ঢাকা, শুক্রবার, ১০ ফাল্গুন ১৪৩০, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১২ শাবান ১৪৪৫

জাতীয়

তথ্যপ্রযুক্তির উন্নয়নে একসঙ্গে কাজ করবে বাংলাদেশ-সৌদি আরব

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১২১২ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ৯, ২০২৩
তথ্যপ্রযুক্তির উন্নয়নে একসঙ্গে কাজ করবে বাংলাদেশ-সৌদি আরব

ঢাকা: তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক এবং সৌদি আরবের যোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী আব্দুল্লাহ বিন আমের আল সোয়াহার সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সৌদি আরবের রাজধানী রিয়াদের লিপ ভিআইপি লাউঞ্জে এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয় বলে বৃহস্পতিবার (৯ ফেব্রুয়ারি) আইসিটি বিভাগ থেকে পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

এতে বলা হয়, বৈঠকে তারা দুই দেশের তথ্যপ্রযুক্তি খাতের উন্নয়ন ও বিকাশে বাংলাদেশ এবং সৌদি আরবের মধ্যে আইসিটি খাতে বিনিয়োগ ও যৌথ শিক্ষা সহযোগিতা, স্মার্ট সিটি স্থাপনে বিনিয়োগ এবং আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স (এআই), রোবোটিক্স, সেমিকন্ডাক্টর এবং ন্যানো প্রযুক্তির নিয়ে একসঙ্গে কাজ করার বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেন।

বৈঠকে প্রতিমন্ত্রী পলক প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ও আইসিটি উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়ের তত্ত্বাবধানে ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ’ বাস্তবায়ন এবং তথ্যপ্রযুক্তি খাতের সার্বিক অগ্রগতি ও ২০৪১ সালের স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণের রূপকল্প তুলে ধরেন।

তিনি বলেন, ভ্রাতৃপ্রতিম সৌদি আরবের সঙ্গে ডিজিটাল রূপান্তর ও স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণ নিয়ে এক সঙ্গে কাজ করতে চাই।

সৌদির তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী তথ্যপ্রযুক্তি খাতের উন্নয়ন ও বিকাশে আগামী দিনগুলোতে বাংলাদেশের সঙ্গে কাজ করার আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন সৌদি আরবে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত ড. জাবেদ পাটোয়ারী, প্রতিমন্ত্রীর একান্ত সচিব মুশফিকুর রহমান ও সৌদি আরবের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা।

এর আগে প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক সৌদির অর্থ মন্ত্রণালয়ের অধীনে পুঁজিবাজারে তালিকভুক্ত বিনিয়োগ প্রতিষ্ঠান এলম ইনফরমেশন সিকিউরিটি কোম্পানির সিইও ড. আব্দুল রহমান আল-জাদাইয়ের সঙ্গে বাংলাদেশ ‘স্মার্ট সিটি’ গড়ার রূপকল্প নিয়ে বৈঠক করেন।

বৈঠকের আলোচনায় স্মার্ট সিটিতে রূপান্তরে আন্তর্জাতিক পর্যটন এবং ডিজিটাল স্বাস্থ্য পরিষেবায় সবুজ প্রযুক্তির ব্যবহারের ওপর গুরুত্বারোপ করা হয়। সেই লক্ষ্যে আইসিটি নির্ভর স্মার্ট সিটি গঠনে এলম এর সঙ্গে প্রযুক্তি, আর্থিক এবং কৌশলগত চুক্তির বিষয় নিয়ে আলোচনা করেন।

ডিজিটাল কোপারেশন অর্গানাইজেশনের সম্মেলনে অংশগ্রহণ এবং সৌহার্দ্যপূর্ণ পরিবেশে শীর্ষ পর্যায়ের দ্বি-পাক্ষিক বৈঠক শেষে প্রতিমন্ত্রী পলকের ১০ ফেব্রুয়ারি (শুক্রবার) দেশে ফেরার কথা রয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ১২১২ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ০৯, ২০২৩
এমআইএইচ/আরআইএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।