bangla news

মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে বৈঠক: দুটি ব্লকে কাজ করতে রাজি কনোকো

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১০-১০-০৫ ৬:৪৫:৩৪ এএম

যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক তেল গ্যাস কোম্পানি কনোকো ফিলিপস বঙ্গোপসাগরের আটটি নয়, দুটি ব্লকে কাজ করতে রাজি হয়েছে বলে জ্বালানি বিভাগের উর্ধ্বতন এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন।

ঢাকা: যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক তেল গ্যাস কোম্পানি কনোকো ফিলিপস বঙ্গোপসাগরের আটটি নয়, দুটি ব্লকে কাজ করতে রাজি হয়েছে বলে জ্বালানি বিভাগের উর্ধ্বতন এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন।

মঙ্গলবার সকালে বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়ের জ্বালানি বিভাগে কনোকো ফিলিপসের প্রতিনিধিদের সঙ্গে আলোচনা হয়।  

ছোট কিছু বিষয় নিয়ে এখনো আলোচনা শেষ না হওয়ায় উৎপাদন বন্টন চুক্তি (পিএসসি) কবে স্বাক্ষর হচ্ছে তা ঠিক হয়নি।

তবে কনোকোর সঙ্গে প্রাথমিক চুক্তির বিষয়ে দিনক্ষণ ও শর্তাবলী চলতি আলোচনায় ঠিক  করা হবে বলে জানান ওই কর্মকর্তা।

তিনি জানান, শর্তাবলীর ভিত্তিতে একটি খসড়া পিএসসি তৈরি করে আইন মন্ত্রণালয়ের যাচাইয়ের (ভেটিং) পর তা চূড়ান্ত করা হবে।  

কনোকো যে দুটি ব্লকে কাজ করতে রাজি হয়েছে তা হচ্ছে- ১০ ও ১১। এই দুটি ব্লকে বাংলাদেশের সঙ্গে ভারত ও মায়ানমারের সমুদ্র সীমানা নিয়ে বিরোধ রয়েছে।

বুধবার সকালে পেট্রোবাংলার সঙ্গে কনোকোর প্রতিনিধি দল বৈঠক করবে বলে ওই কর্মকর্তা জানান।

তিনি জানান, মঙ্গলবারের আলোচনায় কনোকো আরব্রিটেশন এর ক্ষেত্রে স্থানীয় আদালতে যাওযার বিরোধীতা করেছে। ভবিষ্যতে কোন সমস্যা সমাধানে যদি আরব্রিটেশনে যেতে হলে তা সিঙ্গাপুরের আদালতে করার প্রস্তাব দিয়েছে বহুজাতিক কোম্পানিটি।  

তিনি জানান, ব্লকদুটির বিরোধপূর্ণ এলাকায় এখনই কোন কাজ করবে না বলেও জানিয়েছে কনোকো। বিরোধ মিমাংসা হলেই কাজ করার কথা বলছে তারা। সেক্ষেত্রে বিরোধপূর্ণ এলাকায় কাজ করার ক্ষেত্রে পিএসসিতে কি ধরনের শর্তাবর্লী থাকবে তা নিয়েও আলোচনা হয়। তবে তা চুড়ান্ত করা হয়নি।

এছাড়া ব্লকগুলো থেকে উত্তোলিত গ্যাসের ভাগাভাগি, ব্যাংক গ্যারান্টিসহ অন্যান্য বিষয়াদি নিয়ে আলোচনা হয়েছে বলে ওই কর্মকর্তা জানিয়েছেন।

পেট্রোবাংলার চেয়ারম্যান ড. অধ্যাপক হোসেন মনসুর এ প্রসঙ্গে বাংলানিউজ’কে বলেন, কনোকোর সঙ্গে আলোচনা হয়েছে। বেশ কিছু বিষয়ে আমরা একমত হয়েছি। আলোচনার শেষ পর্যন্ত আমরা বৈঠকে ছিলাম না। একনেকের বৈঠকে যেতে হয়েছে। তবে তিনি জানান, আলোচনা বেশ অগ্রগতি হয়েছে।

প্রায় ৪ ঘন্টাব্যাপী আলোচনায় জ্বালানি বিভাগের সচিব মোহাম্মদ মেজবাহউদ্দিন, যুগ্ন-সচিব (উন্নয়ন) আহমেদ উল্লাহ, পেট্রোবাংলার চেয়ারম্যান ড. অধ্যাপক হোসেন মনসুর, কনোকো ফিলিপসের এশিয়া প্যাসিফিকের ভাইস প্রেসিডেন্ট (বিজনেস ডেভলমেন্ট) উইলিয়াম জি. ল্যাফারেন্ড্রে, জেনারেল কনসোল ডগফিন নিগার্ড, সিনিয়র এক্সপ্লোরেশন নেগোসিয়েটর জেমস ওয়েলিন ও এক্সপ্লোরেশন ডিরেক্টর টম আর্লে উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশ স্থানীয় সময় : ১৭৩০, ৫ অক্টোবর, ২০১০।

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
db 2010-10-05 06:45:34