ঢাকা, শনিবার, ১৯ ফাল্গুন ১৪৩০, ০২ মার্চ ২০২৪, ২০ শাবান ১৪৪৫

জাতীয়

রেলওয়ে প্রকল্পের কাজ শেষ হলে দু’দেশের সম্পর্কের আরও উন্নতি হবে

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১০৩ ঘণ্টা, মার্চ ১৮, ২০২৩
রেলওয়ে প্রকল্পের কাজ শেষ হলে দু’দেশের সম্পর্কের আরও উন্নতি হবে

ব্রাহ্মণবাড়িয়া: আখাউড়া-লাকসাম রেলওয়ে প্রকল্পকে একটি গুরুত্বপূর্ণ প্রকল্প বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্র মন্ত্রনালয়ের সিনিয়র সচিব মাসুদ বিন মোমেন।  

তিনি বলেছেন, এই প্রকল্পের কাজ শেষ হলে বাংলাদশের যেমন ভালো হবে, তেমনি ভারতের সঙ্গে বন্ধুত্বপুর্ণ সুসম্পর্কের যে বিষয়গুলো রয়েছে সেগুলোরও আরও উন্নতি হবে।

 

শনিবার (১৮ মার্চ) বিকেলে কসবায় আখাউড়া-লাকসাম রেলওয়ে প্রকল্পের কসবা রেল ষ্টেশন ও সালদানদী এলাকার গত এক সপ্তাহ ধরে চলমান কাজ পরিদর্শনে এসে সাংবাদিকদের সঙ্গে তিনি এসব কথা বলেন।

এ সময় মাসুদ বিন মোমেন আরও বলেন, প্রথমে কোভিড-১৯ ও পরবর্তীতে ভারতীয়দের বাধা থাকায় দীর্ঘদিন কাজ বন্ধ ছিলো। সাম্প্রতিক সময়ে আলোচনার মাধ্যমে সমস্যা নিরসন হওয়ায় গত এক সপ্তাহ ধরে চলমান কাজ দেখতে এসে তিনি সন্তোষ প্রকাশ করেন।  

তিনি আরও বলেন, পুরোদমে কাজ চলছে। এখন আর কোনো বাধা নেই, সব সমস্যা দূর হয়েছে। অল্প সময়ের মধ্যে অসমাপ্ত কাজ শেষ হবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।  

এসময় বিজিবি সেক্টর কমান্ডার কর্নেল আবুল কালাম মোহাম্মদ শামসুদ্দিন রানা, সুলতানপুর ৬০ বিজিবি অধিনায়ক লে. কর্নেল আশিক হাসান উল্লাহ, কসবা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আমিমুল এহসান খান ও চলমান প্রকল্পের পরিচালন মোহাম্মদ সুবক্তগীনসহ ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান তমা কন্সট্রাকসনের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

প্রসঙ্গত, ২০১৬ সালের ১ নভেম্বর শুরু হয় আখাউড়া-লাকসাম রেলওয়ে প্রকল্পের কাজ। বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তের ১৫০ গজের মধ্যে কাজ চলছে এমন অজুহাতে ২০২০ সালের ৯ সেপ্টেম্বর ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিএসএফের বাধায় কাজটি বন্ধ হয়ে যায়। পরে দুই দেশের উচ্চ পর্যায়, সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় ও বিজিবি-বিসএফের আলোচনার মাধ্যমে ফের গত ১২ মার্চ থেকে পুরোদমে কাজ শুরু হয়।

বাংলাদেশ সময়: ২১০৩ ঘণ্টা, মার্চ ১৮, ২০২৩
এসএ
 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।