ঢাকা, বুধবার, ২৫ মাঘ ১৪২৯, ০৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১৬ রজব ১৪৪৪

জাতীয়

‘কিশোর-কিশোরীদের প্রজনন স্বাস্থ্য সুরক্ষা জানতে হবে, জানাতে হবে’

নিউজ ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮৩১ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৪, ২০২৩
‘কিশোর-কিশোরীদের প্রজনন স্বাস্থ্য সুরক্ষা জানতে হবে, জানাতে হবে’

ঢাকা: ‘বায়ুদূষণ ও কিশোর-কিশোরীদের প্রজনন স্বাস্থ্য সুরক্ষা’ সম্পর্কে জানতে হবে জানাতে হবে। একসময় এ বিষয়ে অনেকে সচেতন ছিল না।

কিশোর-কিশোরীদের সচেতন হতে হবে। ২০৪১ সালে উন্নত দেশ গড়ার সঙ্গে সঙ্গে নাগরিকের উন্নত স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিত করতে হবে। তবেই আমাদের সব লক্ষ্য অর্জিত হবে। আর সেই কাজটি অনেক আগেই শুরু করেছে ওয়ার্ল্ড ভিশন। ’

ওয়ার্ল্ড ভিশন আয়োজিত রাজধানীর পল্লবীর একটি অডিটরিয়ামে বায়ুদূষণ ও কিশোর-কিশোরীদের প্রজনন স্বাস্থ্য সুরক্ষার লক্ষ্যে বিদ্যালয়ভিত্তিক কুইজ প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে দৈনিক কালের কণ্ঠের উপসম্পাদক মো. হায়দার আলী এসব কথা বলেন।

বিজয়ী শিক্ষার্থীদের তিনি বলেন, ‘আজ তোমরা দর্শক সারিতে বসেছ। তোমরাই একদিন মঞ্চের সারিতে বসবে। বঙ্গবন্ধুকন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসহ বিশ্বে ১০০ প্রভাবশালী নারীদের মধ্যে কিশোরগঞ্জের সানজিদা ইসলাম ছোঁয়া একজন। তিনি ওয়ার্ল্ড ভিশনের সঙ্গে সম্পৃক্ত। কালের কণ্ঠ শুভসংঘের সঙ্গেও যুক্ত। সেই ছোঁয়া ১০০ বাল্যবিবাহ বন্ধ করেছেন। আমি বিশ্বাস করি, আজকে যারা ওয়ার্ল্ড ভিশন আয়োজিত প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়ে বিজয়ী হয়েছ তারা ছোঁয়াকে ছাড়িয়ে যাবে। আমি নিজেও ৩৩ বছর আগে ওয়ার্ল্ড ভিশনের সঙ্গে সম্পৃক্ত হই। এতে নানা সামাজিক ও সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ডে যুক্ত হয়েছি, যা আমাকে সমৃদ্ধ করেছে। প্রজনন স্বাস্থ্য সচেতনতা লজ্জার বিষয় নয়। এ বিষয়ে সম্যক জ্ঞান অর্জন প্রতিটি তরুণ-তরুণীর জন্য অত্যন্ত জরুরি। ’

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন ধানমণ্ডি থানা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আব্দুল কাহহার, মিরপুর মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আব্দুল কাদির ফকির, পল্লবী মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা ফারজানা শারমিন ও গুলশান থানা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. ওমিদুর রহমান।

অনুষ্ঠানে অতিথিরা বলেন, শব্দদূষণের মাত্রা এতটা বেড়ে গেছে যে মানুষ কানের চিকিৎসা করেও শ্রবণশক্তি ফিরে পাচ্ছে না। রাস্তায় অহেতুক হর্ন বাজানো হচ্ছে, এর বিরুদ্ধে জোর পদক্ষেপ প্রয়োজন। সবার সম্মিলিত প্রচেষ্টায় বায়ুদূষণ কমাতে হবে, প্রজনন স্বাস্থ্য সুরক্ষার কাজ সবাই মিলে এগিয়ে নিতে হবে। প্রান্তিক পর্যায় পর্যন্ত এই সচেতনতামূলক উদ্যোগ পৌঁছে দিতে হবে। শিক্ষার্থীদের এ বিষয়ে প্রচারণায় মনোনিবেশ করা উচিত। ’ 

