ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৩ শ্রাবণ ১৪৩১, ১৮ জুলাই ২০২৪, ১১ মহররম ১৪৪৬

জাতীয়

মোংলা ব্যবহার করতে পারবে ভারত-নেপাল-ভুটান: রেলমন্ত্রী

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১০৫ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৪, ২০২৩
মোংলা ব্যবহার করতে পারবে ভারত-নেপাল-ভুটান: রেলমন্ত্রী

বাগেরহাট: রেলপথমন্ত্রী মো. নুরুল ইসলাম সুজন বলেছেন, মোংলা সমুদ্র বন্দরের সক্ষমতা বাড়ানোর জন্য মোংলা-খুলনা রেলপথ নির্মাণ করা হয়েছে। রেল যোগাযোগ স্থাপনের ফলে এ বন্দরের সক্ষমতা বহুগুণ বেড়ে গেছে।

এতে প্রতিবেশী দেশ ভারত, নেপাল ও ভুটান এই রেলপথ দিয়ে সহজেই মোংলা বন্দর ব্যবহার করতে পারবে।  

আগে সড়ক ও নদী পথে এ বন্দরে পণ্য পরিবহন হতো। রেলপথে পণ্য পরিবহনে খরচ কম, এর সুবিধা পণ্যের ওপর যোগ হবে। ফলে এর সুফল জনগণই পাবেন।  

শনিবার (১৪ অক্টোবর) বিকেলে খুলনা-মোংলা রেলপথ পরিদর্শন শেষে মোংলা বন্দর রেল স্টেশনে তিনি একথা বলেন। এ সময় তার সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন রেলপথ মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা, রেলপথ প্রকল্প পরিচালক, সংশ্লিষ্ট ঠিকাদার প্রতিষ্ঠানসহ স্থানীয় প্রশাসনের কর্মকর্তারা।  

রেলপথমন্ত্রী সুজন বলেন, এ রেলপথে রূপসার ওপারের দুই থেকে আড়াই কিলোমিটারের কিছু অংশ লিংকেজ সম্পন্ন হয়নি। আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে এ লিংকেজ সম্পূর্ণ হয়ে গেলে রেলপথটি পুরোপুরি চলাচলের জন্য প্রস্তুত হয়ে যাবে। এছাড়া ২/৩টি ব্রিজে ত্রুটি দেখা দিয়েছিল, তা ইতোমধ্যে ত্রুটিমুক্ত করা হয়েছে। পুরো রেলপথ ত্রুটিমুক্ত করেই উদ্বোধনের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। তাই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আগামী ৯ নভেম্বর মোংলা-খুলনা রেলপথ উদ্বোধন করবেন।

মোংলা-খুলনা রেললাইন প্রকল্পের নির্মাণকাজ শুরু হয়েছিল ২০১৬ সালের সেপ্টেম্বরে। ২০২২ সালের ডিসেম্বরে এ প্রকল্প বাস্তবায়নের কথা ছিল। কিন্তু করোনাসহ নানা কারণে কাজ শেষ না হওয়ায় ২০২৩ সালের জুলাই পর্যন্ত মেয়াদ বাড়ানো হয়েছিল। পরে আরও তিন মাসের সময় বাড়ানো হয়। সেই অনুযায়ী চলতি অক্টোবর এ রেলপথ উদ্বোধনের কথা থাকলেও পুরোপুরি ত্রুটিমুক্ত করেই আগামী ৯ নভেম্বর উদ্বোধন হতে যাচ্ছে এ রেলপথটি।  

বাংলাদেশ সময়: ২১০২ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৪, ২০২৩
আরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।