ঢাকা, সোমবার, ২৬ শ্রাবণ ১৪২৭, ১০ আগস্ট ২০২০, ১৯ জিলহজ ১৪৪১

ভোটের-কথা

পাবনা-২ এ সু-সংগঠিত বিএনপি!

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৬২০ ঘণ্টা, জুন ৩, ২০১৭
পাবনা-২ এ সু-সংগঠিত বিএনপি! বিএনপি'র নির্বাহী কমিটির সদস্য সেলিম রেজা হাবিব

সুজানগর ও বেড়া (পাবনা) থেকে: পাবনা-২ (সুজানগর-বেড়া) আসনের রাজনীতিতে সরকারি দলে অভ্যন্তরীণ কোন্দল থাকলেও ঐক্যের প্রশ্নে বিএনপি অনেকটাই একাট্টা। 

তাই দলীয় কোন্দল ছ‍াড়াই মিলেমিশে নির্বাচনের পথে হাঁটছেন এ আসনের বিএনপি নেতা-কর্মীরা। স্থানীয় পর্যায়ে সরকারি দলের কোন্দলের পুরো ফায়দা তুলে নেওয়ারই পরিকল্পনা তাদের।

তবে বিএনপি ভেতরে ভেতরে দল গোছালেও রাজনীতির মাঠে নেতা-কর্মীদের উপস্থিতি কম।  যদিও মাঠে ‍নামতে না পারার পুরো দোষ তারা ক্ষমতাসীনদের ঘাড়েই চাপিয়ে দিচ্ছে।

সুজানগর উপজেলার বিএনপির এক স্থানীয় নেতা নিজেকে আব্দুল মতিন পরিচয় দিয়ে বাংলানিউজকে বলেন, আগামী জাতীয় নির্বাচনের প্রস্তুতি নিয়ে দলে কোনো কোন্দলের জায়গা নেই।  দল যদি আগামী নির্বাচনে আসে তাহলে পাবনা-২ আসনে বিএনপি এক হয়ে কাজ করবে।   দলের কিছু পর্যায়ে সামান্য সমস্যা থাকলেও তা নির্বাচনের আগে শেষ হয়ে যাবে বলে আশা করি।


আগামী নির্বাচনে পাবনা-২ আসনে বিএনপির মনোনয়ন প্রত্যাশীদের দৌড়ে কে এগিয়ে আছে জানতে চাইলে স্থানীয় বিএনপির একাধিক নেতা বাংলানিউজকে বলেন, বিএনপি'র নির্বাহী কমিটির সদস্য সেলিম রেজা হাবিব মনোনয়ন দৌড়ে সব থেকে এগিয়ে।  এছাড়া উপজেলা বিএনপি নেতা আব্দুল হালীম সাজ্জাদ, কেন্দ্রীয় বিএনপি নেতা কৃষিবিদ হাসান জাফির তুহিনও আছেন মনোনয়ন প্রত্যাশীদের দৌড়ে।  তবে সেলিম রেজা হাবিবের পাওয়ার সম্ভাবনাই বেশি।
আবার বিএনপির অনেক নেতা বলেন, সেলিম রেজা হাবিব মনোনয়ন দৌড়ে এগিয়ে থাকলেও কম জান না হাসান জাফির তুহিন।  স্থানীয় নেতা ও জনগণের কাছে তুহিনেরও যথেষ্ট গ্রহণযোগ্যতা রয়েছে।  মূলত এই দুই নেতার মধ্যেই মনোনয়ন লড়াই হবে।  তবে তা হবে সুস্থ পর্যায়ে।
আগামী নির্বাচনের প্রস্তুতি হিসেবে বিএনপি কি ধরনের তৎপরতা চালাচ্ছে জানতে চাইলে বিএনপি নেতা সেলিম রেজা হাবিব বাংলানিউজকে বলেন, পাবনা-২ আসনে বিএনপি সু-সংগঠিত।  এখানে দলীয় কোন্দলের কোনো জায়গা নেই।  আগামী নির্বাচনে পাবনা-২ আসনে বিএনপি ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করবে।

আগামী নির্বাচনের দলীয় মনোনয়ন সম্পর্কে তিনি বলেন, বিএনপি একটি বৃহৎ রাজনৈতিক দল, এখানে মনোনয়ন প্রত্যাশীদের মাঝে একটি প্রতিযোগিতা থাকবে স্বাভাবিক।   তা আমাদের পাবনা-২ আসনেও রয়েছে। কিন্তু মনোনয়ন নিয়ে দলে কোনো কোন্দল নেই।  যেই মনোনয়ন পাক না কেন, আমরা সবাই ধানের শীষের জন্য কাজ করব।
পাবনা-২ আসনের রাজনীতি নিয়ে স্থানীয় বাসিন্দারাও বলছেন, আওয়ামী লীগের কোন্দলের কারণে এ আসনে বিএনপি এগিয়ে রয়েছে।  বিএনপিকে মাঠে দেখা না গেলেও ভেতরে ভেতরে আগামী নির্বাচনের জন্য তারা সু-সংগঠিত।  যা এখনো সরকারি দল করতে পারেনি।  নির্বাচনের আগে যদি স্থানীয় আওয়ামী লীগ ঘর গোছাতে ব্যর্থ হয়, তাহলে বিএনপিই আসনটি পেতে পারে বলে মনে করেন স্থানীয়রা।

বাংলাদেশ সময়: ১২২০ ঘণ্টা, জুন ০৩, ২০১৭
এমএ/জেডএম 

‘সকলে যেন এক থালে ভাত খায়’

ত্রিমুখী কোন্দলে জর্জরিত নাটোর-১ আসনের আওয়ামী লীগ

‘আমরা যেন ভোট দিয়ে সরকার বানাতি পারি’

এমপিতে আস্থা নেই পাবনা-২ আসনে!

 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

ভোটের-কথা এর সর্বশেষ

Alexa