ঢাকা, বুধবার, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২২ মে ২০২৪, ১৩ জিলকদ ১৪৪৫

জাতীয়

হোসেনপুরে অষ্টমী স্নানে লাখো পুণ্যার্থীর ঢল

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৪৩৪ ঘণ্টা, এপ্রিল ১৬, ২০২৪
হোসেনপুরে অষ্টমী স্নানে লাখো পুণ্যার্থীর ঢল

কিশোরগঞ্জ: কিশোরগঞ্জের হোসেনপুর উপজেলায় পুরাতন ব্রহ্মপুত্র নদে হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের অন্যতম ধর্মীয় উৎসব অষ্টমী স্নানে লাখো পুণ্যার্থীর ঢল নেমেছে।  

মঙ্গলবার (১৬ এপ্রিল) ভোর থেকে শুরু হয়ে দুপুর ১টা পর্যন্ত অষ্টমী স্নানে অংশ নেয় হিন্দু ধর্মাবলম্বীরা।

 

হোসেনপুর অষ্টমী স্নানোৎসবের আয়োজন করে বাংলাদেশ পূজা উদ্‌যাপন পরিষদ হোসেনপুর উপজেলা শাখা ও পৌর শাখা। এতে সহযোগিতা করে হোসেনপুর থানা পুলিশ।  

কিশোরগঞ্জ জেলা পূজা উদ্‌যাপন পরিষদের সিনিয়র সহ-সভাপতি সাংবাদিক প্রদীপ কুমার সরকার জানান, ধর্মীয় রীতি অনুযায়ী গীতাপাঠ, মাল্যজপ, ধ্যান, প্রসাদ বিতরণ, হরিনাম সংকীর্তনের মধ্যদিয়ে পুণ্যার্থীরা স্নানোৎসব সম্পন্ন করেন। জেলার ১৩টি উপজেলা ছাড়াও পার্শ্ববর্তী ময়মনসিংহ জেলার গফরগাঁও, নান্দাইল, ঈশ্বরগঞ্জ থেকেও পুণ্যার্থীরা অংশ নেন এ উৎসবে।

অষ্টমী স্নান পরিদর্শন করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) অনিন্দ্য মণ্ডল, হোসেনপুর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সুজন চন্দ্র সরকার, উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) নাশিতা-তুল ইসলাম, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. জহিরুল ইসলাম নুরু মিয়া, সাধারণ সম্পাদক এম এ হালিম, জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ও উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার সম্পাদক শাহ্ মাহবুবুল হক, হোসেনপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নাহিদ হাসান সুমন, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মো. তানভীর হাসান জিকো ও স্থানীয় নেতারা।  

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা পূজা উদ্‌যাপন পরিষদের সভাপতি অমল চন্দ্র দেব জগাই, পৌর পূজা উদ্‌যাপন পরিষদের সভাপতি সুবল চন্দ্র বণিক তাপস ও উপজেলা পূজা উদ্‌যাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক সাংবাদিক উজ্জ্বল কুমার সরকার।  

এ উপলক্ষে পুরাতন ব্রহ্মপুত্র নদের তীর, ঐতিহ্যবাহী কুলেশ্বরী বাড়ি, কাচারী মাঠ ও রামপুর বাজারে বসেছে অষ্টমীর মেলা। মেলায় দোকানিরা নানা খেলনা, মিষ্টি জাতীয় খাবার ও বাহারি গ্রামীণ পণ্যের পসরা সাজিয়ে বসেছেন। অষ্টমীর স্নানোৎসব ও মেলাকে কেন্দ্র  উপজেলার সর্বত্রই উৎসবের আমেজ বিরাজ করছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৪৩৪ ঘণ্টা, এপ্রিল ১৬, ২০২৪
এসএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।