ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ২৩ মে ২০১৯
bangla news

উত্তরায় অরণ্য ক্র্যাফটের তৃতীয় আউটলেট

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৩-১৬ ৭:১২:৩৫ পিএম
ফিতা কেটে এ আউটলেট উদ্বোধন করেছেন অভিনেত্রী জয়া আহসান। ছবি: বাংলানিউজ

ফিতা কেটে এ আউটলেট উদ্বোধন করেছেন অভিনেত্রী জয়া আহসান। ছবি: বাংলানিউজ

ঢাকা: রাজধানীর উত্তরায় নিজেদের তৃতীয় আউটলেট চালু করেছে ফ্যাশন হাউজ ব্র্যান্ড অরণ্য ক্র্যাফট। উত্তরার নয় নম্বর সেক্টরের সোনারগাঁও জনপথ রোডে অরণ্য ক্র্যাফটের এ শাখা চালু করা হয়।

শনিবার (১৬ মার্চ) বিকেলে আনুষ্ঠানিকভাবে জাতীয় পুরস্কারপ্রাপ্ত অভিনেত্রী জয়া আহসান ফিতা কেটে এ আউটলেট উদ্বোধন করেন।

এ সময় বেঙ্গল ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান আবুল খায়ের, অরণ্য ক্র্যাফটে চেয়ারম্যান লুভা নাহিদ চৌধুরী, ব্যবস্থাপনা পরিচালক নওশীন খায়েরসহ দেশীয় ফ্যাশন ও বিনোদন খাতের গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন।
 
উদ্বোধন শেষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে অভিনেত্রী জয়া আহসান বলেন, অরণ্যের এক একটি পোশাক একটি ‘আর্ট ওয়ার্ক’। অরণ্য সবসময় বাঙালি ঐতিহ্যকে প্রাধান্য দিয়ে তাদের পোশাকের ডিজাইন করে। অরণ্যের সঙ্গে পরিচিত না হলে জানতামই না যে, প্রাকৃতিক রঙ দিয়ে পোশাক তৈরি করা যায়। আমি নিজে অরণ্যের পোশাক পরিধান করি এবং অরণ্যের একজন ভক্ত আমি।
 
সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, ১৯৯০ সালে রুবি গাছরার হাত ধরে যাত্রা শুরু করে অরণ্য ক্রাফট। ২০১৮ সালে বেঙ্গল ফাউন্ডেশনের সঙ্গে একীভূত হয় প্রতিষ্ঠানটি। 

অরণ্য ক্র্যাফটের ব্যবস্থাপনা পরিচালক নওশীন খায়ের বাংলানিউজকে বলেন, রুবি গাছরা দেশে ও দেশের বাইরে প্রমাণ করে দেখিয়েছেন যে, প্রাকৃতিক রঙ দিয়ে পোশাক তৈরি করে তা দিয়ে এমন দোকান দেওয়া যায়। আমাদের বিভিন্ন ধরনের পণ্যের মধ্যে অন্যতম হলো বাঙালি ঐতিহ্যের নকশী কাঁথা। আমাদের সব পণ্যে শিল্পখাতের কেমিক্যাল ডাই রঙয়ের বদলে পরিবেশবান্ধব প্রাকৃতিক রঙ ব্যবহার করা হয়। আমাদের এ কাজের সঙ্গে দেশের বিভিন্ন জেলার প্রায় তিন হাজার কর্মী যুক্ত আছেন তাদের একটি বড় অংশ নারী।
 
দেশের পাশাপাশি অরণ্যের পণ্য বিদেশেও রফতানি করা হয় বলেও জানান নওশীন । এছাড়াও ই-কমার্স ভিত্তিক অনলাইন শপেও পাওয়া যায় অরণ্যের পণ্য। ঘরে বসে পণ্য অর্ডার করে হোম ডেলিভারি সেবাও দেয় প্রতিষ্ঠানটি।
 
উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সবশেষে নিজেদের পোশাক নিয়ে এক র‌্যাম্প শো’র আয়োজন করে অরণ্য।
 
বাংলাদেশস সময়: ১৯০০ ঘণ্টা, মার্চ ১৬, ২০১৯
এসএইচএস/আরআইএস/

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-03-16 19:12:35