ঢাকা, মঙ্গলবার, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২১ মে ২০২৪, ১২ জিলকদ ১৪৪৫

জাতীয়

দরজা ভেঙে মিলল নারীর ঝুলন্ত মরদেহ, পুলিশ বলছে আত্মহত্যা

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১০ ঘণ্টা, এপ্রিল ১৭, ২০২৪
দরজা ভেঙে মিলল নারীর ঝুলন্ত মরদেহ, পুলিশ বলছে আত্মহত্যা

ঢাকা: রাজধানীর খিলগাঁও গোড়ান এলাকার একটি বাসায় রোকসানা আক্তার কান্তা (৩০) নামে এক গৃহবধূর মরদেহ পেয়েছে পুলিশ। ওই গৃহবধূ গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন বলে পুলিশ জানায়।

 

বুধবার (১৭ এপ্রিল) দুপুর ২টার দিকে খিলগাঁও গোড়ান ৮নম্বর পানির পাম্প সংলগ্ন একটি আটতলা বাসার সাততলা থেকে মরদেহটি পায় খিলগাঁও থানা পুলিশ। পরে ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ মর্গে পাঠায়।  

খিলগাঁও থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আব্দুল্লাহ আল হাসান জানান, দুপুরের দিকে সংবাদ পেয়ে গিয়ে দেখা যায়, কান্তার মরদেহ বিছানায় শায়িত। পরিবার থেকে জানা গেছে, মঙ্গলবার রাত ২টার দিকে স্বামী রাশেদুল ইসলামের সঙ্গে ঝগড়া করে দরজা বন্ধ করে দেন স্ত্রী কান্তা। রাশেদুল দুই সন্তান নিয়ে অন্য রুমে থাকেন।  

সকালে ডাকাডাকির পরও সাড়াশব্দ না পেয়ে দরজা ভেঙে দেখা যায়, কান্তা ফ্যানের সঙ্গে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে ঝুলে আছেন। সঙ্গে সঙ্গে পরিবারের লোকজন মরদেহ নামিয়ে রাখেন। পুলিশ সন্ধ্যার দিকে মরদেহ ঢাকা মেডিকেল কলেজের মর্গে পাঠায়।

কান্তার বড় ভাই সাইফুল ইসলাম তপন জানান, তাদের বাড়ি ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার বাঞ্ছারামপুর থানার ফায়দাবাদ গ্রামে। বাবার নাম বাকারিয়া ইসলাম। তারা মতিঝিল এজিবি কলোনিতে থাকেন। তার বোন ও বোনের স্বামী রাশেদ এবং তাদের দুই ছেলে-মেয়ে খিলগাঁও গোড়ানে থাকতেন।  

তিনি আরও জানান, স্বামী এক সহকর্মীকে বিয়ে করেছেন, এমন সংবাদ পান কান্তা। এ নিয়ে বেশ কয়েকদিন তাদের মধ্যে ঝগড়া চলছিল। গতকাল রাতেও এসব বিষয় নিয়ে ঝগড়া হয় তাদের।

বাংলাদেশ সময়: ২০০০৫ ঘণ্টা, এপ্রিল ১৭, ২০২৪
এজেডএস/আরএইচ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।