ঢাকা, সোমবার, ৪ ভাদ্র ১৪২৬, ১৯ আগস্ট ২০১৯
bangla news

‘একটি এনজিও চাচ্ছে না জাহাজভাঙা শিল্প থাকুক’

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১০-১০-১৯ ৫:৪৩:৩৫ এএম

একটি এনজিও চাচ্ছে না বাংলাদেশে জাহাজভাঙা শিল্প থাকুক। পরিবেশবাদী বেসরকারি সংস্থা ট্যুরিজম অ্যান্ড এনভায়রনমেন্ট ডেভেলপমেন্ট ফাউন্ডেশন (টিইডিএফ) এ অভিযোগ করেছে।

ঢাকা: একটি এনজিও চাচ্ছে না বাংলাদেশে জাহাজভাঙা শিল্প থাকুক। পরিবেশবাদী বেসরকারি সংস্থা ট্যুরিজম অ্যান্ড এনভায়রনমেন্ট ডেভেলপমেন্ট ফাউন্ডেশন (টিইডিএফ) এ অভিযোগ করেছে।

মঙ্গলবার সিরডাপ মিলনায়তনে টিইডিএফ আয়োজিত ‘পরিবেশের উপর জাহাজভাঙা শিল্পের প্রভাব ও আজকের বাস্তবতা’ শীর্ষক গোলটেবিল বৈঠকে বক্তারা এ অভিযোগ করেন।

বক্তারা বলেন, বেসরকারি ওই সংস্থটি চাচ্ছে না জাহাজভাঙা শিল্পটি থাকুক। এজন্যই বিষয়টিকে তারা আদালতে নিয়ে গেছে। তারা এ শিল্পটির বিরুদ্ধে একটি বিধিমালা তৈরি করেছে। যা পরিবেশ মন্ত্রণালয় গ্রহণ করেছে।

এ বিধিমালা প্রণয়ন করা হলে জাহাজভাঙা শিল্পটি বন্ধ হয়ে যাবে বলেও বক্তারা আশংকা প্রকাশ করেন।

বক্তারা বলেন, এ শিল্পটি জাতীয় উন্নয়নের একটা অংশ। তাই সুনির্দিষ্ট তথ্য-প্রমাণ ছাড়া এটিকে বন্ধ করা ঠিক হবে না।

প্রত্যেক শিল্পেরই কিছু ক্ষতিকর প্রভাব রয়েছে উল্লেখ করে বক্তারা বলেন, এ শিল্পটি যতটুকু না ক্ষতি করছে, তার চেয়ে অনেক গুণ লাভ বয়ে আনছে।
 
জাহাজভাঙা শিল্পটি বন্ধ হয়ে গেলে এর সঙ্গে সংশ্লিষ্ট ২৫ লাখের বেশি লোক বেকার হবেন। ফলে সংশ্লিষ্ট অধিকাংশ পরিবারের ভবিষ্যৎ অনিশ্চিত হয়ে যাবে বলে জানান বক্তারা।

কল্যাণ পার্টির সভাপতি মেজর জেনারেল (অব.) সৈয়দ ইব্রাহিম বীর প্রতীকের সভাপতিত্বে বক্তৃতা করেন এএমইএ সভাপতি আমিরুল ইসলাম, সাবেক বন সংরক্ষক এম এ জলিল, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী, প্রিহ্যাব মহাসচিব এম এ এলাহী শিমুল, পরিবেশবিদ ক্যাপ্টেন সালাউদ্দিন সেলু, বিএফইউজে মহাসচিব আলতাফ মাহমুদ প্রমুখ।

বাংলাদেশ সময়: ১৫৩৪ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৯, ২০১০

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
db 2010-10-19 05:43:35