অনুষ্ঠানে বক্তারা প্রত্যেকটি স্কুলে কিশোর-কিশোরীদের প্রজনন স্বাস্থ্য সুরক্ষা কর্নার প্রতিষ্ঠার দাবি জানান। শিক্ষার্থীদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে তারা বলেন, প্রত্যেক স্কুলের বারান্দায় গাছ লাগানো ও পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখতে হবে। শিক্ষার্থীদের মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ধারণ করে এর গুরুত্ব শিক্ষার্থীর কাছে উপস্থাপনের ওপর গুরুত্বারোপ করেন তারা।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ওয়ার্ল্ড ভিশনের টেকনিক্যাল প্রগ্রাম ম্যানেজার জোয়ান্না ডি-রোজারিও। তিনি তার বক্তব্যে বলেন, প্রজনন স্বাস্থ্য সকলের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। বিশেষ করে বয়ঃসন্ধিকালে শারীরিক ও মানসিক পরিবর্তন কিশোর-কিশোরীদের মনে নানা প্রশ্নের জন্ম দেয়। এ সময় তাদের বেড়ে ওঠা ও প্রজনন স্বাস্থ্য নিয়ে নানা তথ্যের প্রয়োজন হয়। অথচ বাংলাদেশের সংস্কৃতিতে প্রজনন ইস্যুটি এতটাই স্পর্শকাতর যে এ সম্পর্কে আলোচনা করাকে লজ্জার বিষয় হিসেবে দেখা হয়, এটা ঠিক নয়। এ থেকে তরুণ-তরুণীদের বের হতে হবে। শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘তোমাদের সবাইকে তোমাদের নিজ স্কুল পরিষ্কারের দায়িত্ব নিতে হবে। প্রত্যেক স্কুলে মেয়েদের মাসিক (ঋতুস্রাব) ব্যবস্থাপনা কর্নার প্রতিষ্ঠা করতে হবে। ’ প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকায় কালের কণ্ঠ’র উপসম্পাদক মো. হায়দার আলীকে ধন্যবাদ জানান তিনি।

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন ওয়ার্ল্ড ভিশনের টেকনিক্যাল কো-অর্ডিনেটর ইন্টিগ্রেটেড ওয়াস সুব্রত মাইকেল রোজারিও। তিনি বলেন, বিদ্যালয়গুলোতে পর্যাপ্ত স্বাস্থ্য বিষয়ক শিক্ষা নিশ্চিত করা প্রয়োজন। দেশের গণমাধ্যমের এ দায়িত্ব নিতে হবে, কিশোর-কিশোরীদের প্রজনন স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিত ও সচেতনতা বৃদ্ধিতে সরকারি বরাদ্দ বাড়ানোর ওপরও গুরুত্ব দেন তিনি। শিশুশ্রম আইন ২০০৬-এ উল্লিখিত শাস্তির বিধান বাস্তবায়নে সঠিক উদ্যোগ ও সচেতনতা বৃদ্ধির ওপর জোর দেন তিনি। অনুষ্ঠান শেষে রাজধানীর ২৪টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ৭২ জন কুইজ বিজয়ী শিক্ষার্থীর মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হয়। অনুষ্ঠানের শুরুতে শিক্ষার্থীদের নাচ-গান ও নৃত্য পরিবেশনের মাধ্যমে কিশোর-কিশোরীদের প্রজনন স্বাস্থ্য সচেতনামূলক বার্তা তুলে ধরা হয়।

বাংলাদেশ সময়: ১৮২৭ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৪, ২০২৩
এনএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa