ঢাকা, সোমবার, ১৩ ফাল্গুন ১৪৩০, ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৫ শাবান ১৪৪৫

জাতীয়

বিএনপির হরতালে সরব ফেনী

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭৩৬ ঘণ্টা, নভেম্বর ১৯, ২০২৩
বিএনপির হরতালে সরব ফেনী

ফেনী: দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল বাতিলের দাবিতে বিএনপি ও সমমনা দলগুলোর ডাকা ৪৮ ঘণ্টার হরতালের প্রথম দিনে সরব রয়েছে ফেনীর সড়ক ও দোকানপাট। হরতালের কোনো প্রভাব নেই ফেনী জেলার কোথায়ও।

রোববার (১৯ নভেম্বর) দিনের শুরুতেই ফেনী বিভিন্ন আঞ্চলিক সড়কে ছিল গাড়ির চাপ। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে তা আরও বাড়তে থাকে। সেই সঙ্গে শহরের কোথাও কোথাও যানজটও দেখা গেছে।

ফেনী শহরের শহীদ শহীদুল্লাহ কায়সার সড়ক, ট্রাংক রোড, জেল রোড ও একাডেমি সড়কে দেখা গেছে  বিপুল সংখ্যক যান চলাচল। হরতাল উপেক্ষা করে জনসাধারণকে তাদের নিত্যপ্রয়োজনীয় কাজে ঘর থেকে বের হতে দেখা গেছে।

মোড়গুলোর সিগন্যালে স্বাভাবিক সময়ের মতোই দায়িত্ব পালন করতে হচ্ছে ট্রাফিক পুলিশের সদস্যদের।  

এদিকে হরতাল ঘিরে নাশকতা ঠেকাতে সড়কে টহল দিতে দেখা গেছে পুলিশ সদস্যদের। এছাড়াও সকাল থেকেই মার্কেট ও শপিং সেন্টারে দোকানি ও ব্যবসায়ীদের নিজের প্রতিষ্ঠানে যেতে দেখা গেছে।

তবে ফেনী থেকে যাত্রী সংকটে ছাড়ছে না দূরপাল্লার কোনো গাড়ি। ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে যাত্রীবাহী যান চলাচল বন্ধ থাকলেও সীমিত সংখ্যক মালবাহী গাড়ি চলাচল করতে দেখা গেছে।

অপরদিকে শনিবার রাতে জেলা যুবদল, স্বেচ্ছাসেবক দল ও ছাত্রদল হরতালের সমর্থনে মিছিল করলেও আজকে জেলার কোথাও তাদের সড়কে পিকেটিং করতে দেখা যায়নি।

এছাড়াও হরতালে নাশকতা ঠেকাতে সড়ক মহাসড়কে পাহারা দিচ্ছে আওয়ামী লীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক বিএনপি নেতা জানান, জেলা বিএনপি, যুবদল, ছাত্রদলের শীর্ষ নেতারা কারাগারে থাকায় ফেনীতে সরকারবিরোধী আন্দোলন ঝিমিয়ে পড়েছে।

তিনি জানান, ফেনী এক আসন থেকে নির্বাচিত সাবেক সংসদ সদস্য ও বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার উপদেষ্টা ভিপি জয়নালকে কখনও মাঠে দেখা যায়নি। তিনি মাঠে থাকলে নেতাকর্মীরা উজ্জীবিত হতো।

ফেনীর বড়বাজারের ব্যবসায়ী জসিম উদ্দিন জানান, এমনিতেই ব্যবসা-বাণিজ্য খারাপ তার ওপরে হরতালে কারণে দোকান বন্ধ রাখলে ব্যবসায়িকভাবে চরম ক্ষতির সম্মুখীন হতে হয়। তাই ঝুঁকি নিয়েও দোকান খুলতে হচ্ছে।  

এদিকে ফেনী জেলা পুলিশ সুপার জাকির হাসান বাংলানিউজকে জানান, ব্যবসায়ী ও জনসাধারণের নিরাপত্তায় জেলায় প্রায় পাঁচ শতাধিক আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্য নিয়োজিত রয়েছেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৭৩৬ ঘণ্টা, নভেম্বর ১৯, ২০২৩
এসএইচডি/আরআইএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।