ঢাকা, সোমবার, ২১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩০, ০৫ জুন ২০২৩, ১৬ জিলকদ ১৪৪৪

জাতীয়

সারাদেশে মহান স্বাধীনতা-জাতীয় দিবস উদযাপন

স্টাফ অ্যান্ড ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্টস | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬৫৫ ঘণ্টা, মার্চ ২৬, ২০২৩
সারাদেশে মহান স্বাধীনতা-জাতীয় দিবস উদযাপন

খাগড়াছড়ি: জেলায় যথাযোগ্য মর্যাদায় মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস পালিত হয়েছে। দিবসটি উপলক্ষে বীর শহীদদের প্রতি পুষ্পার্ঘ্য অর্পণের মধ্য দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়।


 
রোববার (২৬ মার্চ) সূর্যোদয়ের সঙ্গে সঙ্গে শহরের চেঙ্গী স্কয়ার সংলগ্ন স্মৃতিসৌধে প্রথমে বীর মুক্তিযোদ্ধারা, এরপর উপজাতি শরণার্থী বিষয়ক চেয়ারম্যান কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা এমপি, খাগড়াছড়ি রিজিওন কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. গোলাম মহিউদ্দিন আহমেদ, জেলা প্রশাসক মো. শহিদুজ্জামান, পুলিশ সুপার মো. নাঈমুল হক, খাগড়াছড়ি প্রেসক্লাব, খাগড়াছড়ি সাংবাদিক ইউনিয়নসহ বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন বীর শহীদদের পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।
 
এছাড়া জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে বীর মুক্তিযোদ্ধা ও শহীদ মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সদস্যদের সম্মাননা ইফতার মাহফিল, বিভিন্ন পর্যটন স্পটে বিনা টিকিতে ভ্রমণের ব্যবস্থাসহ দিনব্যাপী বিভিন্ন অনুষ্ঠানের আয়োজন  করেন।
 
ব্রাহ্মণবাড়িয়া: জেলায় যথাযোগ্য মর্যাদায় মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস পালিত হয়েছে। এ উপলক্ষে রোববার (২৬ মার্চ) সূর্যোদয়ের সঙ্গে সঙ্গে শহরের ফারুকী পার্ক চত্বরে ৩১ বার তোপধ্বনির মধ্যে দিয়ে কর্মসূচির সূচনা করা হয়।  

পরে স্মৃতিসৌধে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন মেয়র, জেলা প্রশাসক, পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা, আওয়ামী লীগসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক সংগঠন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাব, ব্রাহ্মণবাড়িয়া টেলিভিশন জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশন এবং বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধি ও নানা শ্রেণী পেশার মানুষ। দিনটি পালনে জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে স্থানীয় নিয়াজ মুহাম্মদ স্টেডিয়ামে জাতীয় পতাকা উত্তোলন, কুচকাওয়াজ, মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনাসহ নানা কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে।

গোপালগঞ্জ: জেলায় নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস পালিত হয়েছে। দিবসটি উপলক্ষে রাত ১২টা ১মিনিটে টুঙ্গিপাড়ায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধিসৌধে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে তার প্রতি শ্রদ্ধা জানানো হয়।

পরে রোববার সকালে স্বাধীনতা ও বিজয় স্মৃতিস্তম্ভে জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন, জেলা আওয়ামী লীগসহ বিভিন্ন সরকারি দপ্তর ও স্কুল কলেজের পক্ষে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়। স্মৃতিস্তম্ভে (জয় বাংলা পুকুরপাড়) পুষ্পস্তবক অর্পণ, মিলাদ মাহফিল, মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিচারণ, মুক্তিযোদ্ধা ও শহীদ মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সদস্যদের সংবর্ধনা ও ইফতার বিতরণ করা হয়।

নেত্রকোনা: জেলায় যথাযোগ্য মর্যাদায় নানা আয়োজনে মহান স্বাধীনতা দিবস ও জাতীয় দিবস উদযাপিত হয়েছে।

সূর্য উদয়ের সঙ্গে সঙ্গে শহীদ মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতি ফলকে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়েছে। পরে জেলার আধুনিক স্টেডিয়ামে, জাতীয় পতাকা উত্তোলন, কুচকাওয়াজ ও ক্রীড়া প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়।

বান্দরবান: যথাযোগ্য মর্যাদায় নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে জেলায় মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস পালিত হয়েছে। সূর্য উদয়ের সঙ্গে সঙ্গে স্মৃতিসৌধে ফুল দিয়ে মুক্তিযুদ্ধের মহান শহীদদের প্রতি সম্মান জানান পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি।
 
এরপর সকাল ৮টায় বান্দরবান জেলা স্টেডিয়ামে বেলুন ও পায়রা উড়িয়ে অনুষ্ঠানের শুভ সূচনা করেন প্রধান অতিথি জেলা প্রশাসক ইয়াছমিন পারভীন তিবরীজি।  

জাবি: জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় (জাবি) কর্তৃপক্ষ যথাযোগ্য মর্যাদায় মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবসের কর্মসূচি পালন করেছেন।

