ঢাকা, সোমবার, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২০ মে ২০২৪, ১১ জিলকদ ১৪৪৫

জাতীয়

কর্মসূচি পালনে নিরাপত্তা বিঘ্নিত হলে ব্যবস্থা: আইজিপি

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৯২৬ ঘণ্টা, অক্টোবর ২২, ২০২৩
কর্মসূচি পালনে নিরাপত্তা বিঘ্নিত হলে ব্যবস্থা: আইজিপি

নারায়ণগঞ্জ: বাংলাদেশ পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেছেন, আমরা এখন পর্যন্ত কোনো শঙ্কা অনুভব করছি না। তবে আমরা সবকিছু বিবেচনায় রেখে নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করেছি।

রাজনৈতিক কর্মসূচি পালন করবে, তবে নিরাপত্তা বিঘ্নিত হলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

শনিবার (২১ অক্টোবর) রাতে শহরের রামকৃষ্ণ মিশনে পূজা মণ্ডপ পরিদর্শন শেষে একথা বলেন তিনি।

তিনি আরও বলেন, রাজনৈতিক কর্মসূচি তারা পালন করবে। তবে জনগণের জানমাল নিরাপত্তা ও সরকারের সম্পদ রক্ষার জন্য যে ব্যবস্থা নেওয়া দরকার সে ব্যবস্থা নিতে আমরা প্রস্তুত। কেউ যদি জনগণের জানমাল ও নিরাপত্তায় হুমকির সৃষ্টি করে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এ বিষয়ে আমাদের প্রস্তুতি রয়েছে। সকলকে বলতে চাই আপনারা যেভাবে ধর্মীয় অনুষ্ঠান পালন করছেন আমরা আপনাদের পাশে আছি।

তিনি বলেন, এখন পর্যন্ত দুর্গাপূজা সুন্দরভাবে অনুষ্ঠিত হচ্ছে। আমরা আশা করি বাকি সময়টাতেও সুন্দরভাবে পূজা উদ্‌যাপিত হবে।

আইজিপি বলেন, আমরা বিশ্বাস করি এই দুর্গাপূজা উপলক্ষে চাওয়া আমাদের দেশে অশুভ শক্তির বিনাশ হোক শুভ শক্তির উদয় হোক। নারায়ণগঞ্জ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির উর্বর ক্ষেত্র। আমরা দেখেছি লাঙ্গলবন্দে হিন্দু সম্প্রদায়ের সারা দেশ থেকে এখানে পুণ্য স্নানের জন্য আসে। এ বছর দশ লাখ মানুষ এখানে এসেছেন। সকল ধর্মের লোকজন এখানে সহযোগিতা দিয়ে আসছে। আমরা সবাই মিলে আপনাদের সঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে কাজ করেছি।

সনাতন ধর্মাবলম্বীদের উদ্দেশে আইজিপি বলেন, নারায়ণগঞ্জে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন। বাংলাদেশ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির জন্য বিখ্যাত। প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে আইনশৃঙ্খলার ইতিবাচক পরিস্থিতির কারণে মণ্ডপের সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে। সারা দেশে ৩৪ হাজার মণ্ডপ আছে। প্রধানমন্ত্রী বলেন ধর্ম যার যার উৎসব সবার। আমরা সবাই উৎসবের আনন্দ ভাগাভাগি করে উৎসবে শরিক হই। আমরা আপনাদের নিরাপত্তার বিষয়ে সকলে কাজ করছি। আপনাদের ধর্মীয় অনুষ্ঠান যেন শান্তিপূর্ণভাবে উদ্‌যাপন করা যায় সেজন্য সবাই মিলে একসাথে কাজ করছি।

তিনি বলেন, স্বাধীনতা যুদ্ধে হিন্দু, মুসলিম, বৌদ্ধ, খ্রিস্টান সবাই জীবন বিলিয়ে দিয়েছেন বঙ্গবন্ধুর আহ্বানে। সেভাবেই আগামী দিনে যেকোনো চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় আমরা বাঙালিরা প্রস্তুত আছি। ইতোপূর্বে যেভাবে পূজা উদ্‌যাপন করা হয়েছে আগামী দিনেও আমরা শান্তিপূর্ণভাবে পূজা উদ্‌যাপন করব। নারায়ণগঞ্জ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির উজ্জ্বল নিদর্শন স্থাপন করেছে।

বাংলাদেশ সময়: ০৯১৯ ঘণ্টা, অক্টোবর ২২, ২০২৩
এমআরপি/এসএএইচ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।