ঢাকা, মঙ্গলবার, ৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ২৪ নভেম্বর ২০২০, ০৭ রবিউস সানি ১৪৪২

লন্ডন

‘বঙ্গবন্ধু বাঙালির সত্যের পথে এগিয়ে যাওয়ার প্রেরণা’

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৯৪৭ ঘণ্টা, আগস্ট ১৬, ২০১৬
‘বঙ্গবন্ধু বাঙালির সত্যের পথে এগিয়ে যাওয়ার প্রেরণা’ ছবি- বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর

লন্ডন: লন্ডনে চিকিৎসাধীন সব্যসাচী লেখক কবি সৈয়দ শামসুল হক বলেছেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান শুধুমাত্র আমাদের স্বাধীনতার স্থপতি বা জাতির জনকই নন, তিনি বাঙালির সত্যের পথে এগিয়ে যাওয়ার প্রেরণা। প্রজন্ম থেকে প্রজন্মান্তরে তিনি আমাদের প্রেরণা হয়েই থাকবেন।

১৫ আগস্ট (সোমবার) জাতীর জনকের ৪১তম শাহাদতবার্ষিকী উপলক্ষে লন্ডনে বাংলাদেশ হাইকমিশনের জাতীয় শোক দিবসের আলোচনায় অতিথির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন।

‍সৈয়দ শামসুল হক বলেন, ঘাতকরা বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করেছে ঠিকই, কিন্তু বাঙালির হৃদয় থেকে তাকে কেড়ে নিতে পারেনি। বঙ্গবন্ধুর আদর্শ যুগে যুগে সত্য ও সুন্দরের পক্ষে আমাদের অনুপ্রেরণা যোগাবে।

এ সময় তিনি যুক্তরাজ্যের সঙ্গে বঙ্গবন্ধুর রাজনৈতিক সম্পর্কেরও অনেক স্মৃতিচারণ করেন।

ভারপ্রাপ্ত হাইকমিশনার খোন্দকার মোহাম্মদ তালহার সভাপতিত্বে চ্যালসি ওল্ড টাউন হলে আয়োজিত অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে বিশিষ্ট সাংবাদিক সাহিত্যিক আব্দুল গাফ্ফার চৌধুরীও বক্তব্য রাখেন।

বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশের অবিচ্ছেদ্য অংশ এমন মন্তব্য করে গাফ্ফার চৌধুরী বলেন, পৃথিবীতে অনেক নেতা এসেছেন, কিন্তু একটি জাতীকে দীর্ঘদিন ধরে স্বাধীনতার জন্য প্রস্তুত করে মাত্র সাড়ে নয় মাসের সশস্ত্র যুদ্ধের মাধ্যমে সেই স্বাধীনতা এনে দিয়েছেন, দিয়েছেন একটি স্বাধীন ভূখণ্ড। বঙ্গবন্ধু ছাড়া এমন নেতা আর আসেননি।

সভাপতির বক্তব্যে হাইকমিশনার খোন্দকার মোহাম্মদ তালহা বলেন, বঙ্গবন্ধু শুধু নিজে একটি স্বাধীন দেশের স্বপ্ন দেখেননি, সেই স্বপ্ন ছড়িয়ে দিতে পেরেছিলেন সাড়ে সাত কোটি মানুষের মধ্যে। সেজন্যই এতে অল্প সময়ের মধ্যে সম্ভব হয়েছিলো স্বপ্নের বাস্তবায়ন।

বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ আজ উন্নয়নের রোল মডেল, এমন মন্তব্য করে হাইকমিশনার জাতির জনকের স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ে তুলতে শোককে শক্তিতে পরিণত করে প্রধানমন্ত্রীর এ উন্নয়নের চাকা সচল রাখতে সবার সম্মিলিত ভূমিকা আশা করেন।

অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগ সভাপতি সুলতান শরীফ, যুগ্ম সম্পাদক মারুফ চৌধুরী, মহিলা আওয়ামী লীগ সভাপতি খালেদা মোস্তাক কোরেশি, মুক্তিযোদ্ধা ফয়জুর রহমান খান প্রমুখ। উর্মী মাজহার আবৃত্তি করেন বঙ্গবন্ধুকে নিবেদিত কবিতা।

এর আগে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত করার মাধ্যমে শুরু হয় হাইকমিশনের শোক দিবসের অনুষ্ঠান। ভারপ্রাপ্ত হাইকমিশনারসহ অন্যরা বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

হাইকমিশন ছাড়াও আলাদাভাবে যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগসহ বিভিন্ন সংগঠন বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করে জাতীয় শোক দিবসে।

বাংলাদেশ সময়: ০৯৪৪ ঘণ্টা, আগস্ট ১৬, ২০১৬
জেডএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa