bangla news

ঈদে মশলার দরদাম

লাইফস্টাইল ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৬-০৩ ১:৪১:৩৭ পিএম
মশলা

মশলা

চলে এলো ঈদ-উল-ফিতর। ঈদে পোশাকের সঙ্গে সঙ্গে খাবারের দিকেও সমান মনোযোগ থাকে। বাড়িতে রান্নার আয়োজন করতে প্রয়োজন কতকিছু, সময় থাকতে লিস্ট নিয়ে হাজির হোন বাজারে। 

মশলাসহ সব কেনাকাটা সময় নিয়ে সুপার শপের পরিবর্তে বড় কোনো বাজার থেকে করলে বেশ সাশ্রয়ী হবে। 

আসুন জেনে নেই এই ঈদে বাজারে প্রয়োজনীয় পণ্যের দরদাম কেমন?

প্রতিকেজি হলুদগুড়া পাওয়া যাবে ১৮০ থেকে ২০০ টাকার মধ্যে, মরিচগুড়া ২০০ থেকে ২২০ টাকার মধ্যে, আদা প্রতিকেজি ১৫০ টাকা, পেঁয়াজ প্রতিকেজি ৩৮ টাকা(দেশি)৩২ টাকা (বিদেশি),রসুন প্রতিকেজি ১৮৫ টাকা, ধনেগুড়া প্রতিকেজি ১০০ থেকে ১২০ টাকার মধ্যে, জিরা ৩৫০ থেকে ৪০০ টাকার মধ্যে। 

ডালের ভেতর প্রতি কেজি মসুর ডাল দেশি ১৫৫, মুগ ডাল ১১০ টাকা, বুটের ডাল ১০০ টাকা ও মাষকলাই ১৩০ টাকা। লবণ প্রতিকেজি ২৮ থেকে ৩০ টাকার মধ্যে পাওয়া যাবে। এছাড়া বিট লবণ ১০০ টাকা ও ৫০০ গ্রাম পরিমাণ টেস্টিং সল্ট পাওয়া যাবে  ১২৫ থেকে ১৪০ টাকায়।  

কেজিপ্রতি দারুচিনি ৩০০ টাকা, এলাচ ১২০০ থেকে ১৬০০ টাকা, লবঙ্গ ১০০০-১১০০ টাকা, কিশমিশ ৩৬০-৪৩০ টাকা, আলুবোখারা ৪৯০-৫০০ টাকা, কালিজিরা ৩০০ টাকা, জাফরান প্রতিগ্রাম ২৫০ টাকা, জয়ফল প্রতিপিস ৮-১০ টাকা, পাঁচফোড়ন ১২০ টাকা, জৈত্রী ১০০ গ্রাম ১৮০ টাকা। বাদামের মধ্যে চীনাবাদাম পাবেন কেজিপ্রতি ৮০-৮৫ টাকা, কাঠবাদাম ৮৫০ ও কাজুবাদাম ১১০০ টাকা। 

ঈদের বিশেষ রান্নায় চাই খাঁটি ঘি। প্রতিকেজি ঘি পাওয়া যাবে ৯৩০ থেকে ৯৫০ টাকার মধ্যে ও প্রতি লিটার খোলা তেল পাওয়া যাবে ৯০ থেকে ১০০ টাকার মধ্যে। চিনি প্রতিকেজি পাওয়া যাবে ৬৬ থেকে ৭২ টাকার মধ্যে।

অনেকেই রেডি মশলার খাবার পছন্দ করেন। তাদের জন্য বাজারে রয়েছে অনেক ধরনের রেডি মিক্স মশলা। কোম্পানিভেদে দামে কিছু পার্থক্য রয়েছে। রোস্ট মশলা পাওয়া যাবে ৬০-৭০ টাকা, কাবাব মশলা পাওয়া যাবে ৫০ টাকার মধ্যে পাওয়া যাবে।  

বিরিয়ানী মশলা ৫০ টাকা, মেজবানি মাংসের মশলার দাম পরবে ৩৫-৫০ টাকার মধ্যে।  

ঈদের বাজারে সেমাই পাওয়া যাচ্ছে প্রতিকেজি ৩৫০ থেকে ৩৭০ টাকায়। 

বোরহানি তৈরি করার জন্য লাগবে টক দই সেক্ষেত্রে প্রতিকেজি টকদই পাওয়া যাচ্ছে ৭০ থেকে ৮০ টাকার মধ্যে। এছাড়া মাঠা, লাবাং তৈরি করতে লাগবে দুধ, প্রতি লিটার দুধ পাওয়া যাবে ৬৫ থেকে ৬৮ টাকার মধ্যে। 

বাংলাদেশ সময় ১৩৪০ ঘণ্টা, জুন ০৩, ২০১৯ 
এসআইএস

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-06-03 13:41:37