ঢাকা, রবিবার, ১ বৈশাখ ১৪৩১, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ০৪ শাওয়াল ১৪৪৫

জাতীয়

দিনাজপুরে রাইস মিলে ডাকাতির ঘটনায় গ্রেপ্তার ৬

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৩৩২ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২২, ২০২৪
দিনাজপুরে রাইস মিলে ডাকাতির ঘটনায় গ্রেপ্তার ৬

দিনাজপুর: দিনাজপুরের হাকিমপুর উপজেলার একটি অটোরাইস মিলে ডাকাতির ঘটনায় ছয়জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এসময় তাদের কাছ থেকে ডাকাতিতে ব্যবহৃত বিভিন্ন যন্ত্রপাতি ও নগদ অর্থ জব্দ করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২২ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে দিনাজপুরের পুলিশ সুপার কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে এসব তথ্য জানান পুলিশ সুপার শাহ ইফতেখার আহমেদ।

এসময় সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শেখ জিন্নাহ আল মামুনসহ পুলিশ ও পুলিশের গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- দিনাজপুর সদর উপজেলার করিমুল্লাহপুরের আব্দুর রহিম ওরফে পোড়া রহিম (৬৮), ৬ নম্বর উপশহর এলাকার দুলাল মিয়ার ছেলে শামীম ওরফে পবন (৩০), দিনাজপুর পৌরসভার কসবা এলাকার মৃত আব্দুস জব্বারের ছেলে আব্দুস সোহাগ (৩৪), হাকিমপুর উপজেলার বাসুদেবপুর এলাকার মৃত ঈমান আলী মিস্ত্রির ছেলে আলিম হোসেন (৪০), চিরিরবন্দর উপজেলার ভাবকি এলাকার ফরিদুল ইসলাম ওরফে মাসুয়া (৪৫) এবং সদর উপজেলার ৪ নম্বর শেখপুরা ইউনিয়নের নিমনগর এলাকার মৃত কান্দু মাসুদের ছেলে বকুল হোসেন।  

প্রেস ব্রিফিংয়ে পুলিশ সুপার জানান, গত ১৫ ফেব্রুয়ারি দিনাজপুরের হাকিমপুর উপজেলার বাসুদেবপুর এলাকার প্রসাদ সাহার মালিকানাধীন ইউনাইটেড রাইস মিলে ডাকাতি হয়। ১৭ ফেব্রুয়ারি অজ্ঞাতনামা ব্যক্তিদের আসামি করে থানায় মামলা করা হয়। পরে হাকিমপুর থানা, কোতোয়ালি থানা ও ডিবি পুলিশ জেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে ছয়জনকে গ্রেপ্তার করে।  

তিনি আরও জানান, গ্রেপ্তারের সময় তাদের কাছ থেকে একটি কুড়াল, একটি চাপাতি, দুটি টর্চ লাইট, তিনটি বাটন মোবাইল ফোন, দুটি ট্রাভেল ব্যাগ ও নগদ নয় হাজার ৩০০ টাকা জব্দ করা হয়। গ্রেপ্তারকৃত আব্দুর রহিমের নামে আগের পাঁচটি, শামীমের নামে ১৪টি, আব্দুস সোহাগের নামে ১০টি, আলিম হোসেনের নামে একটি ও ফরিদুল ইসলামের নামে একটি মামলা রয়েছে।  

বাংলাদেশ সময়: ১৩৩১ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২২, ২০২৪
এসআই


 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।