ঢাকা, মঙ্গলবার, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ২১ মে ২০১৯
bangla news

খুলনায় দেওয়ানি মামলা ব্যবস্থাপনার সফটওয়্যার চালু

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১০-১০-১৯ ৬:১৫:৫৪ এএম

খুলনায় মঙ্গলবার সকালে ডিজিটাল পদ্ধতির মাধ্যমে দেওয়ানি মামলা ব্যবস্থাপনার সফটওয়্যার উদ্বোধন করা হয়েছে। খুলনা জেলা প্রশাসক মো. জমসের আহাম্মদ খন্দকার তার অফিস কে এ সফটওয়্যারটির আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন।

খুলনা: খুলনায় মঙ্গলবার সকালে ডিজিটাল পদ্ধতির মাধ্যমে দেওয়ানি মামলা ব্যবস্থাপনার সফটওয়্যার উদ্বোধন করা হয়েছে।

খুলনা জেলা প্রশাসক মো. জমসের আহাম্মদ খন্দকার তার অফিস কে এ সফটওয়্যারটির আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন।

উদ্বোধনকালে জেলা প্রশাসক জানান, ‘খুলনা থেকে দেশে প্রথম এ ধরনের সফটওয়্যারের মাধ্যমে দেওয়ানি মামলার ব্যবস্থাপনা কার্যক্রম শুরু হলো।’  

তিনি জানান, ‘গত ৫ আগস্ট ভূমিসচিব খুলনা সফরে এসে সফটওয়্যারটি দেখে সন্তোষ প্রকাশ করেন এবং এটি সারা দেশে চালুর উদ্যোগ নেবেন বলে জানান।  এর ফলে সচিবালয়ে বসে সারা দেশের দেওয়ানি মামলা পর্যবেণ করা যাবে এবং সরকারের ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয়কে আরো একধাপ এগিয়ে নিয়ে যাওয়া যাবে।’

অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) খান মোহাম্মদ রেজাউল করিমের উদ্যোগে সফটওয়্যার নির্মাতা প্রতিষ্ঠান প্রাণন প্রাইভেট লিমিটেডের কারিগরি সহযোগিতায় Digital Civil Suit Management System নামের সফটওয়্যারটি ইতোমধ্যে খুলনা ডিসি অফিসের আরএম শাখায় ব্যবহার শুরু হয়েছে।

এ সফটওয়্যারটির উল্লেখযোগ্য বৈশিষ্ট্য হলো, এর মাধ্যমে এক নজরে সকল মামলার সাধারণ তথ্য জানা, মামলার তারিখ, দিনান্তর, কী কারণে দিনান্তর, রায়, পুনরায় আপিলের সুযোগ আছে কিনা, মামলার  প্রাত্যহিক ও মাসিক প্রতিবেদনসহ মামলার যাবতীয় তথ্য তাৎণিকভাবে জানা যাবে। এর ফলে সেবা নিতে আসা কোনো ব্যক্তিকে আর রেকর্ড রুমে ঘণ্টার পর ঘণ্টা অপো করা লাগবে না।

এ প্রসঙ্গে এডিসি (রাজস্ব) জানান, ‘বর্তমানে খুলনা জেলায় ১৯টি আদালতে বিচারাধীন দেওয়ানি মামলার সংখ্যা ৩ হাজার ৯শ ২৫টি।  সরকার পে নিয়োজিত ২২ জন আইন কর্মকর্তা প্রতিদিন গড়ে ৪৫ থেকে ৫০টি মামলায় হাজিরা দেওয়াসহ বিভিন্ন আইনগত পদপে নিয়ে থাকেন। এর ফলে অনেক মামলার তারিখ যথাসময়ে জানা যায় না এবং স্যা-প্রমাণ উপস্থাপন করা যায় না। এ কারণে অনেক সময় মামলার একতরফা নিষ্পত্তি ঘটে, যাতে সরকারি স্বার্থ ব্যাহত হয়।

বাংলাদেশ সময়: ১৬১৫ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৯, ২০১০

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2010-10-19 06:15:54