দিবসটি উপলক্ষে রোববার (২৬ মার্চ) সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. নুরুল আলম জাতীয় স্মৃতিসৌধে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। এর আগে স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষে সূর্যোদয়ের সময় প্রশাসনিক ভবনে এবং আবাসিক হল সমূহে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়।

বরিশাল: ২৬ মার্চ মহান স্বাধীনতা দিবসে বরিশালে শহীদদের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা জানানো হয়েছে। রোববার (২৬ মার্চ) সকালে ৩১ বার তোপধ্বনি ও জাতীয় পতাকা উত্তোলনের মধ্য দিয়ে দিবসটি কর্মসূচি শুরু হয়।

সকাল ৬টায় বরিশাল নগরের জেলা প্রশাসক কার্যালয় সংলগ্ন শহীদ মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতিফলকে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে মহান মুক্তিযুদ্ধে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানানো হয়। পরে নগরের ত্রিশ গোডাউনস্থ বধ্যভূমি স্মৃতিস্তম্ভে
শ্রদ্ধা জানানোর পাশাপাশি শহিদ এডিসি কাজী আজিজুল ইসলাম এর কবর জিয়ারত ও মোনাজাত করা হয়।

ঝিনাইদহ: জেলায় যথাযোগ্য মর্যাদায় মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস পালিত হয়েছে। রোববার (২৬ মার্চ) সকালে সাড়ে ৬টায় এ উপলক্ষে শহরের চুয়াডাঙ্গা স্ট্যান্ডে শহীদ স্মৃতি সৌধে পুষ্পমাল্য অর্পণের মধ্য দিয়ে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়। পরে প্রেরণা একাত্তর চত্বরে জাতির পিতার প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়। এছাড়া দিনব্যাপী আলোচনা সভা, মুক্তিযোদ্ধাদের সম্বর্ধনাসহ নানা কর্মসূচির আয়োজন করা হয়েছে।

রাঙামাটি: মহান স্বাধীনতা দিবসের প্রথম প্রহরে শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণের মধ্যে দিয়ে মুক্তিযুদ্ধের বীর শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেছেন রাঙামাটির সর্বস্তরের মানুষ। রোববার (২৬ মার্চ) সূর্যোদয়ের সঙ্গে সঙ্গে ৩১বার তোপধ্বনির পর জেলার কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে প্রথমে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়।

পরে সকাল ৮টায় রাঙামাটি চিংহ্ণামং মারী স্টেডিয়ামে স্বাধীনতা দিবসের কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠিত হয়। কুচকাওয়াজে পুলিশ, হিল আনসার, ফায়ার সার্ভিস, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বয়েস স্কাউট, গার্লস গাইড ও বিএনসিসির সদস্যরা কুচকাওয়াজে অংশ নেন।

বাগেরহাট: জেলায় যথাযোগ্য মর্যাদায় ও নানা কর্মসূচির মধ্যে মহান স্বাধীনতা দিবস উদযাপিত হয়েছে। দিনটি উপলক্ষে রোববার (২৬ মার্চ) সকালে সব সরকারি-বেসরকারি, স্বায়ত্তশাসিত ও ব্যক্তি মালিকানাধীন প্রতিষ্ঠানে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়। পরে দশানীস্থ শহীদ মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতিস্তম্ভে রাষ্ট্রের পক্ষে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আজিজুর রহমান। পরে সর্বস্তরের মানুষ শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানান।

পরে কুচকাওয়াজ ও অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণের মধ্য দিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে স্বাধীনতা দিবসের কর্মসূচি শেষ করা হয়।

খুলনা: খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ে (খুবি) যথাযোগ্য মর্যাদায় মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উদযাপিত হয়েছে। এ উপলক্ষে রোববার (২৬ মার্চ) সূর্যোদয়ের সঙ্গে সঙ্গে শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ প্রশাসন ভবনের সামনে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করে দিবসের কর্মসূচি শুরু করেন উপাচার্য প্রফেসর ড. মাহমুদ হোসেন।  

পরে সকাল ৬টা ৩০ মিনিটে শোভাযাত্রা সহকারে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের মুক্তিযুদ্ধের ভাস্কর্য অদম্য বাংলায় শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ করা হয়। সকাল ৯টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের মন্দিরে প্রার্থনা এবং বাদ জোহর বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ ও প্রশাসন ভবন সংলগ্ন জামে মসজিদে দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়। এছাড়া মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষে হলসমূহে উন্নতমানের খাবার পরিবেশন করা হবে।  

রংপুর: মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করেছেন জেলার সর্বস্তরের মানুষ। রোববার (২৬ মার্চ) সূর্য উদয়ের সঙ্গে সঙ্গে রংপুর শহরস্থ জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ম্যুরালে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়।

এ সময় স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে ৩০ লাখ শহীদ, দুইলাখ সম্ভ্রম হারানো মা-বোন, জাতীয় চার নেতা ও ১৯৭৫-এর ১৫ আগস্ট নির্মম হত্যাকাণ্ডে নিহত বঙ্গবন্ধু পরিবারের শহীদদের গভীর শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করে কিছুক্ষণ নীরবতা পালন করা হয়।

