ঢাকা, রবিবার, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ২৬ মে ২০১৯
bangla news

বেশ কয়েকটি হালুয়ার রেসিপি 

লাইফস্টাইল ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৪-১৮ ৬:০৬:৩১ পিএম
হালুয়া

হালুয়া

অনেকগুলো হালুয়ার রেসিপি রইল, পছন্দের হালুয়ার রেসিপি অনুযায়ী তালিকা করে, সময় থাকতেই  সব উপকরণ এনে নিন। যেন রান্নার সময় এটা পাচ্ছিনা, ওটা আনতে ভুলে গেছি, এ ধরনের বিড়ম্বনায় না পড়তে হয়, কেমন?

নারকেলের বরফি

যা যা লাগবে
নারিকেল ২টি প্রথমে কুরিয়ে তারপর বেটে নিতে হবে। গুঁড়া দুধ ২০০ গ্রাম, এলাচ গুঁড়া ১ চা চামচ, চিনা বাদামের গুঁড়া ১কাপ, চিনি আধা কেজি, ঘি  ১০০ গ্রাম।

যেভাবে তৈরি করতে হবে
প্রথমে একটি পাত্রে ঘি গরম করে এলাচের গুঁড়া, নারিকেল বাটা, চিনি, বাদামের গুঁড়া এবং গুঁড়া দুধ দিয়ে একসাথে দিয়ে মাঝারি আঁচে নাড়তে থাকতে হবে। খেয়াল রাখতে হবে যেন নিচে পুড়ে না যায়। নাড়তে নাড়তে যখন মিশ্রণটা আঠালো হলে নামিয়ে নিন। 

আগেই একটি ট্রেতে ঘি মেখে রাখুন। এবার নারকেলের হালুয়া ঢেলে সমান করে ওপরে বাদামের কুচি ছিটিয়ে চারকোণা করে কেটে নিন। 

ঠাণ্ডা করে পরিবেশন কারন।

নেশেস্তার হালুয়া
উপকরণ

সুজি ২০৫ গ্রাম, পানি ৪ কাপ, ঘি আধা কাপ, চিনি আধা কেজি, গোলাপজল ১ চা চামচ, এলাচ ৩টি, দারুচিনি ২ সেমি ২ টুকরো, জাফরান আধা চা চামচ, লেমন ইয়েলো রং সামান্য।

প্রণালী
সুজি ২ কাপ, পানিতে ২ দিন ভিজিয়ে রাখুন। ৭-৮ ঘণ্টা পর রেফ্রিজারেটরে রাখবেন। ভেজানো সুজি হাত দিয়ে চটকে নিন। কাপড়ে নিয়ে সুজি ছেঁকে মাড় বের করুন। মাড় ভালোভাবে বেরিয়ে এলে একটি বাটিতে ১ কাপ পানি নিন। কাপড় থেকে সুজির দলা পানিতে রাখুন। হাত দিয়ে আবারও চটকে নিন। মাড়টুকু ছেঁকে নিন। সুজির মাড়ই নেশেস্তা। 

হাঁড়িতে ঘি গলিয়ে এলাচ, দারুচিনি, চিনি দিয়ে একবার নেড়ে চুলা থেকে নামিয়ে নেশেস্তা, গোলাপজল, জাফরান ও রং দিয়ে নেড়ে মেশান। চুলায় দিয়ে মৃদু আঁচে অনবরত নাড়তে থাকুন। ধীরে ধীরে জমে আসবে। হালুয়ার মতো তাল বেঁধে চকচকে দেখালে এবং ঘি বের হলে নামিয়ে সঙ্গে সঙ্গে থালায় ঢেলে সমান করুন। ঠাণ্ডা হলে পেস্তা, বাদাম দিয়ে সাজিয়ে নিন। 

হালুয়া
ডিমের হালুয়া
উপকরণ

ডিম ৮টি, চিনি ২ কাপ, দুধ ঘন ১ কাপ, ঘি ১ কাপ, এলাচ ২টি, দারুচিনি ২ সেমি ২ টুকরো, গোলাপজল ২ টেবিল চামচ, জাফরান সামান্য।

