ঢাকা, মঙ্গলবার, ৫ আশ্বিন ১৪২৮, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২ সফর ১৪৪৩

লন্ডন

স্বাধীন ফিলিস্তিন রাষ্ট্রের পক্ষে ব্রিটিশ পার্লামেন্ট

সৈয়দ আনাস পাশা, লন্ডন করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১০১৬ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৪, ২০১৪
স্বাধীন ফিলিস্তিন রাষ্ট্রের পক্ষে ব্রিটিশ পার্লামেন্ট ছবি: বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

লন্ডন: স্বাধীন ফিলিস্তিন রাষ্ট্রের পক্ষে আনীত এক পার্লামেন্টারি মোশনে ইসরায়েলের পাশাপাশি একটি স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে ফিলিস্তিনকে স্বীকৃতি দেয়ার পক্ষে ভোট দিয়েছেন ব্রিটিশ পার্লামেন্ট সদস্যরা।

স্থানীয় সময় সোমবার বিকেলে ব্রিটিশ পার্লামেন্টের হাউস অব কমন্সে অনুষ্ঠিত এই ভোটগ্রহণে ফিলিস্তিন রাষ্ট্রের স্বীকৃতির পক্ষে ২৭৪ জন ও বিপক্ষে ১২ জন এমপি তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন।



অর্ধেকেরও কম সংখ্যক এমপি’র অংশ নেয়া ‘এজ এ কনট্রিবিউশন টু সিকিউরিং এ নিগোসিয়েটেড টু স্টেইট সলিউশন’ শীর্ষক এই মোশনটি অনেকটা প্রতীকী হলেও আন্তর্জাতিকভাবে বিষয়টি ব্যাপক প্রভাব ফেলবে বলে মনে করছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা।

লেবার দলীয় এমপি গ্রাহাম মরিসের উত্থাপিত এবং সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী জ্যাক স্ট্র কর্তৃক সংশোধিত মোশনটির এই ভোটগ্রহণে ব্রিটিশ সরকারের মন্ত্রীরা অংশ না নিলেও সরকারের মধ্যপ্রাচ্য বিষয়ক মন্ত্রী টবিয়াস এলউড বলেছেন শান্তি প্রক্রিয়া এগিয়ে নিতে উপযুক্ত সময়ে ফিলিস্তিনকে স্বীকৃতির বিষয়টি সরকারের বিবেচনায় রয়েছে। মোশন উত্থাপন করে এমপি মরিস বলেন, স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে ফিলিস্তিনকে স্বীকৃতি ইসরায়েল-ফিলিস্তিন শান্তি প্রক্রিয়াকে এগিয়ে নেবে। যে শান্তি প্রক্রিয়া এখন অনেকটাই চোরাবালিতে আটকে আছে।

তিনি বলেন, আমরা মনে করি শান্তি প্রক্রিয়া এগিয়ে নিতেই ইসরায়েলের পাশাপাশি ফিলিস্তিনকে স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে স্বীকৃতি দেয়া উচিত। আর আমাদের এই ইচ্ছে প্রকাশ করতেই আজকের এই মোশন। হাউস অব কমন্সের এই ভোট যদিও একটি প্রতীকী ভোট, তবুও আন্তর্জাতিকভাবে এটি ব্যাপক প্রভাব ফেলবে বলেই মনে করেন মোশন উত্থাপনকারী লেবার দলীয় এমপি গ্রাহাম মরিস।

২০১২ সালের নভেম্বরে জাতিসংঘ ফিলিস্তিনকে একটি পর্যবেক্ষক রাষ্ট্রের মর্যাদা দিতে ভোটের আয়োজন করলে নিরাপত্তা পরিষদের স্থায়ী সদস্য ব্রিটেন ভোটদান থেকে বিরত থাকে।

বাংলাদেশ সময়: ১০০৫ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৪, ২০১৪

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa