ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ৩০ মে ২০২৪, ২১ জিলকদ ১৪৪৫

জাতীয়

ভাষানটেকে গ্যাস বিস্ফোরণে দগ্ধ আরও একজনের মৃত্যু

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২৩৩২ ঘণ্টা, এপ্রিল ১৫, ২০২৪
ভাষানটেকে গ্যাস বিস্ফোরণে দগ্ধ  আরও একজনের মৃত্যু

ঢাকা: রাজধানীর ভাষানটেক কালভার্ট রোডে একটি বাসায় গ্যাস সিলিন্ডার লিকেজ থেকে বিস্ফোরণে একই পরিবারের ৬ জন দগ্ধের ঘটনায় সুর্যবানু (৩০) নামে আরও একজন মারা গেছেন। এ নিয়ে এখন পর্যন্ত দুইজন মারা গেলেন।

সোমবার (১৫ এপ্রিল) সন্ধ্যা সারে ৭টার দিকে শেখ হাসিনা বার্ন এন্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটের এইচডিইউতে মারা যান তিনি ।  

তার মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বার্ন ইনস্টিটিউটের জরুরি বিভাগের আবাসিক চিকিৎসক ডা. তরিকুল ইসলাম।

তিনি জানান, সুর্যবানুর শরীরের ৮২ শতাংশ পুড়ে গিয়েছিল। শনিবার সকাল ৮টার দিকে মারা যান সুর্যবানুর মা মেহেরুন্নেছা (৮০)। বর্তমানে লিটন ৬৭ শতাংশ, তার মেয়ে লিজা ৩০ শতাংশ, লামিয়া ৫৫ শতাংশ ও ছেলে সুজন ৪৩ শতাংশ  দগ্ধ নিয়ে ভর্তি আছে। তাদের সবার অবস্থা আশঙ্কাজনক।

মৃত মেহেরুন্নেছার নাতিন জামাই সাইফুল ইসলাম জানান, তাদের বাড়ি কুমিল্লা জেলার লাকসাম উপজেলার রনুসো গ্রামে। সুর্যবানুর বাবার নাম মৃত আসাদ আলী। স্বামী লিটন ও সন্তানসহ ভাষানটেক এলাকায় ভাড়া থাকতেন। লিটনের বাড়ি ময়মনসিংহ জেলায়।

এরআগে গত ১২ এপ্রিল ভোর ৪টার দিকে ভাষানটেক নতুন বাজার কালভার্ট রোডের ৪/১৩ নম্বর বাসায় এই দুর্ঘটনা ঘটে। এতে একই পরিবারের ৬ জন দগ্ধ হন।

তাদের প্রতিবেশী ভাড়াটিয়া ময়না বেগম জানান, লিটন পরিবার নিয়ে কালভার্ট রোডের ২ তলা বাড়িটির নিচতলায় ভাড়া থাকেন। এলাকাতেই ফার্নিচার ব্যবসা রয়েছে তার। রাতে ওই বাসায় সবাই ঘুমিয়ে ছিলেন। জানতে পেরেছি ভোরে লিটন মশার কয়েল জ্বালানোর জন্য দিয়াশলাই জ্বালাতেই আগুনের ঘটনা ঘটে।  

তিনি জানান, বাসাটিতে গ্যাস সিলিন্ডার দিয়ে রান্না করতেন তারা। সবাই ধারণা করছেন, সিলিন্ডার থেকে লিকেজের কারণে বাসায় গ্যাস জমে ছিল।  

বাংলাদেশ সময়: ২৩৩১ ঘণ্টা, এপ্রিল ১৫, ২০২৪
এজেডএস/এসএএইচ


 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।