ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৩ মাঘ ১৪২৯, ০৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১৫ রজব ১৪৪৪

জাতীয়

‘মুহিতের মতো নক্ষত্র খুব কমই হয়’

ডিপ্লোম্যাটিক করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১৫৫ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৫, ২০২৩
‘মুহিতের মতো নক্ষত্র খুব কমই হয়’

ঢাকা: ‘সাবেক অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতের মতো নক্ষত্র খুব কমই হয়। তাঁর মধ্যে মানুষ হিসেবে কোনো ঘাটতি ছিলো না।

তিনি নির্মোহ লোক ছিলেন। কোনো প্রকার লোভ লালসা তাকে কখনোই আকৃষ্ট করতে পারেনি। ’ 

বুধবার (২৫ জানুয়ারি) সাবেক অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতের জন্মদিন উপলক্ষে এক স্মরণসভায় বক্তারা একথা বলেন।

রাজধানীর ফরেন সার্ভিস একাডেমিতে আবুল মাল আবদুল মুহিতের জন্মদিন উপলক্ষে এক স্মরণসভার আয়োজন করা হয়।

অনুষ্ঠানে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন বলেন, গেল বছরে এই সময়ে মুহিত ভাইয়ের ৮৮ বছর জন্মদিন পালন করেছি। আর এই বছর এই সময়ে তিনি নেই।  

তিনি বলেন, অনেক মানুষের মৃত্যুর পরে ট্রাস্ট ফান্ড হয়। প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলা হয়। আমরাও মুহিত ভাইকে নিয়ে সেটা চাই। মুহিত ভাই আমাদের ভাই বোনের মধ্যে সবচেয়ে ট্যালেন্ট ভাই, তারপর শায়লা আপা।

মুহিতের বোন ড. শায়লা খাতুন বলেন, মুহিত ভাই অনেক মানুষের উপকার করেছেন। তার কাছে যারাই গেছেন, তিনি কাউকে রিফিউজ করেননি। এমনকি পিয়ন-ড্রাইভারও হলেও। মুহিতের মতো নক্ষত্র খুব কমই হয়। উনার মধ্যে মানুষ হিসেবে কোনো ঘাটতি ছিলো না।  

তিনি বলেন, আমাদের পরিবারের লোক পড়ালেখার জন্য কোথাও বাধাগ্রস্ত হইনি। সে কারণে আজ আপনাদের দোয়ায় নিজের পায়ে দাঁড়িয়েছি। আমি আমাদের পরিবারে পক্ষ থেকে সবাইকে ধন্যবাদ জানাই৷

আওয়ামী লীগের অর্থ ও পরিকল্পনা বিষয়ক উপকমিটির কো-চেয়ারম্যান ইনাম আহমেদ চৌধুরী বলেন, নির্মোহ লোক ছিলেন। কোনো লোভ লালসা তাকে কখনোই আকৃষ্ট করতে পারেনি।

অনুষ্ঠানে মুহিতকে নিয়ে একটি প্রামাণ্য চিত্র প্রদর্শন করা হয়। এ বিষয়ে চ্যানেল আইয়ের প্রধান বার্তা প্রধান শাইখ সিরাজ বলেন, আবুল মাল মুহিতকে নিয়ে প্রামাণ্যচিত্র নির্মাণের ভেতর দিয়ে আমি নিজেকেও অনেক ভাবে তৈরি করার সুযোগ পেয়েছি। শিখেছি, জেনেছি অনেক কিছু। আবুল মাল আবদুল মুহিতের কাছে আমার, আমাদের কৃতজ্ঞতার শেষ নেই।  

তিনি বলেন, আমাদের কাছে মুহিতের আরও অনেক গল্প আছে। সেটা আমাদের সম্পদ।

ঢাকা ক্লাবের সাবেক সভাপতি খায়রুল মজিদ মামুন বলেন, আবুল মাল আবদুল মুহিত গুণী ও বড় মানুষ ছিলেন। আমাদের সৌভাগ্য যে, উনার মতো মানুষ অর্থমন্ত্রী ছিলেন। তিনি বাংলাদেশে নক্ষত্র হয়ে থাকবেন।

এফবিসিসিআইয়ের সাবেক সভাপতি এ কে আজাদ বলেন, আবুল মুহিতে মধ্যে কোনো লোভ ছিল না। তিনি আমাদের এফবিসিসিআইকে অনেক সহযোগিতা করেছেন তবে বাজেটে কালো টাকা সাদা করলে, আমি একবার তাকে বলেছিলাম, এতে আমাদের মতো ট্যাক্সদাতাদের অসুবিধা হয়। তবে তিনি বলেছিলেন, আমি একজন রাজনীতিবিদও । সব দিকে আমাকে দেখতে হয়।

অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন এনবিআর-এর সাবেক চেয়ারম্যান নজিবুর রহমান, সাবেক স্বাস্থ্য সচিব আবদুল মান্নান।

উল্লেখ্য, গত বছর ৩০ এপ্রিল সাবেক অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতের মৃত্যু হয়।

বাংলাদেশ সময়: ২১৫৫ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৫, ২০২৩
টিআর/এসএ
 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa