ঢাকা, শনিবার, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২৫ মে ২০২৪, ১৬ জিলকদ ১৪৪৫

জাতীয়

সিলেটে বাজুসের ১ম নির্বাচনে বিজয়ী যারা

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০২৫১ ঘণ্টা, জুন ৭, ২০২৩
সিলেটে বাজুসের ১ম নির্বাচনে বিজয়ী যারা

সিলেট: বাংলাদেশ জয়েলার্স অ্যাসোসিয়েশন (বাজুস) সিলেট জেলা শাখার প্রথম নির্বাচন উৎসবমূখর পরিবেশে সম্পন্ন হয়েছে। প্রথমবারের মতো সিলেটে প্রত্যক্ষ ভোটে নেতৃত্ব পেলেন জুয়েলার্স ব্যবসায়ীরা।

মঙ্গলবার (০৬ জুন) সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত টানা ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। ব্যালটের মাধ্যমে নেতৃত্ব নির্বাচিত করতে সকাল থেকে ভোটকেন্দ্রে ভিড় করেন জুয়েলার্স ব্যবসায়ীরা। কেন্দ্রে আসার পর প্রার্থীরা ভোটারদের স্বাগত জানান। প্রার্থী ও ভোটারদের উপস্থিতিতে ধোপাদিঘীর পূর্বপাড়স্থ ইউনাইটেড সেন্টার কেন্দ্র ও আশপাশ এলাকায় উৎসবমূখর পরিবেশের সৃষ্টি হয়।

নির্বাচনে ১৯টি পদের বিপরীতে ৪৬ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বীতা করেন। আর মোট ভোটার ছিলেন ২১৫ জন। এর মধ্যে ২১৪ জন তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন এবং কেবল একজন ভোটার অনুপস্থিত ছিলেন। আর প্রাপ্ত ভোটের মধ্যে তিনটি ভোট বাতিল হয়।

ভোট গণনা শেষে বাজুস নির্বাচন কমিশন ঘোষিত বেসরকারি ফলাফলে কমলা ভাণ্ডার জুয়েলার্স (প্রা.) লিমিটেডের নির্মল কুমার রায় ১৫৭ ভোট পেয়ে ১ম কার্যকরী সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন। ১৪৭ ভোট পেয়ে ২য় হয়েছেন রহমান জুয়েলার্সের আব্দুল কাদির মল্লিক। ১৪৭ ভোট পেয়ে তৃতীয় হয়েছেন আশা জুয়েলার্সের আলতা মিয়া, ১৩৭ ভোট পেয়ে ৪র্থ হয়েছেন নিউ পরমেশ্বর জুয়েলার্সের প্রবীর সিংহ, ১৩৪ ভোট পেয়ে ৫ম হয়েছেন নিউ ভেনাস জুয়েলার্স-০২ এর গোবিন্দ রায়, ১৩৩ ভোট পেয়ে ৬ষ্ঠ স্থানে নির্বাচিত হয়েছেন স্বর্ণা জুয়েলার্স অ্যান্ড স্টোরের রতন দে, ১৩১ ভোট পেয়ে ৭ম হয়েছেন নিউ ইসলাম জুয়েলার্সের ইয়াছিন আহমদ, ১৩১ ভোট পেয়ে ৮ম হয়েছেন সিলেট হীরা জুয়েলার্সের লক্ষণ ঘোষ, ১২৫ ভোট পেয়ে ৯ম স্থানে নির্বাচিত হয়েছেন ইসহাক জুয়েলার্সের মো. মাহবুবুর রহমান সওদাগর, ১২৪ ভোট পেয়ে ১০ম স্থানে নির্বাচিত হয়েছেন আক্তার জুয়েলার্সের কাজি মো. আক্তার হোসেন, সমান সংখ্যক ভোট পেয়ে ১১তম হয়েছেন পরমা জুয়েলার্সের বরুণ কুমার বণিক, ১২৩ ভোট পেয়ে ১২তম সদস্য হয়েছেন দি নিউ ভৌমিক জুয়েলার্সের রাজিব ভৌমিক, সমান সংখ্যক ভোট পেয়ে ১৩ তম সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন খান জুয়েলার্সের হাজি মো. আয়াতুল ইসলাম খাঁন, ১১৮ ভোট পেয়ে ১৪তম সদস্য হয়েছেন নিউজ ঝুমা জুয়েলার্সের প্রদীপ কর্মকার, ১০৪ ভোট পেয়ে ১৫তম সদস্য হয়েছেন অলংকার নিকেতন জুয়েলার্সের হাজি বাবুল আহমদ, ১০২ ভোট পেয়ে ১৬তম সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন ঝলক জুয়েলার্সের গৌরাঙ্গ বণিক, সমান সংখ্যক ভোটে ১৭তম সদস্য নির্বাচিত হন সিলেট ডলি জুয়েলার্সের মো. আব্দুল হান্নান, সমান সংখ্যক ভোটে ১৮তম সদস্য হয়েছেন আল আরাফাহ জুয়েলার্সের মো. জালাল আহমদ এবং ১০২ ভোট পেয়ে রুহুল আমিন জুয়েলার্সের মো. সেলিম আহমদ কার্যকরী সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন।

সার্বক্ষনিক নির্বাচন পর্যবেক্ষণে ছিলেন ঢাকা থেকে আসা বাজুসের কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি গুলজার আহমদ, আনোয়ার হোসেন, মো. রিপনুল হাসান ও বাজুস সিলেট জেলা আহবায়ক কমিটির সদস্য সচিব ও বাজুস ষ্টেন্ডিং কমিটি ও অন ডিষ্ট্রিক্ট মনিটরিং সদস্য (সিলেট বিভাগীয় প্রধান) নীহার কুমার রায়। নির্বাচনী বোর্ডের চেয়ারম্যানের দায়িত্বে ছিলেন হাজি মো. সুনু মিয়া, বোর্ডের দুই সদস্য হিসেবে দায়িত্বে ছিলেন শেখ মো. আলমগীর হোসেন ও আবুল হাসান নজু।

বাংলাদেশ জুয়েলারি অ্যাসোসিয়েশনের সচিব খালেদ আকন্দ ও এজিএম (অ্যাডমিন) তানভীর আহমদ বলেন, নির্বাচনে কার্যকরী সদস্য ১৯টি পদের বিপরীতে ৪৬ জন প্রার্থী এবং ২১৫ জন ভোটার আছেন।

বাজুস সূত্র জানায়, নির্বাচন সুষ্ঠুভাবে আয়োজনের লক্ষ্যে ৩ সদস্যের নির্বাচন ও ৩ সদস্যের আপিল বোর্ড গঠন করা হয়েছিল।

এছাড়াও সিলেটের বিভিন্ন রাজনৈতিক ও পেশাজীবী নেতা এবং জনপ্রতিনিধিরা নির্বাচন পর্যবেক্ষণ করেন।

বাংলাদেশ সময়: ০২৪৬ ঘণ্টা, জুন ০৭, ২০২৩
এনইউ/এফআর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।