ঢাকা, শনিবার, ৯ মাঘ ১৪২৭, ২৩ জানুয়ারি ২০২১, ০৯ জমাদিউস সানি ১৪৪২

লন্ডন

শফিক রেহমানের মুক্তি দাবিতে পিটিশন নেয়নি ব্রিটিশ পার্লামেন্ট

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১১৭ ঘণ্টা, এপ্রিল ২২, ২০১৬
শফিক রেহমানের মুক্তি দাবিতে পিটিশন নেয়নি ব্রিটিশ পার্লামেন্ট ছবি: সংগৃহীত

লন্ডন: সাংবাদিক শফিক রেহমানের মুক্তি দাবিতে ব্রিটিশ পার্লামেন্টে তার সমর্থকদের করা একটি পিটিশন প্রত্যাখ্যাত হয়েছে।

গত ১৭ এপ্রিল করা এ পিটিশন নিয়ম অনুযায়ী হয়নি বিধায় প্রত্যাখ্যান করেছে পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষ হাউস অব কমন্স।

বিষয়টি ব্যাখ্যা করে হাউস অব কমন্সের ওয়েবসাইটে বলা হয়, শফিক রেহমানের মুক্তির বিষয়টি ব্রিটিশ সরকার বা পার্লামেন্টের এখতিয়ারবহির্ভূত। তাকে মুক্তি দেওয়ার কোনো ক্ষমতা নেই ব্রিটিশ সরকার বা পার্লামেন্টের।

দায়ের করা পিটিশনে অভিযোগ করা হয়, “প্রধানমন্ত্রীর ছেলেকে অপহরণের ‘মিথ্যা’ অভিযোগে ৮১ বছর বয়সী খ্যাতিমান সাংবাদিক শফিক রেহমানকে গ্রেফতার করে রিমান্ডে নিয়েছে পুলিশ। খ্যাতিমান এই সাংবাদিক তার সারাজীবন কাটিয়েছেন গণতন্ত্রের একজন ‘প্রবক্তা’ হিসেবে। সাবেক স্বৈরশাসকসহ বর্তমান ‘ভোটারবিহীন’ সরকারের ‘গণতন্ত্রবিরোধী’ কর্মকাণ্ডের বিরুদ্ধে তার কলম ছিলো সবসময় সক্রিয়। এই অব্যাহত লেখনী বন্ধ করতেই শফিক রেহমানের বিরুদ্ধে ভিত্তিহীন অভিযোগটি। ”

পরে পূর্ব লন্ডনে শফিক রেহমানের মুক্তি দাবিতে আয়োজিত এক সমাবেশে তার ছেলে পিটিশনের কথাটি সবাইকে জানান। তিনি এতে সবাইকে স্বাক্ষরেরও আহবান জানান।

নিয়মানুযায়ী এ ধরনের পিটিশনে কমপক্ষে ১০ হাজার স্বাক্ষর সংগৃহীত হলে বিষয়টি পার্লামেন্ট আলোচিত হওয়ার সুযোগ সৃষ্টি হয়। কিন্তু পিটিশনটি গৃহীত না হওয়ায় এ নিয়ে ব্রিটিশ পার্লামেন্টে আলোচনার সুযোগও থাকছে না।

বাংলাদেশ সময়: ২১০০ ঘণ্টা, এপ্রিল ২২, ২০১৬
এইচএ/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa