ঢাকা, শুক্রবার, ১৫ আশ্বিন ১৪২৯, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

মালয়েশিয়া

কাজের জন্য নিকৃষ্ট স্থান মালয়েশিয়া

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১৪২ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ১৮, ২০১৫
কাজের জন্য নিকৃষ্ট স্থান মালয়েশিয়া

কুয়ালালামপুর: কর্মপরিবেশ, নিরাপত্তা ও মানবাধিকার বিবেচনায় শ্রমিকদের জন্য পৃথিবীর নিকৃষ্ট দেশগুলোর মধ্যে রয়েছে মালয়েশিয়া। ১৩৯টি দেশের মধ্যে পরিচালিত জরিপ অনুযায়ী এ তথ্য জানিয়েছে ইন্টারন্যাশনাল ট্রেড ইউনিয়ন কনফেডারেশন (আইটিইউসি)।


 
বেসরকারি হিসেবে মালয়েশিয়ায় প্রায় ১০ লাখ বাংলাদেশি বিভিন্ন ক্ষেত্রে কাজ করছেন।

১৩৯টি দেশের কর্মপরিবেশ হিসেবে নিয়ে প্রতিবেদনটিতে ৯৭টি বিষয় বিবেচনায় র‌্যাংকিং করা হয়েছে। জরিপে বৈধ নিরাপত্তা এবং অধিকার নিশ্চিতের বিষয়গুলো প্রাধান্য পেয়েছে। ১ থেকে ৫ নম্বর ক্যাটাগরির ৫ নম্বর স্থানকে নিকৃষ্ট হিসেবে চিহ্নিত করেছে আইটিইউসি। বৈশ্বিক অধিকারের হিসেবে মানবাধিকার বিবেচনায় মালয়েশিয়ার অবস্থান ৫ নম্বর ক্যাটাগরিতে।

জরিপে মালয়েশিয়ার সঙ্গে একই অবস্থানে রয়েছে নাইজেরিয়া, কাতার ও বাংলাদেশও। প্রতিবেদন অনুযায়ী এসব দেশেও শ্রমিকরা তাদের অধিকার থেকে বঞ্চিত।

আইটিইউসি বলছে, ৫ নম্বর অবস্থানে থাকা দেশগুলোতে কিছু অধিকার বঞ্চিত হয়। এসব দেশে শ্রমিকরা তাদের অধিকারবঞ্চিত ও শাসনের শিকার হয়। শ্রমিকদের বেআইনিভাবে কাজে বাধ্য করা হয়।

নিয়মিত শ্রমিক অধিকার বঞ্চনার ক্ষেত্রে সিঙ্গাপুরের অবস্থান তৃতীয় এবং কৌশলে শ্রমিক অধিকার বঞ্চনা করায় ইন্দোনেশিয়ার অবস্থান চতুর্থ।

তবে আর্শ্চযজনক হলো, সাউথ আফ্রিকা এবং টোগো শ্রমিক অধিকারের বিষয়ে প্রথম সারিতে রয়েছে। যেখানে যুক্তরাষ্ট্রের মতো উন্নত দেশের অবস্থান চতুর্থ। ফিলিস্তিন এবং সোমালিয়ার অবস্থানও এক্ষেত্রে শেষদিকে।

আইটিইউসির মহাসচিব শ্যারন বুরো বলেন, শ্রম মজুরির জন্য দরদাম করা, নিরাপদ অবস্থা নিশ্চিত করা অথবা শ্রমিক ইউনিয়নগুলো থেকেই বোঝা যায় একটি দেশের কাজের পরিবেশ কতটা উন্নত।

গত ৩০ বছরের শ্রমিক অধিকার বঞ্চিত হওয়ার তথ্য থেকেই এ জরিপ করা হয়েছে বলে জানিয়েছ আইটিইউসি।

আন্তর্জাতিক শ্রমিক ইউনিয়নের এই জোট প্রথমবারের মতো সরকার ও ব্যবসায়ীদের দেখিয়েছে, কিভাবে তারা শ্রমিক অধিকার হরণ করছে।

বাংলাদেশ সময়: ২১৪৩ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ১৮, ২০১৫
এমএন/এমজেএফ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

মালয়েশিয়া এর সর্বশেষ

Alexa