ঢাকা, বুধবার, ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ৩০ নভেম্বর ২০২২, ০৫ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

মালয়েশিয়া

মালয়েশিয়ানের দৃষ্টিতে বাংলাদেশিরা

মাহমুদ খায়রুল। কুয়ালালামপুর করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১১১৭ ঘণ্টা, জুলাই ২৭, ২০১৪
মালয়েশিয়ানের দৃষ্টিতে বাংলাদেশিরা

আমাদের বাসার প্রাক্তন সিকিউরিটি গার্ড হাজি জয়নাল। মালয়েশিয়ান।

প্রায় তিন মাস হয় কাজ বন্ধ করেছেন তিনি। কিছু শারীরিক অসুস্থতার জন্য আর কাজ করতে পারেন না। ঈদের আগে তাই ঠিক করলাম খোঁজ খবর নিয়ে আসা যাক।

বাসা কুয়ালালামপুর এর কিছু দুরে। তামান মেলাতি স্টেশন এ নামার ৭-৮ মিনিট পরেই এক বিশাল ডাক শুনলাম। খায়রুল... কাম হেয়ার। হাউ আর ইউ ইয়াং ম্যান? চল চল। অল্প বৃদ্ধবয়স্ক লোকের ডাক। তার মোটরসাইকেলে চড়েই গেলাম তার বাসায়।

কলোনির বাসা। ছোট রুম। স্বামী-স্ত্রীর বসবাস। ছিমছাম গোছানো। নিম্ন-মধ্যবিত্তের বাসা। বাসায় প্রবেশ করতেই জয়নালের স্ত্রী সালাম জানালেন। বললেন এই প্রথম কোন বাংলাদেশি তার বাসায় আসলেন।

গল্প শুরু হল। তারা দুজনই বেশ রসিক। বয়স প্রায় ৫৫-৬৫ এর মাঝামাঝি। আধা-কাচা ইংরেজি মালয় সংমিশ্রণ করে কথা বলার চেষ্টা করেন। জিজ্ঞেস করলাম মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশির কথা। বললেন, তার দেখা সব বাংলাদেশিরা অনেক কর্মঠ। তাই তিনি বাংলাদেশিদের অনেক পছন্দ করেন। বাংলাদেশিদের পরিচয় তাদের কর্মে। মালয়েশিয়ার যেখানেই কাজে দেওয়া হোক না কেন, অভিজ্ঞতা থাকুক আর নাই থাকুক, বেশ তাড়াতাড়ি কাজগুলো রপ্ত করতে পারে বাংলাদেশিরা।

তার মতে, এখানে যারা আসেন, তারা অনেক বোকা। রাস্তা পার হতে ভয় পায়, কেউ কিছু জিজ্ঞেস করলে দৌড়ে পালায়। তবে হ্যা, এখানে পুলিশের কাছে এক একটি বাংলাদেশি মানে এক একটি আয়ের উৎস। নানা বাহানা করে তারা বাংলাদেশিদের কাছ থেকে ঘুষ খায়। হয়রানির শিকার করে। হেয় করে।

তবে বাংলাদেশিদের সাথে কথা বলে ও কাজ করে আরাম আছে। এ দেশে ভারতীয়, চীনাদের পর যখন বাংলাদেশিরা আসে তখন মালয়েশিয়ানরা অনেক খুশি ছিল। সবাই বাংলাদেশিদের আচার আচরণ ব্যবহারে অনেক খুশি ছিল। তবে একদল অসৎ এবং কপট বাংলাদেশি এ দেশের মেয়েদের বিয়ে করে এবং তাদেরকে না বলে ছেড়ে চলে যায়। এটি ১৯৯৪-১৯৯৬ দিকের কথা। এর পর থেকে বাংলাদেশিদের প্রতি মালয়েশিয়ানদের ঘৃণা বাড়তে থাকে। এসব কারণে মালয়েশিয়া সরকার ১০ বছর বাংলাদেশি কর্মী আনা বন্ধ রাখে। মালয়েশিয়ায় ক্রমেই বাংলাদেশের নাম খারাপ হতে থাকে।

জয়নাল আরও জানায়, সে সময় দিনগুলো ছিল কষ্টের। বাংলাদেশিরা নিজেদের দোষেই খারাপ হয়েছে। আগে এরকম ছিল না। কিছু অসাধু লোকের জন্য এখন বর্তমান বাংলাদেশিদের কেও নিচু করে দেখা হয়।

তবে এখন মানুষ অনেক শিক্ষিত হচ্ছে। কাজের প্রমাণ দিয়ে বাংলাদেশিরা জায়গা করে নিচ্ছে। আশা করি অতি দ্রুত মালয়েশিয়ানদের মনে সেই খারাপ ছবিটা থাকবে না। সকল বড় বড় কোম্পানি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বাংলাদেশিরা অনেক ভালো করছে। তবে তাদেরকে তুলে ধরা হয় না সামনে সেই কিছু কারণে। তবে দিন বদলের দিন আসবে খুব শীঘ্রই । বাংলাদেশিরা মালয়েশিয়ায় সততার সাথে কাজ করে প্রমাণ করবে।

কথা বাড়তে থাকে। টেবিলে ইফতারের আয়োজন শুরু হতে থাকে। ব্যস্ত হয়ে যান মিসেস জয়নাল। অল্প সামর্থ্য হলেও তাদের আপ্যায়নে মুগ্ধ হলাম আমি। ঈদের দাওয়াত নিয়ে বাসা ছাড়লাম।
 
বাংলাদেশ সময়: ১১১৫ ঘণ্টা, জুলাই ২৭, ২০১৪

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

মালয়েশিয়া এর সর্বশেষ

Alexa