ঢাকা, শনিবার, ৭ বৈশাখ ১৪৩১, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ১০ শাওয়াল ১৪৪৫

জাতীয়

আইসিসিবিতে রমজানজুড়ে মিলবে পুরান ঢাকার ইফতার

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯০২ ঘণ্টা, মার্চ ২৪, ২০২৩
আইসিসিবিতে রমজানজুড়ে মিলবে পুরান ঢাকার ইফতার ছবি: শাকিল আহমেদ

ঢাকা: পবিত্র মাহে রমজান উপলক্ষে সপ্তমবারের মতো মুখরোচক সব ইফতার সামগ্রী নিয়ে শুরু হয়েছে আইসিসিবি পুরান ঢাকা ইফতার বাজার-২০২৩।

শুক্রবার (২৪ মার্চ) রাজধানীর বসুন্ধরা আন্তর্জাতিক কনভেনশন সেন্টারে (আইসিসিবি) শুরু হয় এ আয়োজন।

আয়োজকরা জানান, পুরান ঢাকার ইফতার ঢাকার একটি বিশেষ ঐতিহ্য। আর এ ঐতিহ্যের স্বাদ স্বাস্থ্যসম্মতভাবে নতুন ঢাকার ভোজনরসিকদের সঙ্গে পরিচিত করাতেই আইসিসিবির এ উদ্যোগ। এছাড়া প্রচণ্ড গরম আর যানজটে যাতে ক্রেতাদের চকবাজারে যেতে না হয়, সে লক্ষ্যেই ঢাকা উত্তরের ভোজনরসিকদের জন্য সবই থাকছে আইসিসিবি ইফতার বাজারে।

এদিন আইসিসিবির ৫ নম্বর হল ঘুরে দেখা যায়, আইসিসিবি হেরিটেজ রেস্টুরেন্টসহ ঢাকাই খাবারের বিখ্যাত সব স্টলে ক্রেতাদের ভিড়।

আইসিসিবি হেরিটেজ রেস্টুরেন্ট থেকে শাহী কাবাব কিনছিলেন বসুন্ধরা আবাসিক এলাকার বাসিন্দা ইমতিয়াজ আহমেদ। বাংলানিউজকে তিনি বলেন, আমাদের এখান থেকে চকবাজার অনেক দূর হয়ে যায়। ইফতার কিনে ফিরে আসার সময় পাওয়া যায় না। এখানে পরিবেশটা ভালো। আর পুরান ঢাকার অনেকগুলো আইটেম পাওয়া যায়। সবকিছু মিলিয়ে তাই এখান থেকে নিয়েছি ইফতার।

আইসিসিবি হেরিটেজ রেস্টুরেন্টের কর্মী নোমান সিদ্দিকী বলেন, আলহামদুলিল্লাহ এখন পর্যন্ত ভালো সাড়া পাচ্ছি। প্রথমদিন আজ। ধীরে ধীরে আরও জনসমাগম বাড়বে। পুরান ঢাকার বেশ কিছু আইটেম যেমন- চিকেন হাড়িয়ালি কাবাব, চিকেন রেশমি কাবাব, চিকেন শাসলিক, জালি কাবাবসহ অনেক আইটেম আছে। এর মধ্যে সবচেয়ে স্পেশাল হচ্ছে আইসিসিবির বিফ হান্ডি কাবাবটা। এটা মূলত বোনলেস। কোনো হাড় থাকে না। এছাড়া গরুর মাংসের কালোভুনাটাও এখানে বিখ্যাত। সব মিলিয়ে মোট ৪২ আইটেমের মুখরোচক ইফতার মিলবে এখানে।

ঢাকাই ইফতারের মুখরোচক আয়োজন ছাড়াও রয়েছে নানাবিধ শাহী আইটেম, আচার ও তাজা ফলের জুসের সমাহার। দামও রয়েছে মোটামুটি নাগালের ভেতর। জমজমাট আইসিসিবি ইফতার বাজার চলবে প্রতিদিন বিকেল ৩টা থেকে। আগামী ২৫ রমজান পর্যন্ত ইফতার বাজার অব্যাহত থাকবে।

বাংলাদেশ সময়: ১৮৫৬ ঘণ্টা, মার্চ ২৪, ২০২৩
এমকে/আরবি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।