ঢাকা, মঙ্গলবার, ৩ বৈশাখ ১৪৩১, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ০৬ শাওয়াল ১৪৪৫

জাতীয়

রুমায় সোনালী ব্যাংকের ভল্টের ১ কোটি ৫৯ লাখ টাকা লুট হয়েছে কি না খতিয়ে দেখা হচ্ছে

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৯৪৫ ঘণ্টা, এপ্রিল ৩, ২০২৪
রুমায় সোনালী ব্যাংকের ভল্টের ১ কোটি ৫৯ লাখ টাকা লুট হয়েছে কি না খতিয়ে দেখা হচ্ছে

বান্দরবান: রুমা উপজেলা মসজিদ ঘেরাও করে মুসল্লিদের মোবাইল ফোন ছিনতাই, আনসার ও পুলিশের অস্ত্র-গুলি লুট এবং সোনালী ব্যাংকের ভল্ট ভেঙে লুটপাট চালানো হয়েছে। সেই সঙ্গে ব্যাংকের ম্যানেজারকে অপহরণ করা হয়েছে বলেও অভিযোগ উঠেছে।

এসময় সোনালী ব্যাংকের রুমা উপজেলা শাখার ভল্টে থাকা এক কোটি ৫৯ লাখ টাকা লুট হয়েছে কি না খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

মঙ্গলবার (০২ এপ্রিল) রাত ৯টার দিকে এ ঘটনা ঘটে বলে নিশ্চিত করেছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. দিদারুল আলম।

বান্দরবানের পুলিশ সুপার সৈকত শাহীন জানান, স্থানীয়দের ধারণা এ ঘটনা নব্য বিচ্ছিন্নতাবাদী সংগঠন কুকি চিন ন্যাশনাল ফ্রন্ট (কেএনএফ) ঘটিয়ে থাকতে পারে।  

এদিকে বুধবার (৩ এপ্রিল) সকালেই ঘটনাস্থলে ছুটে গেছেন চট্টগ্রাম রেঞ্জের অতিরিক্ত ডিআইজি মো.মাহফুজুর রহমান, জেলা প্রশাসক শাহ্ মোজাহিদ উদ্দিন ও পুলিশ সুপার সৈকত শাহীনসহ পুলিশ ও জেলা প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

সিআইডি ঘটনাস্থলে যাচ্ছে, তারা ব্যাংক পরিদর্শন করে জানাবে যে ব্যাংকের ভল্ট ভেঙে টাকা লুট হয়েছে কিনা।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, রাতে কেএনএফের ৭০-৮০ জন সশস্ত্র সদস্য রুমা উপজেলা পরিষদ এলাকা ঘেরাও করে। তারা সোনালী ব্যাংকে গিয়ে পাহারারত পুলিশ ও আনসার সদস্যদের কাছ থেকে অস্ত্র ছিনিয়ে নেয় এবং মারধর করতে থাকে। ব্যাংকে ঢুকে ভাঙচুর ও লুটপাট চালায়।  পুলিশ ও  আনসার সদস্যদের মারধর করে  অস্ত্র  লুট করে তারা।  

বাংলাদেশ সময়: ০৯৪৩ ঘণ্টা, এপ্রিল ৩, ২০২৪
এসআই

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
welcome-ad