নড়াইল: জেলায় যথাযথ মর্যাদা ও বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্য দিয়ে ২৬ মার্চ মহান স্বাধীনতা দিবস ও জাতীয় দিবস পালিত হয়েছে। এ উপলক্ষে রোববার (২৬ মার্চ) সূর্যোদয়ের সঙ্গে সঙ্গে ৩১বার তোপধ্বনির মধ্যদিয়ে দিবসের সূচনা হয়।  

বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতি ও ম্যুরালে পুষ্পস্তবক অর্পণ, জেলা জজ কোর্ট সংলগ্ন ৭১ এর বধ্যভূমিতে সকল মুক্তিযোদ্ধাদের আত্মার মাগফেরাত কামনায় মোনাজাত ও পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়। বীরশ্রেষ্ঠ নুর মোহাম্মদ স্টেডিয়াম কুচকাওয়াজ, বীর মুক্তিযোদ্ধাদের ফুলেল শুভেচ্ছা ও সংবর্ধনা প্রদানসহ দিনব্যাপী কর্মসূচি পালিত হচ্ছে।

বরগুনা: মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা দেওয়া হয়েছে। রবিবার (২৬ মার্চ) সকাল ১১টায় জেলার আমতলী উপজেলা পরিষদের মাঠে তাদের সংবর্ধনা দেওয়া হয়।

রাজশাহী: জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তানদের প্রতি শ্রদ্ধা জানানোর মধ্যে দিয়ে রাজশাহীতে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উদযাপন করা হচ্ছে। এ লক্ষ্যে রোববার (২৬ মার্চ) দিনব্যাপী ব্যাপক কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে। রাজশাহীতে আজ সূর্যোদয়ের সঙ্গে সঙ্গে ৩১ বার তোপধ্বনির মাধ্যমে দিনের শুভ সূচনা করা হয়। সকালে স্মৃতি ফলকে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়। সূর্যোদয়ের সঙ্গে সঙ্গে সব সরকারি, আধা-সরকারি, স্বায়ত্তশাসিত ও বেসরকারি ভবনসমূহে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়েছে। সকালে হেতেম খাঁ বড় মসজিদে কোরআন-খানি, দোয়া ও আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়।

দিবসটি উপলক্ষে রাজশাহীর বরেন্দ্র গবেষণা জাদুঘর ও শিশুপার্ক প্রবেশমূল্য ছাড়া শিশুদের দর্শনের জন্য উন্মুক্ত রাখা হয়েছে। শহরের গুরুত্বপূর্ণ স্থানসমূহে মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক প্রামাণ্য চিত্র প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়েছে।

ঝালকাঠি: জেলায় বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্য দিয়ে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস পালিত হয়েছে। রোববার (২৬ মার্চ) সূর্যোদয়ের সঙ্গে সঙ্গে ঝালকাঠির মুক্তিযোদ্ধার স্মৃতিস্তম্ভে পুষ্পমাল্য অর্পণ করা হয়। সকাল ৮টায় ঝালকাঠি সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে পবিত্র মাহে রমজানের কারণে সংক্ষিপ্ত আকারে পুলিশ, আনসারসহ বিভিন্ন বাহিনী, বিএনসিসি কুচকাওয়াজ প্রদর্শন করেন। কুচকাওয়াজের আনুষ্ঠানিকতা শেষে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা প্রদান করা হয়।

মাদারীপুর: জেলায় মহান স্বাধীনতা দিবসে শতাধিক বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা ও সম্মাননা স্মারক দেওয়া হয়েছে। রোববার (২৬ মার্চ) বেলা দেড়টার দিকে জেলা পরিষদের সম্মেলন কক্ষে এ সংবর্ধনা দেওয়া হয়।  এ সময় বক্তারা তাদের বক্তব্যে ৭১ সালে মহান মুক্তিযুদ্ধে জাতির পিতা শেখ মুজিবুর রহমান ও মুক্তিযোদ্ধাদের অবদান তুলে ধরেন।

অনুষ্ঠানে জেলা পরিষদের প্রশাসক মুনির চৌধুরী প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের হাতে ফুলেল শুভেচ্ছা ও সম্মাননা স্মারক তুলে দেন।

শাবিপ্রবি (সিলেট): যথাযোগ্য মর্যাদা ও মাহে রমজানের পবিত্রতা রক্ষা করে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (শাবিপ্রবি) মহান স্বাধীনতা দিবস উদযাপন করা হয়েছে। রোববার (২৬ মার্চ) সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবন-২ এর সামনে জাতীয় সঙ্গীত গাওয়ার সঙ্গে জাতীয় পতাকা ও বিশ্ববিদ্যালয়ের পতাকা উত্তোলন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ ও কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মো. আনোয়ারুল ইসলাম। পরে বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে শ্রদ্ধা জানান উপাচার্য।

এদিকে এ দিবস উদযাপনে ২৬ ও ২৭ মার্চ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রবেশপথ, আবাসিক হল ও গুরুত্বপূর্ণ স্থানগুলোতে আলোকসজ্জা করা হয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৬৫০ ঘণ্টা, মার্চ ২৬, ২০২৩
এসআইএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa