ঢাকা, রবিবার, ৮ বৈশাখ ১৪৩১, ২১ এপ্রিল ২০২৪, ১১ শাওয়াল ১৪৪৫

জাতীয়

ঝালকাঠিতে দুর্বৃত্তের আগুনে পুড়ল দেড় শতাধিক মুরগি

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮১৩ ঘণ্টা, মার্চ ২, ২০২৪
ঝালকাঠিতে দুর্বৃত্তের আগুনে পুড়ল দেড় শতাধিক মুরগি

ঝালকাঠি: ঝালকাঠির নলছিটিতে একটি মুরগির খামারে আগুন দিয়ে দেড়শতাধিক মুরগিসহ এক খামার পুড়িয়ে দেওয়া অভিযোগ উঠেছে দুর্বৃত্তদের বিরুদ্ধে।

শুক্রবার (১ মার্চ) রাত ৩টার দিকে পৌরসভার গৌরিপাশা এলাকার মল্লিক বাড়ির শিমুল মল্লিকের খামারে এ ঘটনা ঘটে।

 

শিমুল মল্লিক ওই গ্রামের মোখলেস মল্লিকের ছেলে।

ক্ষতিগ্রস্ত শিমুলের বাবা মোখলেস মল্লিক বলেন, গভীর রাতে বিকট শব্দ শুনে বাহিরে এসে দেখি আমাদের মুরগির খামার আগুনে পুড়ছে। আমি ডাক চিৎকার দিলে লোকজন এসে আগুন নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করলে ততক্ষণে খামারটি সম্পূর্ণ পুড়ে ছাই হয়ে যায়। খামারে থাকা ১০ কাঠা জমির ধান, ছোট-বড় প্রায় দেড় শতাধিক দেশি মুরগি ছিল পুড়ে যায়।  

তিনি আরও বলেন, আমাদের সঙ্গে হারুন মল্লিকের ছেলে জাকিরের এই খামার নিয়ে দ্বন্দ্ব ছিল। তিনি আগেই আমাদের হুমকি দিয়েছিল। আর গভীর রাতে তারা কামার আগুন দিয়ে জ্বালিয়ে দেয়।

শিমুলের স্ত্রী শাহনাজ বেগম বলেন, হারুন মল্লিকের কাছ থেকে খামার বানাতে আমরা দেড় লাখ টাকা নিয়েছিলাম আর এজন্য তার ছেলে জাকির মল্লিক খামারে ভাগ হয়েছে। যখন মুরগি উঠিয়েছি তখন তাদের ভাগের টাকা তিনি নিয়ে গেছেন। আর নগদ তাদের ৯০ হাজার টাকা দিয়ে দেওয়া হয়েছে বাকি ৬০ হাজার টাকার জন্য তারা আগুন দিয়ে খামারটি জ্বালিয়ে দেন। এতে আমাদের চার লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি হয়েছে। তদন্তসাপেক্ষে দোষীদের আইনের আওতায় আনার দাবি জানাই।

অভিযুক্ত জাকির মল্লিকের বাবা হারুন মল্লিক বলেন, আমার ছেলে শুক্রবার রাত চরমোনাই মাহফিলে ছিলেন। তার বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ দেওয়া হচ্ছে।  

নলছিটি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মুরাদ আলী বলেন, আগুনে মুরগিসহ ঘর পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। খবর পেয়ে  ঘটনাস্থল পুলিশ পাঠানো হয়েছে। অভিযোগ পেলে তদন্তসাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বাংলাদেশ সময়: ১৮১২ ঘণ্টা, মার্চ ০২ ২০২৪
এসএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
welcome-ad