bangla news

অতিরিক্ত স্রোত ও গ্যাস লাইনে সন্ধান ব্যাহত তুরাগে

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১০-১০-১০ ৯:০৭:৩২ এএম

অতিরিক্ত স্রোত ও গ্যাস লাইনের কারণে ব্যাহত হচ্ছে তুরাগে নিমজ্জিত যাত্রীবাহী বাসের সন্ধান তৎপরতা। তবে হাল ছাড়েননি দমকল বাহিনী ও নৌবাহিনীর ডুবুরিরা। তাদের সঙ্গে যোগ দিয়েছেন উৎসাহী জনতা ও জেলেরা।

সালেহপুর ব্রিজ: অতিরিক্ত স্রোত ও গ্যাস লাইনের কারণে ব্যাহত হচ্ছে তুরাগে নিমজ্জিত যাত্রীবাহী বাসের সন্ধান তৎপরতা। তবে হাল ছাড়েননি দমকল বাহিনী ও নৌবাহিনীর ডুবুরিরা। তাদের সঙ্গে যোগ দিয়েছেন উৎসাহী জনতা ও জেলেরা।

দিন গড়িয়ে রাত নামলেও সার্চ লাইটের আলোয় তারা অব্যাহত রেখেছেন সন্ধান। ভরা মৌসুমে তুরাগের খরস্রোতে কষ্ট করে ভেসে তারা খুঁজছেন নিমজ্জিত বাস আর লাশ।  

ঘটনাস্থলে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আবু নাঈম মোহাম্মদ শহীদুল্লাহ বাংলানিউজকে বলেন, ‘যেখানে বাস পড়েছে সে জায়গাটা অনেক গভীর। সেখানে পানির উপরিভাগে যে স্রোত, নিচে তার চেয়েও বেশি স্রোত বইছে।’

তিনি জানান, ফায়ার সার্ভিসের ৭ ও নৌবাহিনীর ১৫ ডুবুরি পানিতে হারানো বাসের সন্ধান চালাচ্ছেন। কিন্তু তারা স্রোতের জন্য বেশি দূর যেতে পারছেন না। এছাড়া ওই জায়গাতে গ্যাসের লাইন থাকায় নোঙর বা পাথরের মতো কিছু পানিতে ফেলে অনুসন্ধান চালানো যাচ্ছে না।

তিনি বলেন, ‘ওই খাদে বাস এতোদূর যাবে এটা অকল্পনীয়।’

তিনি আরও বলেন, ‘রাতেও বাসটি উদ্ধারের চেষ্টা চলবে। এজন্য আলোর ব্যবস্থা করা হয়েছে।’

অনুসন্ধান চালাতে ইচ্ছুক সাধারণ মানুষ ও জেলেদের পানিতে নামার অনুমতি দেওয়া হয়েছে বলেও জানান তিনি।

বাংলাদেশ সময়: ১৯০০ ঘণ্টা, অক্টোবর ১০, ২০১০

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2010-10-10 09:07:32