bangla news

মিষ্টি আলুর খোসায় বেকারি প্রোডাক্ট!

নিউজ ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০-০২-২৭ ৯:০০:২৯ পিএম
স্টেট ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশের ফুড ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড টেকনোলজি বিভাগের একদল নবীন উদ্ভাবক

স্টেট ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশের ফুড ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড টেকনোলজি বিভাগের একদল নবীন উদ্ভাবক

ঢাকা: সুস্থ জীবন-যাপনের জন্য প্রয়োজন পুষ্টিসমৃদ্ধ খাদ্য। কিন্তু দিন দিন আমরা পুষ্টির বিষয়টি উপেক্ষা করে শুধুমাত্র খাবারের স্বাদ এবং পরিবেশনের দিকে ঝুঁকে পড়ছি। এর ফলে না জেনেই আমরা ধাবিত হচ্ছি পুষ্টিহীনতার মতো মারাত্মক সমস্যার দিকে।

এ সমস্যা সমাধানের লক্ষ্যে স্টেট ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশের ফুড ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড টেকনোলজি বিভাগের একদল নবীন উদ্ভাবক অপুষ্টিজনিত সমস্যা সমাধান এবং স্বল্প সময়ে সহজে অধিক পুষ্টি আহরণের লক্ষ্যে তারা তৈরি করছে মিষ্টি আলুর খোসা এবং মিষ্টি আলু থেকে তৈরি বেকারি প্রোডাক্ট।

অসামান্য পুষ্টি সমৃদ্ধ এ আলুর খোসা থেকে তৈরি ফর্টিফাইড এসব বেকারি প্রোডাক্ট ক্ষুধার সঙ্গে পূরণ করবে আমাদের পুষ্টির চাহিদা। দূর করবে ভিটামিন, ফাইবার এবং এন্টি অক্সিডেন্টের অভাব। এর খোসায় বিদ্যমান ফাইবার কাজ করবে গ্যাস্ট্রো ইনটেস্টাইনাল এবং অবেসিটির মতো মারাত্মক সমস্যার সমাধান হিসেবে। এতে করে যেমন অর্জিত হবে স্বল্প খরচে পর্যাপ্ত পুষ্টি গ্রহণের মাত্রা, সেইসঙ্গে নিশ্চিত হবে পরিবেশবান্ধব শিল্পোৎপাদন নীতি।

স্টেট ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশের ফুড ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড টেকনোলজি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ড. মোছা. শরীফা আক্তার (প্রধান গবেষক) এবং প্রভাষক মো. আসাদুজ্জামানের (সহযোগী গবেষক) তত্ত্বাবধানে এ উদ্ভাবনী কাজে অংশ নিয়েছে ফুড ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড টেকনোলজি বিভাগেরই তিনজন শিক্ষার্থী নাঈমা রহমান, মাহবুবুর রহমান এবং চৌধুরী মাহরীন তাসনিম। বাংলাদেশ সরকারের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের অনুদানে এটাই স্টেট ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশের প্রথম প্রকল্প। 

বাংলাদেশ সময়: ২০৪৯ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২৭, ২০২০
এনটি

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2020-02-27 21:00:29