ঢাকা, শুক্রবার, ১ আশ্বিন ১৪২৮, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৮ সফর ১৪৪৩

লন্ডন

লন্ডনে বিজনেস রিসিপশনে মমতার প্রশংসায় ব্রিটেন

সৈয়দ আনাস পাশা, স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট লন্ডন | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৬৫৩ ঘণ্টা, জুলাই ২৯, ২০১৫
লন্ডনে বিজনেস রিসিপশনে মমতার প্রশংসায় ব্রিটেন ছবি: সংগৃহীত

লন্ডন: ব্রিটিশ ফরেন অ্যান্ড কমনওয়েলথ অফিসে দ্বিপাক্ষিক বৈঠকের পর পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জিকে বিজনেস রিসিপশন নামে উষ্ণ অভ্যর্থনা জানানো হয়েছে।

সোমবার (২৭ জুলাই) স্থানীয় সময় রাতে অনুষ্ঠিত এ রিসিপশনে ব্রিটেনের ওয়ার্ক অ্যান্ড পেনশন মিনিস্টার ও প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরনের ভারতীয় অভিবাসী বিষয়ক দূত প্রিতি পাতিল পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রীকে স্বাগত জানিয়ে বক্তব্য রাখেন।



মমতাকে স্বাগত জানিয়ে প্রিতি পাতিল ব্রিটেন-পশ্চিমবঙ্গের পারস্পরিক ঘনিষ্ট সম্পর্কের কথা উল্লেখ করে বলেন, মমতার সফর এ সম্পর্কে নতুন মাত্রা যোগ করবে। ব্রিটেন-পশ্চিমবঙ্গ সম্পর্কের ভিত্তি ঐতিহাসিক। নতুন প্রজন্মের স্বার্থে এ সম্পর্ককে নবায়ন ও পুনরুজ্জীবিত করতে মমতার এ সফর ল্যান্ডমার্ক হিসেবে কাজ করবে।

দুই বছর আগে প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরনের পশ্চিমবঙ্গ সফরের কথা উল্লেখ করে প্রিতি পাতিল বলেন, মমতার নেতৃত্বে পশ্চিমবঙ্গে যে নবজাগরণের সূচনা হয়েছে তার সম্ভাবনা অনুধাবন করতেই দুই বছর আগে ডেভিড ক্যামেরন পশ্চিমবঙ্গ সফরে গিয়েছিলেন। মমতার সঙ্গে বৈঠকে ক্যামেরন জানতে চেয়েছিলেন, পশ্চিমবঙ্গকে নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর উচ্চাভিলাষী পরিকল্পনা।

প্রিতি বলেন, মমতার নেতৃত্বে প্রধানমন্ত্রী ক্যামেরন প্রভাবিত হওয়ার কারণেই তাকে ব্রিটেন সফরে আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন।

ওয়ার্ক অ্যান্ড পেনশন মিনিস্টার ও প্রধানমন্ত্রী ক্যামেরনের ভারতীয় অভিবাসী বিষয়ক দূত ব্যবসায়িক ক্ষেত্রে ব্রিটেন- পশ্চিমবঙ্গের পারস্পরিক ঘনিষ্ট সম্পর্ক মমতার সফরের কারণে আরও জোরদার হবে এমন আশাবাদ ব্যক্ত করে বলেন, ব্যবসা ক্ষেত্রে বর্তমান সম্পর্কের ধারাবাহিকতায় নতুন নতুন সম্ভাবনার সুযোগ সৃষ্টি করবে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রীর এ সফর।  

রিসিপশনের জবাবে মমতা তাকে উষ্ণ রিসিপশন দেওয়ায় ব্রিটেনের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে বলেন, আমাদের দুই অঞ্চলের পারস্পরিক ঐতিহাসিক সম্পর্কই সাম্প্রতিক সম্পর্ক উন্নয়নের মূল ভিত্তি।

ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর পশ্চিমবঙ্গ সফরের কথা স্মরণ করে তিনি বলেন, তার ওই সফর পশ্চিমবঙ্গের জনগণকে অবশ্যই সম্মানিত করেছে।

ব্যবসাসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে পারস্পরিক যোগাযোগ আরও সুদৃঢ় করতে ব্রিটেনের আহ্বানকে স্বাগত জানিয়ে মমতা বলেন, দুই অঞ্চলের জনগণের স্বার্থেই আমাদের এটি বিবেচনা করা উচিত।

রিসিপশন অনুষ্ঠানে পশ্চিমবঙ্গসহ ভারতের ও ব্রিটেনের শীর্ষস্থানীয় ব্যবসায়ীরা উপস্থিত ছিলেন।

পাঁচ দিনের সফরে বর্তমানে লন্ডনে রয়েছেন মমতা ব্যানার্জি।

বাংলাদেশ সময়: ০৬৫৫ ঘণ্টা, জুলাই ২৯, ২০১৫
এসএস 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa