ঢাকা, বুধবার, ৭ আশ্বিন ১৪২৮, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৩ সফর ১৪৪৩

লন্ডন

কেভিন স্টিল এখন ‘ফিরনাস’-এ, ফ্লাইট আসবে সিলেটেও

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২২০৫ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৯, ২০১৫
কেভিন স্টিল এখন ‘ফিরনাস’-এ, ফ্লাইট আসবে সিলেটেও ছবি: বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

লন্ডন: বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের সাবেক সিইও ও এমডি কেভিন জন স্টিলের নেতৃত্বে যাত্রা শুরু করছে ব্রিটেনভিত্তিক নতুন এয়ারলাইন্স ‘ফিরনাস’। এই উদ্যোগে রয়েছেন অন্য বাংলাদেশি ব্যবসায়ীরাও।



আগামী বছরের শেষ নাগাদ বাংলাদেশের সিলেটসহ বিশ্বের ৮টি গন্তব্যে আনুষ্ঠানিকভাবে ফ্লাইট পরিচালনার মাধ্যমে নতুন এই এয়ারলাইন্সের যাত্রা শুরু হবে।

মঙ্গলবার পূর্ব লন্ডনে এক সাংবাদিক সম্মেলনে এমনই ঘোষণা দিয়েছে ফিরনাস কর্তৃপক্ষ।

সাংবাদিক সম্মেলনে জানানো হয়, বৃটেন থেকে সরাসরি ফ্লাইটের একটি বিশাল চাহিদা রয়েছে সিলেট, ইসলামাবাদ, কলকাতা বা তেহরানের মতো সিটিগুলোতে। এমনকি সৌদিআরব এবং আফ্রিকার অনেক গন্তব্যেও চাহিদা অনেক। এসব রুটের বিপুল সম্ভাবনাকে সামনে রেখে যাত্রা শুরু করতে যাচেছ যুক্তরাজ্যভিত্তিক ফুল সার্ভিস নেটওয়ার্ক এয়ারলাইন্স, ফিরনাস এয়ারওয়েজ।  

আগামী বছরের শেষের দিকে আনুষ্ঠানিকভাবে পৃথিবীর ৮টি গন্তব্যে ফ্লাইট পরিচালনা করবে প্রস্তাবিত এই নেটওয়ার্ক এয়ারলাইন্স।

সাংবাদিক সম্মেলনে উদ্যোক্তারা বলেন, বৃটেনে বাংলাদেশি, ভারতীয়, পাকিস্তানী, নেপালী, ইরানীদের ছাড়াও আফ্রিকা এবং মধ্যপ্রাচ্যের বিভিন্ন দেশের মানুষের ক্রমবর্ধমান চাহিদা পূরণে এই উদ্যোগ হবে নতুন এক মাইলফলক।

অনুষ্ঠানের শুরুতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন ফিরনাসের সিইও কাজী শফিকুর রহমান। সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন ম্যানেজিং ডিরেক্টর কেবিন জন স্টিল।
 
সংবাদ সম্মেলনে সিইও কাজী শফিক বলেন, সিলেট তথা দক্ষিণ এশিয়ার কিছু নগরীতে ইউকে থেকে সরাসরি ফ্লাইটের একটি বিশাল চাহিদা রয়েছে। বড় বড় এয়ারলাইন্সগুলো এই মার্কেটকে অগ্রাধিকার দিচ্ছেনা, ফিরনাস এয়ারওয়েজ এসব রুটকে টার্গেট করে যাত্রীদের চাহিদা পূরণ করতে চায়।

কেভিন জন স্টিল জানান, দক্ষিণ  এশিয়াসহ বিশ্বব্যাপী চল্লিশ বছরের অভিজ্ঞতার আলোকে ফিরনাস এয়ারওয়েজ পরিচালনা করবেন তিনি। সফলতার বিষয়ে দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করে কেভিন বলেন, পারিবারিক পরিবেশ এবং বিশ্বমানের সেবা নিশ্চিত করাই ফিরনাসের অঙ্গিকার।

শুরুতে ২৫০ থেকে ৩০০ আসনের এয়ারক্রাফট নিয়ে যাত্রা শুরু করবে ফিরনাস। মুসলিম দেশগুলোতে ভ্রমণকারী যাত্রীদের জন্য সম্পূর্ণ হালাল খাবার ও পরিবেশ এবং ইবাদতের বিশেষ ব্যবস্থা নিশ্চিত করা হবে। শিশুদের জন্য থাকবে বিশেষ ব্যতিক্রমী সুবিধা।

ফিরনাসের সিইও কাজী শফিকুর রহমান আরও বলেন, কম মূল্যে বিশ্বমানের সেবা নিশ্চিত করতে চায় ফিরনাস এয়ারওয়েজ।

প্রাথমিকভাবে বৃটেন থেকে বিশ্বের ৮টি গন্তব্যে সরাসরি ফ্লাইট চালু হবে। সিলেট, ইস্তাম্বুল, টরন্টো, ইসলামাবাদ, ঘানা, রিয়াদ ও নয়া দিল্লিকে টার্গেট রুট হিশেবে ধরা হয়েছে।

কাজী শফিক বলেন, বৃটেনে ফিরনাসের হাব প্রতিষ্ঠায় এরইমধ্যে লন্ডন, ম্যানচেস্টার ও বার্মিংহামের এয়ারপোর্ট অথরিটির সাথে প্রয়োজনীয় চুক্তি বাস্তবায়নে কাজ শুরু হয়েছে। যাত্রীদের নিরাপত্তাকে সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দিয়ে ফিরনাস ফ্লাইট পরিচালনা করবে জানিয়ে সিইও আরও বলেন, শুরুর দিকে এয়ারক্র্যাফট  না কিনে লিজ নেওয়া হবে।

সাংবাদিক সম্মেলনে হেড অব কর্পোরেট প্লানিং আব্দুল রকিব বলেন, কমিউনিটিতে অতীতে আরো কিছু উদ্যোগ ব্যর্থ হওয়ায় নানা প্রশ্ন আসতে পারে-তবে আমরা যথার্থ পরিকল্পনা ও ইন্ড্রাস্ট্রির যোগ্যদের নিয়ে নেমেছি। আর্থিক লাভ-ক্ষতি ও মার্কেট পরিস্থিতির আলোকেই এগোবে ফিরনাস এয়ারওয়েজ।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, ৩টি এয়ারক্রাফট নিয়ে যাত্রা শুরু হয়ে আগামী পাঁচ বছরের মধ্যে ফিরনাসের বহরে যুক্ত হবে আরো  ৫টি ব্রান্ড নিউ এয়ারক্রাফট। যা ২০২০ সালের মধ্যে মোট এয়ারক্রাফটের সংখ্যা দাড়াঁবে সাতটি। এ জন্য ফিরনাস ম্যানেজম্যান্ট টিম শিগগিরই বাজারে মূলধন সংগ্রহে কাজ শুরু করবে।

বাংলাদেশ সময় ২১৫৬ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ০৯, ২০১৫
এমএমকে

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa