ ঘণ্টা, এপ্রিল ২৩, ২০২৪
এসআই

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।