প্রণালী
গোলাপজলে জাফরান আধঘণ্টা ভিজিয়ে রাখুন। ডিম কাঁটা চামচ দিয়ে ফেটে দিন। সব উপকরণ একত্রে মেশান। মৃদু আঁচে চুলায় দিয়ে নাড়তে থাকুন। খুব সাবধানে নাড়তে হবে যেন তলায় না লাগে। ডিম জমাট বেঁধে মিহিদানার মতো হবে। পানি শুকিয়ে ঘি বের হলে চুলা থেকে নামিয়ে নাড়ুন। বেশিক্ষণ ভাজলে হালুয়া শক্ত হয়ে যাবে। 

পরিবেশন পাত্রে ঢেলে মাওয়া ও বাদাম কুচি দিয়ে সাজিয়ে পরিবেশন করুন।

বাদামের হালুয়া

উপকরণ: কাজু বাদাম ২ কাপ, ছানা ২ কাপ, চিনি ২ কাপ, এলাচ গুঁড়া সিকি চা চামচ, ঘি আধা কাপ, ময়দা ১ টেবিল চামচ, কিসমিস ১ টেবিল চামচ, কাজু ও পেস্তা বাদাম সাজানোর জন্য।

প্রণালী: কাজু বাদাম হালকা ভেজে তিন-চার ঘণ্টা পানিতে ভিজিয়ে রাখুন। পানি থেকে তুলে কাজু বাদাম ব্লেন্ডারে ব্লেন্ড করে নিন। এবার চুলায় পাত্রে ঘি দিয়ে কাজু বাদাম ও ছানা দিয়ে ভাজতে থাকুন এবং চিনি দিন। দ্রুত নাড়তে থাকুন। ময়দা, এলাচ গুঁড়া দিন। 

হালুয়া হয়ে এলে প্লেটে সাজিয়ে ওপরে কিসমিস, কাজু ও পেস্তা বাদাম দিয়ে সাজিয়ে পরিবেশন করুন।হালুয়া
পেঁপের হালুয়া

উপকরণ: ১ কাপ, মাওয়া ১ কাপ, কাঁচা পেঁপে সেদ্ধ করে বাটা ১ কাপ, চিনি ২ কাপ, ঘি ২ টেবিল চামচ, গোলাপজল, সবুজ রং প্রয়োজনমতো, কিসমিস সাজানোর জন্য।

প্রণালী :পাত্রে (প্যান) পেঁপে, ছানা, মাওয়া, চিনি ও ঘি দিয়ে সাথে সবুজ রং দিয়ে কম আঁচে ভুনতে হবে। প্যানের গা ছেড়ে এলে নামান। নামানোর আগে গোলাপজল ছড়িয়ে দিতে হবে। ছাঁচে দিয়ে সন্দেশ তৈরি করে কিসমিস দিয়ে সাজিয়ে পরিবেশন করুন।

ছোলার ডালের হালুয়া 

উপকরণ : ছোলার ডাল ৫০০ গ্রাম, দুধ ১ লিটার, চিনি ৭৫০ গ্রাম, ঘি এক কাপ, এলাচ গুঁড়া সামান্য, দারুচিনি গোলাপজল ১ টেবিল চামচ। কিসমিস ৩ টেবিল চামচ, পেস্তা বাদাম কুচি ৩ টেবিল চামচ।

প্রণালী : ছোলার ডাল, দুধ দিয়ে সেদ্ধ করে শুকিয়ে গেলে গরম অবস্থায় বেটে নিতে হবে। কড়াইতে ঘি দিয়ে ডাল বাটা দিয়ে কিছুক্ষণ নেড়ে চিনি দিয়ে নাড়তে হবে। এলাচ, দারুচিনি গুঁড়া দিতে হবে। হালুয়া তাল বেঁধে উঠলে কিসমিস, গোলাপজল দিয়ে কিছুক্ষণ নেড়ে-চেড়ে চুলা থেকে নামিয়ে বড় খাঞ্জায় ঘি লাগিয়ে পেস্তা বাদাম কুচি ছড়িয়ে গরম হালুয়া ঢেলে সমান করতে হবে। 

ঠাণ্ডা হলে ছাঁচে বসিয়ে বিভিন্ন নকশা করে পরিবেশন করুন। 


বাংলাদেশ সময়: ১৮০৮ ঘণ্টা, এপ্রিল ১৮, ২০১৯
এসআইএস

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

লাইফস্টাইল বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত

Alexa
cache_14 2019-04-18 18:06:31