ঢাকা, শনিবার, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২৫ মে ২০২৪, ১৬ জিলকদ ১৪৪৫

জাতীয়

২০৪১ সালের মধ্যে দেশের শতভাগ লেনদেন হবে ক্যাশলেস: পলক

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮৫১ ঘণ্টা, জুলাই ৩, ২০২৩
২০৪১ সালের মধ্যে দেশের শতভাগ লেনদেন হবে ক্যাশলেস: পলক

নাটোর: তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, মানুষের আর্থিক লেনদেনকে সহজ ও সুন্দর করতে আগামী ২০৪১ সালের মধ্যে শতভাগ ও ২০২৭ সালের মধ্যে বাংলাদেশের ৭০ শতাংশ আর্থিক লেনদেন হবে ক্যাশলেস।  

এ পদ্ধতিতে আর্থিক লেনদেন হলে দেশে দুর্নীতি রোধ, সন্ত্রাস নির্মূলসহ মানুষের নিরাপত্তা নিশ্চিত হবে।

আগামী ২০২৫ সালের মধ্যে এ বিষয়ে মডেল জেলা হবে নাটোর, যোগ করেন প্রতিমন্ত্রী।

সোমবার (০৩ জুলাই) দুপুরে নাটোর জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত ‘টার্গেট টুওয়ার্ড ক্যাশলেস নাটোর’ বাস্তবায়নে অংশীজনদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায়  অনলাইনে যুক্ত হয়ে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

জেলা প্রশাসক আবু নাছের ভূঁঞার সভাপতিত্বে সভায় প্রতিমন্ত্রী বলেন, সরকারি দপ্তরগুলোতে পেপারলেস এবং বক্সলেস ই-টেন্ডারের ফলে স্বচ্ছতা, জবাবদিহিতা ও নিরাপত্তা নিশ্চিত হয়েছে। এখন আর টেন্ডার বক্সে প্রভাব খাটানো, ভয়ভীতি দেখানো এবং প্রাণহানির ঘটনা ঘটে না। কোরবানির পশু বিক্রিসহ যে কোনো ব্যবসার লেনদেনে ক্যাশলেস পদ্ধতি অনুসরণ করা হলে ব্যবসায়ীদের নিরাপত্তা, দেশে দুর্নীতি রোধ, সন্ত্রাস নির্মূল ও মানুষের নিরাপত্তা নিশ্চিত হবে। সেই লক্ষ্য বাস্তবায়নে আওয়ামী লীগ সরকার কাজ করছে।

স্মার্ট ডিভাইস সহজলভ্য করতে সরকার দেশে উৎপাদনে কার্যকর পদক্ষেপ নিয়েছে। ক্যাশলেস লেনদেন বাড়াতে সচেতনতা বাড়াতে হবে এবং উৎসাহ দিতে হবে। ১৪ বছর আগে দেশে স্মার্ট ডিভাইসে ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর সংখ্যা ছিল ৫৬ লাখ। বর্তমানে ১৩ কোটি মানুষ ইন্টারনেট সংযুক্তির মধ্যে আছেন। এ সুযোগ কাজে লাগিয়ে মানুষের আর্থিক লেনদেনকে সহজ ও সুন্দর করতে শতভাগ ক্যাশলেস বাংলাদেশ গড়ে তুলতে কাজ করছে সরকার। এ লক্ষ্যে আন্তঃআর্থিক প্রতিষ্ঠানের মধ্যে লেনদেনের কেন্দ্রবিন্দু হবে ‘বিনিময়’। ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী বা পেশাজীবীদের ক্যাশলেস লেনদেনের ফলে তাদের লেনদেন রেকর্ড পর্যবেক্ষণ করে আর্টিফিসিয়াল ইন্টেলিজেন্স টেকনোলজি ব্যবহার করে আর্থিক প্রতিষ্ঠানের কাছ থেকে অনায়াসে ঋণ সুবিধা পেয়ে যাবেন। এতে ব্যবসায় গতি বাড়বে, যোগ করেন প্রতিমন্ত্রী।

মতবিনিময় সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন পুলিশ সুপার মো. সাইফুর রহমান এবং বাংলাদেশ ব্যাংকের অতিরিক্ত পরিচালক মো. নাজিম উদ্দিন। সভায় জেলা পর্যায়ের কর্মকর্তারা তাদের বিভাগীয় কার্যক্রমে ক্যাশলেস লেনদেনের অগ্রগতি এবং লক্ষ্য নিয়ে বক্তব্য দেন।

সভাপতির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক বলেন, ক্যাশলেস নাটোরের ভিশন বাস্তবায়নে টাইমফ্রেমসহ অ্যাকশন প্ল্যান করা হচ্ছে। এ রোডম্যাপ অনুযায়ী সব দপ্তর কাজ করবে।

বাংলাদেশ সময়: ১৮৪০ ঘণ্টা, জুলাই ০৩, ২০২৩
এসআই
 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।