ঢাকা, শুক্রবার, ১০ ফাল্গুন ১৪৩০, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১২ শাবান ১৪৪৫

জাতীয়

তুরস্কে ভবনে আটকে পড়া রিংকুকে উদ্ধার

ডিপ্লোম্যাটিক করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২২২৮ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ৭, ২০২৩
তুরস্কে ভবনে আটকে পড়া রিংকুকে উদ্ধার

ঢাকা: তুরস্কের দক্ষিণাঞ্চলে ভয়াবহ ভূমিকম্পের ঘটনার পর একটি ভবনে আটকে পড়া বাংলাদেশি শিক্ষার্থী গোলাম সাঈদ রিংকুকে উদ্ধার করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (৭ ফেব্রুয়ারি) রাত ৯টা ৫০ মিনিটে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে এক পোস্টে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম।

ফেসবুকে শাহরিয়ার লেখেন- ‘আলহামদুলিল্লাহ। তুরস্কে গোলাম সাঈদ রিংকুকে ভবনের নিচে চাপা পড়া অবস্থা থেকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে। হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে চিকিৎসার জন্য। ’

এ ছাড়া ইস্তাম্বুলে বাংলাদেশ কনস্যুলেট  জেনারেল অফিসের বরাত দিয়ে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র সেহেলি সাবরীনও এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তুরস্কে অবস্থানরত বাংলাদেশি শিক্ষার্থী মোবাশ্বেরা জাহান ফাতিমা ফেসবুকে পোস্ট করে রিংকুর অবস্থা জানিয়েছেন। তিনি লিখেছেন- আলহামদুলিল্লাহ। কাহারামানমারাশ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী মুহাম্মদ গোলাম সাইদ রিংকুকে উদ্ধারের খবরটি নিশ্চিত করেছেন উনার বন্ধু, তুরস্কের বিভিন্ন স্টুডেন্ট অর্গানাইজেশন এবং আঙ্কারাস্থ বাংলাদেশ দূতাবাস। উনি শারীরিকভাবে বেশ দুর্বল। আপাতত উনার চিকিৎসার ব্যবস্থা চলছে। দোয়া করি যেন উনি সম্পূর্ণ সুস্থ হয়ে ওঠেন। উনি এই মুহূর্তে কাহারামানমারাশের একটি হাসপাতালে ভর্তি। শহরটিতে অবস্থানকারী বাংলাদেশি আরও দুই শিক্ষার্থী উনার সাথে থেকে সহযোগিতা করছেন।

তুরস্কের কাহারামানমারাশ সুতচু ইমাম বিশ্ববিদ্যালয়ের কাছে একটি ভবনে আটকা পড়েছিলেন শিক্ষার্থী গোলাম সাঈদ রিংকু। নূরে আলম নামে অপর শিক্ষার্থীকে একই ভবন থেকে প্রথমে উদ্ধারের পর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

এর আগে তার ভবনে আটকা পড়ার বিষয়টি জানিয়েছিলেন ইস্তাম্বুলে বাংলাদেশ কনসাল জেনারেল মোহাম্মদ নুরে আলম।

জানা গেছে, প্রদেশটির আজাজ শহরে থাকতেন নূরে আলম ও গোলাম সাঈদ রিংকু। তাদের ভবনটি ভূমিকম্পে ক্ষতিগ্রস্ত হয়। ঘটনার পর নূরে আলম বের হতে পারলেও রিংকু আটকা পড়েন। রিংকুর বাড়ি বগুড়া জেলায়।

সোমবার (৬ ফেব্রুয়ারি) ভোরের দিকে তুরস্কের দক্ষিণাঞ্চল ও উত্তর-পশ্চিম সিরিয়ার অংশে ভয়াবহ ভূমিকম্প হয়। এতে দুই দেশে বহু মানুষ হতাহত হয়েছেন। এখনও উদ্ধারকাজ চলছে।

বাংলাদেশ সময়: ২২২৬ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ৭, ২০২৩
টিআর/এমজে

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।