ঢাকা, বুধবার, ২১ শ্রাবণ ১৪২৭, ০৫ আগস্ট ২০২০, ১৪ জিলহজ ১৪৪১

লাইফস্টাইল

লক্ষ্য স্থির করে কাউকে জানানো নয়

লাইফস্টাইল ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০-০৭-০২ ০৯:২৮:৪৩ পিএম
লক্ষ্য স্থির করে কাউকে জানানো নয় লক্ষ্য স্থির করে কাউকে জানানো নয়

জীবনে আমরা কিছু লক্ষ্য স্থির করি, সেটা অর্জন করতে পারলেই নিজেদের সফল মনে হয়। তবে সফলতা সবার জন্য কিন্তু এক নয়, যেমন একজন বিসিএস দিয়ে পুলিশ কর্মকর্তা হয়ে নিজেকে সফল ভাবছেন, অন্য জনের লক্ষ্য হয়তো ক্ষুদ্র উদ্যোক্তা হওয়ার।

তবে লক্ষ্য অর্জনের আনন্দ কিন্তু দু’জনের কাছেই মোটামুটি সমান। সফলতার জন্য কেন আমাদের সবার জীবনের লক্ষ্য থাকা দরকার? সাফল্য, কৃতিত্ব তখনই উপোভগ্য হয়, যখন এর পেছনে শ্রম থাকে, একে পাওয়ার ইচ্ছা ও চেষ্টা থাকে।

আর এতো পরিশ্রমের পর যখন জীবনে সাফল্য আসে, তখন মনে হয় আকাশ যেন সে প্রায় ছুঁয়েই ফেলেছে।

লক্ষ্য অর্জন কঠিন ভেবে অনেক সময় আমরা খুব সহজেই হাল ছেড়ে দেই। আমরা ভাবতে থাকি কী কী করা উচিত ছিল, কিন্তু কী কী করতে পারি, সেটাই ভাবতে ভুলে যাই। যেমন আমরা চাইলেই সব কিছু অর্জন করতে পারি না। নিজেদেরও অনেক ধরনের সীমাবধ্যতা থাকতে পারে। লক্ষ্য স্থির করার আগে এই বিষয়টিও অবশ্যই মনে রাখতে হবে।

অনেক সময় অন্যদের সাফল্যের পরিমাপে আমরা নিজেকে মাপতে চাই, এটা করলে ভুল হওয়ার সম্ভবনা থেকে যায়। জীবনকে নিজের মতো করেই এগিয়ে নিতে হবে। মনে রাখতে হবে আমার পরিবার, পরিবেশ, চাহিদা এবং যোগ্যতা অন্যদের সঙ্গে মিলবে না। আর তাই লক্ষ্য এক হলেও তা অর্জনের জন্য নিজের মতো করেই চেষ্টা করে যেতে হবে।

লক্ষ্য স্থির হওয়ার পর অর্জনে চেষ্টার পাশাপাশি এটাকে ভালোও বাসতে হবে। লক্ষ্য অর্জনে কিছুটা এগিয়ে গেলেই সবার সঙ্গে বলে দেওয়া ঠিক নয়, হতে পারে যাকে জানালেন, তিনি আপনাকে এমন কিছু বলে দিলেন, যে আপনার কাজটি করার উৎসাহ কমে যেতে পারে।

আবার এমনও হয়, লক্ষ্যের কথা বলে দিয়ে মানুষ এক ধরনের তৃপ্তি অনুভব করে, যার অনুভূতি অনেকটাই লক্ষ্য অর্জনের কাছাকাছি। যে কারণেও কমে যেতে পারে লক্ষ্য অর্জনের চেষ্টা।

বাংলাদেশ সময়: ২১৩০ ঘণ্টা, জুলাই ০২, ২০২০
এসআইএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa